BREAKING NEWS

৪ মাঘ  ১৪২৮  মঙ্গলবার ১৮ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

বিছানায় যাওয়ার আগে এই ভুল কিন্তু ভুলেও নয়

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: December 8, 2016 9:18 pm|    Updated: December 9, 2016 4:59 pm

Don't do this before going to bed

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দিনের শেষে শান্তির ঘুম সকলেই চান। চান সঙ্গীর সঙ্গে খানিকটা ভাল সময় কাটাতে। কিন্তু নিজের অজান্তেই এমন কিছু করে ফেলে মানুষ, যার ফলে এই সময় আর ভাল থাকে না। বিশেষত বিছানায় যাওয়ার আগে এই ভুল করে ফেলেন পুরুষরা।

তা কী করেন পুরুষরা? সাধারণ দেখা যায় ঘুমোতে যাওয়ার আগেও পুরুষরা দিনের কোনও নেগেটিভ ঘটনা মাথা থেকে ঝেড়ে ফেলতে পারেন না। সাধারণভাবে তার প্রকাশ না থাকলেও মনে মনে চলে দ্বন্দ্ব। আর তার ফলে বাসা বাঁধে রাগ। এই রাগ নিয়ে বিছানায় যাওয়া মানেই সর্বনাশ।

কী কী হতে পারে?

সম্পর্কে ভাঙন

দিনের শেষে যদি রাগ নিয়ে ঘুমোতে যান কেউ তবে সম্পর্কে মারাত্মক প্রভাব পড়তে পারে। কেননা যে বিষয় নিয়ে ভিতরে ভিতরে রাগ তা ঘুণাক্ষরেও জানছেন না সঙ্গী। ফলে তাঁর কাছে অস্বাভাবিক ব্যবহার অন্যরকম অর্থ নিয়ে আসতে পারে। এর ফলে ফাটল দেখা দিতে পারে সম্পর্কে। এছাড়া ক্রমাগত রাগ জমতে থাকলে নিজের মনে হতাশা দেখা দিতে পারে, যা সম্পর্কে ভাঙনের কারণ।

যৌনজীবনে সমস্যা

সম্পর্কের পাশাপাশি যৌনজীবনেও মারাত্মক প্রভাব পড়তে পারে এর ফলে।  রাগ নিয়ে শুতে গেলে কিংবা শোওয়ার পর কোনও কারণে রাগারাগি হলে স্বাভাবিক যৌনতায় বাধা পড়ে। অনেকক্ষেত্রেই একজন অন্যের কাছে ততটা স্বাভাবিক হতে পারেন না, যতটা হওয়া উচিত ছিল। স্বাভাবিক যৌনতার পরিসরটিই নষ্ট হয়ে যায় এক্ষেত্রে। শুধু  একদিনের জন্য নয়, অনেকক্ষেত্রে এই সমস্যা অনেকদিন চললে বিবাহিত জীবনে বড় ক্ষতিও হতে পারে।

কর্মক্ষেত্রে সমস্যা

রাগ নিয়ে ঘুমোতে যাওয়ার ফলে অনেকসময়ই ভাল ঘুম হয় না। তার ফলে শারীরিক যা ক্ষতি হওয়ার তা তো হয়ই। কিন্তু যে হতাশা জন্মায় তা খারাপ প্রভাব ফেলতে পারে কর্মজীবনেও। মেজাজ খিটখিটে থাকার ফলে সহকর্মীদের সঙ্গেও খারাপ ব্যবহার করে ফেলতে পারেন। ফলত এ বিষয়ে আগেভাবে সতর্ক হওয়া বাঞ্চনীয়।

সাম্প্রতিক এক সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে, রাগ নিয়ে ঘুমোতে যাওয়ার প্রবণতা পুরুষদের ক্ষেত্রেই বেশি। তাই সম্পর্ক থেকে শরীর বাঁচাতে এই অভ্যাস যত শিগগিরি ছাড়া যায় ততই ভাল।

 

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে