২২ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  বৃহস্পতিবার ৯ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

রাশিয়ার স্পুটনিক ফাইভ ভ্যাকসিনের ট্রায়াল এবার কলকাতাতেই, বাছা হল এই হাসপাতালকে

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: November 1, 2020 3:27 pm|    Updated: November 1, 2020 3:35 pm

Trial of Russian corona vaccine Sputnik V wil be done at Sagar Dutta Medical College and Hospital| Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনাযুদ্ধে তৈরি রাশিয়ার ভ্যাকসিন স্পুটনিক ফাইভের (Sputnik V) পরীক্ষামূলক প্রয়োগ নিয়ে ইতিমধ্যেই বেশ কিছু অভিযোগ উঠছে। তবে তারই মধ্যে রাশিয়ার দীর্ঘদিনের বন্ধু ভারতে শুরু হচ্ছে রুশ ভ্যাকসিনের দ্বিতীয় পর্যায়ের ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের প্রস্তুতি। সূত্রের খবর, সাগর দত্ত মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালকে (CMSDH) স্পুটনিক ফাইভের ট্রায়ালের জন্য বেছে নেওয়া হয়েছে। এই হাসপাতালের ১২ জন স্বেচ্ছাসেবকের শরীরে প্রয়োগ করা হতে পারে রাশিয়ার তৈরি করোনা প্রতিষেধক। DGCI, এথিক্স কমিটির অনুমোদন পেলেই শুরু হবে কাজ। নভেম্বরের মধ্যেই ট্রায়াল পর্ব শুরু হওয়ার কথা।

Sputnik V
এখানেই হবে স্পুটনিক ফাইভের দ্বিতীয় দফার ট্রায়াল

 

রুশ-ভারত দ্বিপাক্ষিক সুসম্পর্কের পরিপ্রেক্ষিতে পরীক্ষামূলক প্রয়োগের জন্য রাশিয়ার তৈরি করোনা প্রতিষেধকের (Corona vaccine) ১০০টি ডোজ পাঠানো হয়েছে ভারতে। করোনাযুদ্ধে (Coronavirus) দু’দেশ হাতে হাত ধরে লড়াই করবে, এমনই কথা। রুশ করোনা প্রতিষেধক স্পুটনিক ফাইভের ট্রায়ালে তাদের সঙ্গে হাত মিলিয়েছে ওষুধ প্রস্তুতকারী সংস্থা ডক্টর রেড্ডিস ল্যাব। পরীক্ষার সমস্ত ব্যবস্থা করছে তারাই। দেশজুড়ে মোট ১০০ জনের শরীরে তা প্রয়োগ করা হবে।

[আরও পড়ুন: বিমানের তুলনায় মুদির দোকানেও করোনা সংক্রমণের আশঙ্কা বেশি, দাবি হার্ভার্ডের গবেষণায়]

দেশের মধ্যে রুশ ভ্যাকসিনের দ্বিতীয় পর্যায়ে ট্রায়ালের জন্য এবার বেছে নেওয়া হল বাংলার সরকারি হাসপাতাল ও মেডিক্যাল কলেজ সাগর দত্তকে। এ বিষয়ে দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্ণধার স্নেহেন্দু কোনার জানাচ্ছেন, ”আমরা হাসপাতাল পরিদর্শন করে তার সমস্ত পরিকাঠামো খুঁটিয়ে দেখেছি। সেখানে কোল্ড স্টোরেজের কেমন ব্যবস্থা, ট্রায়ালের উপযুক্ত পরিস্থিতি আছে কি না, সব দেখা হয়েছে। কারণ, ভ্যাকসিন মজুত রাখতে হলে যথোপযুক্ত কোল্ড স্টোরেজের প্রয়োজন। এছাড়া এর আগে এই হাসপাতালের কোনও ট্রায়ালের অভিজ্ঞতা আছে কি না, তার সমস্ত রেকর্ড খতিয়ে দেখেছি। সবই আমাদের মনমতো। রিপোর্ট DGCI’তে পাঠিয়েছি, এখন তাদের অনুমোদনের অপেক্ষা।”

[আরও পড়ুন: রাজ্যে প্রথম দফায় কারা পাবেন করোনার টিকা? স্বাস্থ্য ভবনে জমা পড়ল ২৫ হাজার নাম]

যদিও DGCI’এর পাশাপাশি রাজ্য স্বাস্থ্যদপ্তরেরও অনুমোদন প্রয়োজন। সব ঠিক থাকলে, নভেম্বরের শেষেই সাগর দত্ত মেডিক্যাল কলেজের ১২ জন স্বেচ্ছাসেবকের শরীরে স্পুটনিক ফাইভের দ্বিতীয় পর্যায়ের ট্রায়াল পর্ব শেষ হয়ে যাবে। এর ফলাফলের ভিত্তিতে কলকাতার আরও দুই হাসপাতালেও রুশ ভ্যাকসিনের তৃতীয় ধাপ ট্রায়ালের কথা ভাবা হতে পারে বলে সূত্রের খবর। উঠে আসছে পিয়ারলেস এবং মেডিকা সুপার স্পেশ্যালিটি হাসপাতালের নাম।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে