২ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

সংক্রমণ রুখতে নয়া পদক্ষেপ, নবান্ন থেকে সরানো হচ্ছে মুখ্যমন্ত্রীর দপ্তর

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: August 11, 2020 7:54 pm|    Updated: August 11, 2020 7:54 pm

An Images

ধ্রুবজ্যোতি বন্দ্যোপাধ্যায়: নবান্নে করোনা সংক্রমণ রুখতে লিফট ও মূল ফটকের ব্যবহারে কিছু বিধিনিষেধ জারি হল। মঙ্গলবার থেকেই এই নতুন বিধি কার্যকর হয়েছে। ইতিমধ্যেই সংক্রমণ ঠেকাতে সাময়িকভাবে নবান্ন (Nabanna) থেকে মুখ্যমন্ত্রীর দপ্তর উপান্নতে স্থানান্তরিত করার কথা ভাবা হয়েছে। নবান্ন চত্বরেই রয়েছে উপান্ন। চলতি মাসেই সেখানে এই দপ্তর স্থানান্তরের কথা।

সম্প্রতি বেশ কয়েক দফায় নবান্নের বিভিন্ন দপ্তর ও সচিবের ঘর-সহ খোদ মুখ্যমন্ত্রীর দপ্তর যেখানে সেই ১৪ তলাতেই করোনা ভাইরাস (Corona Virus) -এর সংক্রমণ ধরা পড়েছে। সেই জন্য গোটা নবান্ন স্যানিটাইজ করার কাজ চলে সপ্তাহে একদিন। এই পরিস্থিতিতে রাজ্যের প্রশাসনিক কাজে যাতে কোনও বাধা না আসে, তার জন্যই মুখ্যমন্ত্রীর গোটা দপ্তরকে সাময়িকভাবে উপান্নে সরিয়ে নিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে। নবান্নের ভিআইপি করিডোরে দুটি লিফট রয়েছে। দপ্তরে যাতায়াতের সময় তার মধ্যে একটি লিফট ব্যবহার করেন মুখ্যমন্ত্রী। অন্য সময় দুটি লিফট ব্যবহার করেন আমলা, শীর্ষ পুলিশ আধিকারিক এবং সাধারণ কর্মীরা।

[আরও পড়ুন: করোনা আবহেও কমছে না ‘শ্রী’! এবার পুজোয় কেদারনাথে নিয়ে যাবে শ্রীভূমি স্পোর্টিং ক্লাব ]

মঙ্গলবার থেকে ওই দুটি লিফটের মধ্যে একটি শুধুমাত্র মুখ্যমন্ত্রীর জন্য নির্দিষ্ট করা হয়েছে। মুখ্যমন্ত্রী এবং তাঁর ব্যক্তিগত নিরাপত্তা আধিকারিক ছাড়া আর কেউ তা ব্যবহার করতে পারবেন না। অন্য লিফটটি ব্যবহার করবেন মুখ্যসচিব, স্বরাষ্ট্রসচিব, পুলিসের ডিজি এবং মুখ্যমন্ত্রীর দপ্তরের আধিকারিকরা। এছাড়া ভিআইপি করিডোরের উলটোদিকে রয়েছে আরও তিনটি লিফট। সেগুলি নবান্নের কর্মীরা ব্যবহার করেন। এবার থেকে ওই তিনটি লিফটের একটি ব্যবহার করবেন বিভিন্ন দপ্তরের প্রধান সচিব, সচিব ও আধিকারিকরা।

[আরও পড়ুন: বুদ্ধগয়াতে বসবে ১০০ ফুটের সোনালি বুদ্ধ, ইতিহাসে কুমোরটুলির মৃৎশিল্পী মিন্টু পাল]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement