২৯ শ্রাবণ  ১৪২৭  শনিবার ১৫ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

রাতে ঘুম নেই? এই তিনটি খাবার খেয়ে দেখুন

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: July 10, 2018 4:11 pm|    Updated: July 10, 2018 4:11 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ঘুম বোধহয় সব থেকে স্বাস্থ্যকর বিনোদন, তাই না? আর সেই ঘুমেরই যদি ব্যাঘাত ঘটে তখন কার মাথা ঠিক তাকে বলুন তো। অফিসে কাজের প্রেশার, বাড়িতে দাম্পত্য কলহ, শেয়ার সূচক নেমে যাওয়ায় লাভের ঘর প্রায় শূন্যতে এসে ঠেকেছে। এমতাবস্থায় ব্যবসায়িক পার্টনারও বখরা বুঝতে উঠেপড়ে লেগেছে। রাতের ঘুম কেড়েছে চিন্তা। চিন্তা না মিটলে ঘুম কি আর এমনি এমনি আসবে। কিন্তু তাই বলে তো আর দিন কাটবে না, এমনটা হতে পারে না। তাই সমস্যা সঙ্গে রেখেও ঘুমকে চোখে আনতেই হবে। কীভাবে আনবেন সেই প্রিয় ঘুম, চলুন একবার দেখে নিই।

[ডায়াবেটিস থেকে দূরে থাকতে চান? বাড়িতেই রয়েছে সহজ উপায়]

শরীরকে সুস্থ সতেজ রাখতে ঘুমের কোনও বিকল্প নেই। সেই ঘুমে যদি টান পড়ে তাহলে সুস্থতা বেশিদিন টিকবে না। সামান্য কারণেই বাড়াবাড়ি অসুস্থতা গ্রাস করতে পারে। যদি দেখেন দিনের পর দিন চোখে ঘুম নেই তাহলে দিনে অন্তত দু’টো পাকা কলা খান। হ্যাঁ এই কলাতেই রয়েছে পটাশিয়াম ম্যাগনেশিয়ামের মতো উপাদান। যা শরীরের মাংসপেশীর অস্থিরতা কাটাতে সহায়তা  করে। এই অস্থিরতা কাটলেই ক্লান্তির বেশে ঘুম নেবে আসবে চোখে। কলাতে থাকা প্রাকৃতিক শর্করা রক্তের গ্লুকোজের পরিমাণকে ক্রমশ কমিয়ে দেয়। তাই সারাদিনের হেকটিক শিডিউলের পর ঘুমোতে যাওয়ার আগে অবশ্যই একটা কলা খান। এতে ঘুমের পরিমাণ তরতরিয়ে বাড়বে।

দুধে প্রচুর পরিমাণে অ্যামিনো অ্যাসিড থাকে। তাই নিয়মিত দুধ পান করলে শরীরের সেরোটোনিন হরমোনের স্বাভাবিক ক্ষরণ হয়। আর এই সেরোটোনিন আপনার শরীরকে ঘুমের উপযোগী করে তোলে।

বাদাম খেতে ভালবাসলে তো কথাই নেই। বাদামে রয়েছে মেলাটোনিন হরমোন। যা ঘুমকে তরান্বিত করে। বাদামে প্রয়োজনীয় ফ্যাটও অ্যামিনো অ্যাসিড রয়েছে। যা শরীরের জন্য বিশেষ জরুরি। তাই ঘুমানোর আগে একমুঠো বাদাম খেলে নিদ্রাদেবী প্রসন্নই হবেন। পোড়া চোখে নামবে ঘুম।

[মাইগ্রেন থেকে মুক্তি চান? এই ঘরোয়া পদ্ধতি পরখ করে দেখতে পারেন]

তবে ঘুমকে ডাকার আনন্দে যেমন এগুলো খাবেন। তেমনই রাতে ঘুমোতে যাওয়ার আগে মনের ভুলেও নোনতা খাবারের ধারেকাছে যাবেন না। তা ঝালঝাল কারিই হোক বা চাইনিজ ক্যুইজিন। খেয়েছেন কি ঘুম গেল সেদিনের মতো। হ্যাঁ বেশি লবনাক্ত খাবার শরীরকে ডিহাইড্রেট করে দেয়। বারবার জল পানের প্রয়োজন হয়ে পড়ে। বিছানায় যাওয়ার পর যদি ঘণ্টায় ঘণ্টায় জলের বোতলের দিকে হাত বাড়ান তবে কখন ঘুমোবেন?

একইভাবে আইসক্রিমের প্রতি দারুণ অনুরাগ? তবে ঘুমোনোর আগে কিন্তু স্বাদ বদলের জন্য এই প্রিয় খাবারটিকে ভুলেই থাকুন। আইসক্রিমে থাকা সুগার ও ফ্যাট মস্তিষ্কের সক্রিয়তাকে বাড়িয়ে দেয়। স্বাভাবিক ভাবে ঘুম যায় হারিয়ে। সেরকমই ডার্ক চকোলেটও এড়িয়ে চলা ভাল। ডার্ক চকোলেটে থাকা ক্যাফেইন এনার্জিকে বাড়াতে গিয়ে ঘুমকে ঘুম পাড়িয়ে দেয়। সেকারণেই ঘুমের আগে ডার্ক চকোলেট ও আইসক্রিমকে দূরেই রাখুন।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement