BREAKING NEWS

১৩ মাঘ  ১৪২৮  বৃহস্পতিবার ২৭ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

প্রথম দফায় ৯০% জায়গায় ভোট হয়েছে নির্বিঘ্নে, কমিশনকে ধন্যবাদ বিজেপি নেতাদের

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: March 27, 2021 4:34 pm|    Updated: March 27, 2021 4:35 pm

WB Election: BJP delegation meet state election commission on first phage election । Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: প্রথম দফার ভোট (West Bengal Assembly Election 2021) শেষের আগেই নির্বাচন কমিশনকে (Election Commission) ধন্যবাদ জানালেন বিজেপি (BJP) নেতারা। আজ শনিবার কৈলাস বিজয়বর্গীয়র (Kailash Vijayvargiya) নেতৃত্বে বিজেপির এক প্রতিনিধি দল রাজ্য নির্বাচন কমিশনের অফিসে যায়। আজকের ভোট এবং তাতে কমিশনের ভূমিকা নিয়ে বিজেপি যে কার্যত খুশি, তা এক প্রকার বুঝিয়ে দিয়েছেন কৈলাসরা। কাঁথিতে শুভেন্দুর (Suvendu Adhikari) ভাই সৌমেন্দু অধিকারীর গাড়ির উপর হামলার ঘটনা-সহ বিক্ষিপ্ত কিছু অশান্তির কথা উল্লেখ করে কৈলাস দাবি করেন, পরের দফায় আরও সতর্ক হলে এই ধরনের ঘটনা আটকানো যাবে।

[আরও পড়ুন: নিজেদের গড় কাঁথিতেই আক্রান্ত সৌমেন্দু অধিকারী, ভাঙা হল গাড়ি, আহত চালক]

একদিকে কমিশনের ভূমিকার প্রশংসা করা, অন্যদিকে রাজ্যের শাসকদলের বিরুদ্ধে তোপ, প্রথম দফার ভোটের বিশ্লেষণে এটাই ছিল বিজেপির অবস্থান। রাজ্য নির্বাচন কমিশনের দপ্তরের সামনে দাঁড়িয়ে সাংবাদিকদের কৈলাস বিজয়বর্গীয় বলেন, “কাঁথিতে সৌমেন্দুর গাড়িতে হামলা চালানো হয়েছে। তাঁর গাড়ির চালককে মারধর করা হয়েছে। গোটা ঘটনার তদন্তের দাবি করছি। আসলে ভোটের আগেই তৃণমূল কংগ্রেস আতঙ্ক ছড়ানোর চেষ্টা করেছে। এমনকী ৪ বিজেপি কর্মীকে খুনও করেছে। আমরা এই খুনের সিবিআই তদন্তেরও দাবি জানাই। তবে প্রথম দফায় যে বিক্ষিপ্ত হিংসা হয়েছে, তা দ্বিতীয় দফার আগে সতর্ক হলে আর হবে না।” শুধু হিংসা আটকানোর আবেদন করাই নয়, কী করে তা রোখা সম্ভব তারও নিদান দিয়েছেন কৈলাস বিজয়বর্গীয়। তাঁর দাবি, যদি দাগি অপরাধীদের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ করা হয় তবে পরের দফায় আরও শান্তিপূর্ণ নির্বাচন করানো সম্ভব।

কৈলাসের দাবি, প্রথম দফায় ৯০ শতাংশ জায়গায় নির্বিঘ্নে ভোট হয়েছে। মানুষও নির্বিঘ্নে ভোট দিয়েছেন। তবে ভোটের আগে কোথাও কোথাও টাকা দিয়ে ভোট কেনার চেষ্টা হয়েছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি। পাশাপাশি তিনি এও দাবি করেন, প্রথম দফার ভোটে রিগিং কম হয়েছে। সার্বিকভাবে কৈলাসের দাবি, ৪ দশক পর বাংলায় নির্বিঘ্নে ভোট হল। কৈলাসের সঙ্গে বিজেপি প্রতিনিধি দলে ছিলেন বারাকপুরের সাংসদ অর্জুন সিংও।

[আরও পড়ুন: বাংলাদেশে গিয়ে রাজ্যের ভোট প্রভাবিত করার চেষ্টা! মোদির বিরুদ্ধে বিধিভঙ্গের অভিযোগ মমতার]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে