২৯ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  সোমবার ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ‘ক্ষমা চাইব না, লড়াই করব৷’ সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে জামিন পাওয়ার পরক্ষণেই ক্ষোভ উগড়ে দিয়ে একথা ঘোষণা করলেন বিজেপির যুব মোর্চার সদস্য প্রিয়াঙ্কা শর্মা৷ স্পষ্ট ভাষায় জানালেন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের  ফটোশপ করা ছবি শেয়ার করাকে কেন্দ্র করে যে ঘটনার সম্মুখিন হয়েছেন তিনি, তাতে বিন্দুমাত্র দুঃখিত নন৷

[ আরও পড়ুন: দুষ্কৃতী হামলায় ঐক্যবদ্ধ প্রতিবাদ, জোট বেঁধে ধরনায় বিদ্যাসাগর কলেজ ]

সাংবাদিক সম্মেলনে হাওড়া বিজেপি যুব মোর্চার এই নেত্রী বলেন, ‘‘আমার মনে হয় না, আমি অন্যায় কিছু করেছি। সুতরাং ক্ষমা চাওয়ার প্রশ্নই ওঠে না। একটা সাধারণ ছবি পোস্ট করেছিলাম, সেজন্য পাঁচ রাত জেলে ভরে রাখল। ছোটোখাটো এই পোস্টের জন্য এতকিছু করছেন। তৃণমূলের জন্য সব কিছু মাফ। বিজেপি কর্মী বলে এত অত্যাচার করা হচ্ছে’’। এখানেই শেষ নয়, এদিন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কেও একহাত নেন তিনি৷ বলেন, ‘‘মুখ্যমন্ত্রী তো প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি সম্পর্কে এতকিছু বলছেন, তাহলে তো ওনাকেও গ্রেপ্তার করা উচিত’’। পাশাপাশি, পুলিশের বিরুদ্ধেও অভিযোগ করেছেন প্রিয়াঙ্কা শর্মা৷ তিনি অভিযোগ করেন, জামিনের পরও তাঁকে আটকে রাখা হয়। বলা হয় ক্ষমা চাওয়ার পরই রেহাই পাবেন তিনি। তাঁকে ইচ্ছার বিরুদ্ধে দুটি চিঠি লেখানো হয়েছে এবং বন্ডে স্বাক্ষর করানো হয়েছে বলেও দাবি করেন তিনি৷

[ আরও পড়ুন: বঙ্গে মোদি-বিরোধিতায় বিদ্বজ্জনদের সমবেত কণ্ঠে তৃণমূলকে জয়ী করার ডাক ]

প্রসঙ্গত, গত সপ্তাহে মেট গালার ব়্যাম্পে বলিউড অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার মুখের উপর ফটোশপের মাধ্যমে মুখ্যমন্ত্রীর মুখ বসিয়ে, ছবি বিকৃত করে সোশ্যাল সাইটে পোস্ট করেছিলেন হাওড়া বিজেপির যুব মোর্চার নেত্রী বছর ছাব্বিশের প্রিয়াঙ্কা শর্মা৷ তার জেরে হাওড়া আদালতের নির্দেশে তাঁকে ১৪ দিন জেল হেফাজতে থাকতে হয়৷ তাঁর বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৫০০ (মানহানি), ৬৬এ (আপত্তিকর মেসেজ) ও জামিন অযোগ্য ধারা ৬৭ এ-তে মামলা দায়ের করা হয়। মঙ্গলবার এনিয়ে সুপ্রিম কোর্টে শুনানি ছিল৷ সওয়াল করতে গিয়ে প্রিয়াঙ্কার আইনজীবী নীরজ কিষাণ কউল ওই বিকৃত ছবিকে ‘মিম’ বলে ব্যাখ্যা করেন৷ জানান, ‘মিম পোস্ট করার জন্য যদি ক্ষমা চাইতে হয়, তাহলে প্রত্যেক নাগরিককে প্রত্যেকের কাছে ক্ষমা চাইতে হয়৷ ছবি বিকৃত করা হয়নি৷’ সওয়াল-জবাবের পর বিচারপতিরা শতর্সাপেক্ষে  প্রিয়াঙ্কা শর্মার জামিন মঞ্জুর করেন৷ তবে মুখ্যমন্ত্রীর ছবি বিকৃত করার জন্য তাঁকে ক্ষমা চাওয়ার নির্দেশ দেন শীর্ষ আদালতের বিচারপতিরা৷

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং