২৬ আশ্বিন  ১৪২৬  সোমবার ১৪ অক্টোবর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

২৬ আশ্বিন  ১৪২৬  সোমবার ১৪ অক্টোবর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: শাড়ি-গয়নার বাইরেও বিভিন্নরকম অ্যাকসেসারিজ নিয়ে নারীদের শখ থাকে। সে রোদচশমা, ঘড়ি হোক কিংবা বেল্ট। শপিং হোক কিংবা পথচলতি দোকান, বাজারসেরা জিনিস নিয়ে বাড়ি ফেরার মজাই আলাদা। তার উপর আবার দরদামের ফিরিস্তি থাকে। কোনওটা আবার ‘একদর’। কিন্তু তাই বলে কোটি টাকার হ্যান্ডব্যাগ? মণিমুক্ত খচিত হোক আর যাই হোক। দাম শুনেই তো চক্ষু চড়কগাছ হওয়ার জোগার! সম্প্রতি, মুকেশ আম্বানির স্ত্রী নীতা আম্বানির একটি ব্যাগের ছবি ভাইরাল হয়েছে। আর কারণ, সেই ব্যাগের দাম।

[আরও পড়ুন: কান বেঁধানোর পিছনে রয়েছে বিজ্ঞানসম্মত কারণ!]

ছবিতে দেখতে তেমন আহামরি মনে না হলেও ব্যাগের দামটাই যথেষ্ট! দাম শুনলে অবাক হবেন আপনিও। ২৪০টি হিরে এবং খাঁটি সোনা খচিত সেই হ্যান্ডব্যাগ এখন সোশ্যাল মিডিয়ার মূল আকর্ষণ। মুকেশ আম্বানি এশিয়ার সবচেয়ে ধনী ব্যক্তি। একইসঙ্গে বিশ্বের সবথেকে ধনী ব্যক্তিদের তালিকায় ১৩তম স্থানে রয়েছেন তিনি। তা, তাঁর স্ত্রী দামি জিনিস ব্যবহার করবেন সেটাই তো স্বাভাবিক। দিন কয়েক আগেই ভারত-পাকিস্তানের হাইভোল্টেজ ম্যাচ উপভোগ করতে লন্ডনে গিয়েছিলেন নীতা। সেখানেই করিশ্মা এবং করিনা কাপুরের সঙ্গে দেখা হয় তাঁর। এই মার্কিন সফরেই নীতা জন্তুর চামড়া দিয়ে তৈরি সেই ব্যাগ ব্যবহার করেছেন, যা আপাতত খবরের শিরোনামে। যথারীতি সেলেবদের সেই মুহূর্তও ক্যামেরাবন্দি হয়। করিশ্মা খোদ নিজের ইনস্টাগ্রামে শেয়ার করেন সেই ছবি। যেখানে নীতা এবং করিশ্মার সঙ্গে দেখা গিয়েছে করিনাকেও। তবে, এই ছবিতে সবথেকে বেশি নজর কাড়ে নীতার ব্যাগ।

[আরও পড়ুন: টাইট জিনস নয়, মেকআপ হোক ন্যাচরাল- গরমে সাজগোজের টিপস দিলেন বিশেষজ্ঞরা]

যেই ছবিতে দেখা গিয়েছে সাদা পোশাক পরিহিতা নীতার হাতে একটি রূপোলি রঙের হ্যান্ড ব্যাগ। যার দাম ভারতীয় মুদ্রায় ২ কোটিরও উপরে- ২.৬ কোটি টাকা। কুমিরের চামড়া দিয়ে তৈরি এই ব্যাগ হিরে এবং সোনা দিয়ে ডিজাইন করা। যা হার্মিজ হিমালয় বার্কিন ব্যাগ নামেই পরিচিত। বিশ্বের হ্যান্ড ব্যাগ প্রস্তুতকারক কোম্পানিগুলির মধ্যে যার নাম শীর্ষে। হলিউডের জনপ্রিয় অভিনেতা তথা সঙ্গীতশিল্পী জেন বার্কিনির নামেই এই ব্র্যান্ডের নামকরণ হয়েছে।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং