BREAKING NEWS

১৩ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  মঙ্গলবার ৩০ নভেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

প্রতিমা নিরঞ্জনে গিয়ে গঙ্গায় তলিয়ে তিন যুবকের মৃত্যু

Published by: Kumaresh Halder |    Posted: October 20, 2018 3:46 pm|    Updated: October 20, 2018 6:13 pm

Youth drowns in Ganga during idol immersion

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কলকাতা পুলিশের কড়া নজরদারিতে শহরে চলছে গঙ্গাঘাটে দুর্গা প্রতিমা নিরঞ্জন৷ বিসর্জনের দিনগুলিতে যাতে কোনও অপ্রীতিকর পরিস্থিতি তৈরি না হয়, সেবিষয়ে কলকাতা পুলিশের তরফে একগুচ্ছ বিধিনিষেধ জারি হয়েছে৷ একই সঙ্গে প্রতিমা বিসর্জন উপলক্ষে গোটা রাজ্যজুড়ে বিশেষ নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হয়েছে৷

[বাইকে স্টান্ট দেখাতে গিয়ে দুর্ঘটনা, মৃত পড়ুয়া]

তবে, কড়া নজরদারির মধ্যে বিসর্জন পর্ব চললেও শুক্রবারও এড়ানো গেল না দুর্ঘটনা৷ প্রতিমা নিরঞ্জন করতে গিয়ে গঙ্গায় তলিয়ে গেলেন এক যুবক। হাওড়ার সীতানাথ বোস লেনের বাসিন্দা সৌরভ মিত্র নামে ওই যুবক ছাতুবাবুর ঘাটে বিসর্জন দিতে গিয়েছিলেন। সেখানেই মোট চারজন জলে তলিয়ে যান। পুরসভার কর্মীরা তিনজনকে জীবিত অবস্থায় উদ্ধার করলেও সৌরভের হদিশ মেলেনি। ডুবুরি নামিয়ে তল্লাশি চলছে। অন্যদিকে, বিসর্জন দিতে গিয়ে ভাগীরথী নদীতে তলিয়ে গেল দুই কলেজ পড়ুয়া। পরে প্রবীর দাস(২২) নামের এক যুবকের মৃতদেহ উদ্ধার করা গেলেও রাকেশ ঘোষ নামে প্রথম বর্ষের পড়ুয়ার এখনও কোনও সন্ধান পাওয়া যায়নি৷ চলছে তল্লাশি৷ শনিবার দুর্ঘটনাটি ঘটেছে নাকাশিপাড়া থানার পাটুলি ঘাটে৷

[দশমীর রাতে দুষ্কৃতীদের হাতে আক্রান্ত তৃণমূল কাউন্সিলর]

 

প্রতিবছর প্রথা মেনে দশমীর দিনই বাড়ির প্রতিমা বিসর্জন দেওয়া হয়৷ এবারও তার ব্যতিক্রম ঘটেনি৷ শুক্রবারের মতো আজও, বেশ কিছু প্রতিমা বিসর্জন দেওয়ার কাজ চলছে বিভিন্ন ঘাটে৷ আজ, বেশকিছু প্রতিমার বিসর্জন দেওয়া হলেও বেশিরভাগ প্রতিমা বিসর্জন হবে রবিবার অথবা সোমবার৷ কলকাতা পুলিশ এবারও বিসর্জনের সময় ডিজে বাজানোয় উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করছে৷ এমনকী বাজানো যাবে না তারস্বরে মাইকও৷ বিসর্জন উপলক্ষে কোনও অপ্রীতিকর পরিস্থিতি রুখতে রাজ্য পুলিশের তরফে ইতিমধ্যেই কন্ট্রোল রুম চালু করা হয়েছে৷ যেকোনও সমস্যা হলে প্রয়োজনে ১০০/১০৯৩ (টোল ফ্রি)/২২১৪৫৪৮৬ নম্বরে যোগাযোগ করতেও বলা হয়েছে৷ 

[অধীরের ছেড়ে যাওয়া ঘরে বসলেন না সোমেন!]

কলকাতা পুলিশ সূত্রে খবর, বিসর্জনের সময় গঙ্গার ঘাটগুলিতে বিশেষ নজরদারি রাখা হয়েছে। বিশেষ করে ২৪টি ঘাটে কড়া নজরদারি চালানো হচ্ছে৷ নজরদারি করছে রিভার ট্রাফিক পুলিশও৷ ঘাটে রয়েছে ক্লোজড সার্কিট টিভি৷ তৈরি হয়েছে ওয়াচ টাওয়ার৷ এছাড়াও ঘাটগুলিতে রয়েছে লঞ্চের ব্যবস্থা৷ প্রস্তুত রয়েছে ডুবুরি ও বিপর্যয় মোকাবিলা দল৷

ছবি: অরিজিৎ সাহা

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে