BREAKING NEWS

৭ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘বিরোধীদের বিরুদ্ধে ঠান্ডা মাথায় খুনির মতো আচরণ করা হচ্ছে’, ফের বিস্ফোরক রাজ্যপাল

Published by: Sayani Sen |    Posted: July 26, 2020 9:46 am|    Updated: July 26, 2020 9:50 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: রাজ্যের বিরোধী নেতা কিংবা সাংসদদের সঙ্গে ‘দুর্ব্যবহার’ করা হচ্ছে, তা আগেই টুইট করে জানিয়েছিলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড় (Jagdeep Dhankhar)। এবার সরাসরি তাঁদের সঙ্গে ‘ঠান্ডা মাথায় খুনির মতো’ আচরণ করা হচ্ছে বলে বিস্ফোরক অভিযোগ করে বসলেন রাজ্যের সাংবিধানিক প্রধান। আর এই আচরণ যাঁরা করছেন, তাঁদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার পরোক্ষে হুঁশিয়ারি দিলেন তিনি। সবমিলিয়ে আবারও চরমে রাজ্য এবং রাজ্যপাল সংঘাত।

শনিবার ফের একাধিক টুইট করেন রাজ্যপাল। তিনি লেখেন, “পুলিশ দল পরিচালিত সংস্থা। আচরণে IPS অফিসাররা রাজনৈতিকভাবে নিরপেক্ষ হবেন সেটাই দস্তুর। তাঁদের কেউ কেউ মর্জিমাফিক আইনের ব্যবহার করছেন। বিরোধী নেতা বা সাংসদদের বিরুদ্ধে ঠান্ডা মাথায় খুনির মতো আচরণ দেখা যাচ্ছে। রাজ্যপাল হিসাবে এই জঘন্য কাজ বন্ধ করার জন্য যা যা করার করছি। সংশ্লিষ্টরা টের পাবেন। উদ্বেগজনক আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি এবং পুলিশের রাজনৈতিক পক্ষপাতদুষ্ট অবস্থান নিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ডেকে পাঠিয়েছিলাম। বিরোধীদের বেছে বেছে হেনস্তা করা হচ্ছে। রাজ্যপাল ডাকলে রাজভবনে এসে রিপোর্ট করে যাওয়া মুখ্যমন্ত্রীর সাংবিধানিক কর্তব্য। তিনি তা পালন করুন।”

[আরও পড়ুন: ৯৩ বছরে করোনা জয়, হাততালি দিয়ে অভিনন্দন জানিয়ে বৃদ্ধকে ঘরে ফেরালেন প্রতিবেশীরা]

দিনকয়েক আগে বিজেপির তরফে অভিযোগ করা হয়, বারাকপুরের সাংসদ অর্জুন সিং (Arjun Singh) এবং তাঁর ছেলে পবন সিংকে এনকাউন্টার করে হত্যার ছক কষছে রাজ্য পুলিশ। সার্চ ওয়ারেন্ট ছাড়াই পুলিশ তাঁর বাড়িতে হানা দেয় বলেও অভিযোগ করেন বিজেপি সাংসদ। রাজ্যপালের কাছে সে বিষয়টি জানান অর্জুন সিং। তার আগে রানাঘাটের সাংসদ জগন্নাথ সরকার, বালুরঘাটের সাংসদ সুকান্ত মজুমদার, আলিপুরদুয়ারের সাংসদ জন বার্লা-সহ অনেকেই রাজ্যপালের কাছে পুলিশের ভূমিকা নিয়ে অভিযোগ করেন। এছাড়াও CESC’র বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানিয়ে আমফান (Amphan) পরবর্তী পরিস্থিতিতে রাস্তা অবরোধ করায় চাঁপদানির বিধায়ক চূড়ান্ত পুলিশি হেনস্তার শিকার হন বলেও অভিযোগ ওঠে। আব্দুল মান্নান এ বিষয়টি রাজ্যপালকে চিঠি লিখেও জানান। প্রত্যেকের অভিযোগ পেয়েই দিনকয়েক আগে একটি ভিডিও বার্তা টুইট করেছিলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়। সেবারও পুলিশের উপরে ক্ষোভ উগরে দিয়েছিলেন তিনি। কেন পুলিশ ‘দলদাসের’ মতো আচরণ করছে, এ প্রশ্নের মুখ্যমন্ত্রীর কাছ থেকে ব্যাখ্যা তলবও করেছিলেন তিনি। তবে তার কোনও ব্যাখ্যা না পেয়েই আবারও টুইট বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহলের অনেকে।

[আরও পড়ুন: কাজ করছে না কিডনি, এখনও রয়েছে জ্বর-শ্বাসকষ্ট, অত্যন্ত সংকটজনক সোমেন মিত্র]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement