BREAKING NEWS

৭ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

সরকারি হাসপাতালে চাকরির টোপ দিয়ে চার লাখ নিয়ে উধাও ‘রুমমেট’!

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: April 29, 2019 12:38 pm|    Updated: April 29, 2019 12:38 pm

An Images

অর্ণব আইচ: সরকারি হাসপাতালে চাকরির টোপ দিয়ে এক তরুণের প্রায় চার লাখ টাকা নিয়ে পালাল মেসের ‘রুমমেট’। এসএসকেএম হাসপাতালে চিকিৎসা করাতে গিয়ে ওই তরুণ হঠাৎই দেখেন, সেই ‘রুমমেট’ পাততাড়ি গুটিয়ে মেস থেকে পালালেও নতুন করে প্রতারণার ছক কষছে। কিন্তু হাতেনাতে ধরতে গেলে যে তরুণের হাত ছাড়িয়েও পালিয়ে যেতে পারে সে। তাই এক ছুটে তিনি পৌঁছে যান এসএসকেএমের পুলিশ আউটপোস্টে। ঘটনাটি জানান পুলিশ আধিকারিকদের। পুলিশের সাহায্য নিয়েই অপূর্বকান্ত মজুমদার নামে ওই ব্যক্তিকে তরুণ ধরে ফেলে।

পুলিশ জানিয়েছে, উত্তর কলকাতার আমহার্স্ট স্ট্রিটের ছকু খানসামা লেনের একটি মেসে থাকেন ওই তরুণ। মাস সাতেক আগে জলপাইগুড়ির বাসিন্দা অপূর্বকান্ত মজুমদার ওই মেসে ওঠে। ‘রুমমেট’ হওয়ার সুবাদে ওই ব্যক্তি তরুণকে বলে, তার সঙ্গে এনআরএস ও মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের সুপারের পরিচয় আছে। সে হাসপাতালে ‘ফ্যাকাল্টি ম্যানেজার’-এর চাকরির ব্যবস্থা করতে পারে। তার জন্য ১ হাজার ৩৫০ টাকা দিয়ে একটি ফর্ম ভরতে বলা হয়। তার পর কয়েক দফায় ওই তরুণের কাছ থেকে সে ৩ লাখ ৯৯ হাজার ৭২২ টাকা নেয়। চাকরির টোপ দিয়ে তাঁকে কয়েকবার স্বাস্থ্যভবনেও যেতে বলে সে। স্বাস্থ্য পরীক্ষার নাম করে মেডিক্যাল কলেজেও পাঠায়। কিন্তু চাকরি আর পাননি তিনি। সন্দেহ হওয়ায় তিনি প্রশ্ন করেন। ওই ব্যক্তি তাঁকে কিছু নথিপত্র নিয়ে ফের স্বাস্থ্যভবনে যেতে বলে। তরুণ মেসে ফিরেই দেখেন, তল্পিতল্পা গুটিয়ে উধাও হয়ে গিয়েছে সে। তাকে খুঁজেও পাওয়া যায়নি।

সম্প্রতি তরুণ এসএসকেএম হাসপাতালে চিকিৎসা করাতে যান। হঠাৎই দেখেন, এমারজেন্সির কাছে এক ব্যক্তির সঙ্গে কথা বলছে অপূর্বকান্ত। তিনি তাকে না ডেকে সোজা পুলিশের কাছে যান। এর পরই গ্রেপ্তার হয় সে। ওই ব্যক্তি অন্য কাউকে প্রতারণা করছে কি না, তা জানার চেষ্টা হচ্ছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement