২৭ কার্তিক  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ১৪ নভেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

২৭ কার্তিক  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ১৪ নভেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মেয়ের গলা নকল করে যুবককে প্রতারণা। ১২ লক্ষ টাকা জালিয়াতির অভিযোগে এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। রনি দাস নামে ধৃত যুবকের বিরুদ্ধে অভিযোগ মারাত্মক। পাত্রী সেজে মেয়ের গলা নকল করে এক যুবককে প্রতারণা করে সে। দীপঙ্কর দে নামে ব্যান্ডেলের বাসিন্দা ওই প্রতারিত যুবক পছন্দের পাত্রী খুঁজে পেতে ম্যাট্রিমনি সাইটে নাম নথিভুক্ত করিয়েছিলেন। মেয়ে সেজে তাঁর কাছ থেকেই ১২ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেয় রনি। ঠাকুরপুকুর থেকে শেষমেশ গ্রেপ্তার করা হয়েছে তাকে।

[আরও পড়ুন: প্রতারণার মামলায় গ্রেপ্তার জিয়াগঞ্জ হত্যাকাণ্ডে অভিযুক্ত সৌভিক]

পুলিশে জানিয়েছে, বছর দুয়েক আগে একটি ম্যাট্রিমনি সাইটে নাম নথিভুক্ত করেন প্রতারিত দীপঙ্কর দে। তানিয়া রায় নামে এক যুবতীর সঙ্গে তাঁর পরিচয় হয় সাইটের মাধ্যমে। যুবতীর ছবি দেখে দীপঙ্করের পছন্দ হওয়ায় এগোতে থাকে বিয়ের কথাবর্তা। একটি বেসরকারি সংস্থায় কাজ করেন দীপঙ্কর। উলটোদিকে, তানিয়া রায় তাঁকে জানায়, সে পার্শ্বশিক্ষকের চাকরি করেন। কিন্তু তাঁর পারিবারিক অবস্থা ভাল নয়। তারপর কখনও মায়ের শরীর খারাপ আবার কখনও মাসি অসুস্থ বলে দফায় দফায় ১২ লক্ষ টাকা দীপঙ্করের কাছ থেকে হাতিয়ে নেয় বলে অভিযোগ। পেটিএম মারফত সেই টাকা পাঠিয়েছিলেন দীপঙ্কর দে।

কিন্তু যতদিন যায় দীপঙ্করের সন্দেহ বাড়ে। তানিয়ার কাছে টাকা ফেরত চান দীপঙ্কর। আর তাতেই গত দুমাস ধরে সমস্ত যোগাযোগ বন্ধ করে দেয় যুবতী। তারপর গত জুন মাসে চুঁচুড়া থানায় অভিযোগ দায়ের করেন দীপঙ্কর দে। তাঁর পেটিএম অ্যাকাউন্ট, ব্যাংক ডিটেলস খতিয়ে দেখে এবং মোবাইল লোকেশন ট্র্যাক করে অভিযুক্তের সন্ধান পায় পুলিশ। ঠাকুরপুকুর থেকে রনি দাসকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। জেরায় সে জানায়, দীপঙ্কর নয়, এরকম আরও ৮-১০ জনকে একইরকমভাবে মেয়ে সেজে প্রতারণা করেছে সে। ম্যাট্রিমনি সাইট মেয়েদের নামে ভুয়ো অ্যাকাউন্ট খুলত রনি। তারপর ফেসবুক থেকে সুন্দরী মহিলাদের ছবি নিয়ে সেগুলি প্রোফাইলে ব্যবহার করত। মেয়েদের গলা নকল করে ফোনে কথা বলে জালে ফাঁসাত সে। তারপর বিভিন্ন অছিলায় টাকা হাতিয়ে নিত।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং