২৮ ভাদ্র  ১৪২৬  রবিবার ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: অসমে জাতীয় নাগরিকপঞ্জি ইস্যুতে আগামীকাল রাজ্যজুড়ে প্রতিবাদ কর্মসূচির ডাক দিলেন তৃণমূল মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়৷ শুক্রবার সাংবাদিক বৈঠক করে শনি ও রবিবার জোড়া কর্মসূচির ঘোষণা করেন তিনি৷ শনিবার রাজ্যজুড়ে এনআরসি বিরোধী প্রতিবাদ কর্মসূচি ও রবিবার কলকাতায় ধিক্কার দিবস পালনের নির্দেশ দেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়৷

[শহরে অটো দৌরাত্ম্য রুখতে আশার বাণী মন্ত্রীর, বসছে কমপ্লেন বক্স]

সপ্তাহ শেষে তৃণমূলের জোড়া কর্মসূচি ঘিরে নতুন করে তপ্ত হতে শুরু করেছে দেশের রাজনীতি৷ রবিবারের ‘ধিক্কার দিবস’ কর্মসূচিতে বিজেপি সভাপতি অমিত শাহকে কালো পতাকা দেখানোর নির্দেশ জারি হয়েছে৷ এদিন সাংবাদিক বৈঠক ডেকে মহাসচিব বলেন, ‘‘দেশজুড়ে একের পর এক জনবিরোধী কাজ চালিয়ে যাচ্ছে বিজেপি৷ মানুষের অধিকার আজ বঞ্জিত৷ কখনও মানুষের সঞ্চিত অর্থে হাত দিচ্ছে কেন্দ্র, কখন বলছে ভারতে থাকার অধিকার নেই৷ কেন্দ্রে বিজেপির জনবিরোধী সরকারের বিরুদ্ধে আমাদের লড়াই চলবে৷ শনিবার জেলায় জেলায় অসমে জাতীয় নাগরিকপঞ্জির বিরোধিতায় প্রতিবাদ কর্মসূচি ও রবিবার কলকাতায় ধিক্কার দিবস পালন করা হবে৷’’ এদিন নাম না করে অমিত শাহের সফর নিয়েও কটাক্ষ করেন৷ বলেন, ‘‘রাজ্যের নেতাদের দৌড় শেষ৷ ফলে, দিল্লি থেকে নেতা ভাড়া করে আনা হচ্ছে৷’’ মনে করা হচ্ছে, শিলচর বিমানবন্দরে তৃণমূল সাংসদের যেভাবে হেনস্তা করা হয়েছিল, তারই পালটা দিতেই তৃণমূলের এই ধিক্কার দিবসের কর্মসূচি৷

[অর্ডার দেওয়া পিজ্জায় পোকা, রেগে আগুন দমদমের মহিলা]

তৃণমূল সূত্রে খবর, শনিবার জেলায় জেলায় প্রতিবাদ কর্মসূচির পাশাপাশি রবিবারের শহর কলকাতার কর্মসূচিতে বাড়তি গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে৷ জানা গিয়েছে, দমদম বিমানবন্দর থেকে শুরু করে অমিত শাহের সভাস্থল পর্যন্ত বিভিন্ন এলাকায় কালো পতাকা হাতে উপস্থিত থাকবেন তৃণমূল কর্মীরা৷ কারণ, রবিবার গান্ধী মূর্তি চত্বরে সভা করবেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি৷ ফলে, তাঁর এই সফরের বিরোধিতা করে পালটা কৌশল তৃণমূল শিবিরের৷

[জোগান নেই অস্ত্রের, স্বাধীনতা দিবসে রেলের নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন]

বাংলা দখলের স্বপ্ন নিয়ে বাংলা তাঁতিয়ে বেড়াচ্ছে গেরুয়া শিবির৷ ২০১৯-এর ক্ষমতা ধতে রাখতে গেলে বিজেপির নজর এখন উত্তর-পূর্ব ভারত৷ ফলে, মোদি বাহিনীর নজরে রয়েছে বাংলা৷ শক্ত ঘাসফুলের জমি চিড়ে পদ্ম ফোটানোর লক্ষ্য উঠেপড়ে লেগেছেন দিল্লির নেতারা৷ বাংলার রাজনীতিতে গেরুয়া রং ছড়াতে মোদি থেকে অমিত শাহদের লাগাতার সফরে চড়তে শুরু করে উত্তেজনার পাড়দ৷

বাংলার বুকে বিজেপিকে রুখতে ইতিমধ্যেই একের পর এক কর্মসূচিতে পথে নেমেছে তৃণমূল৷ নোটবন্দি থেকে শুরু করে জিএসটি এমনকী, অসমে জাতীয় নাগরিকপঞ্জি ইস্যুতে কেন্দ্রের বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে অল-আউট আক্রমণের পথে হাঁটছে ঘাসফুল শিবির৷ এনআরসি ইস্যুতে গত মাসের শেষে কালা দিবস পালন কর্মসূচির পর ফের দলীয় কর্মীদের ধিক্কার দিবস পালনের সিদ্ধান্ত তৃণমূলের৷

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং