২৭ আশ্বিন  ১৪২৬  মঙ্গলবার ১৫ অক্টোবর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

শাম্মী হুদা: সকাল থেকেই ধুনোর ধোঁয়া, নতুন শাড়ির খসখস শব্দে মনটা উদাস। দশটা পাঁচটার ডিউটি সামলে তেমনভাবে আর সরস্বতী পুজোর আনন্দে মেতে ওঠা হয় না। তবে বছর ঘুরলেও বসন্তপঞ্চমীতে এখনও প্রেম আসে। আসলে শীতবুড়োকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে বসন্তের হাওয়া তো উঁকি দিয়ে যায় আজকের দিনেই। মনে বসন্তের ছোঁয়া, চোখে বাসন্তী শাড়ি, প্রেম তো আসবেই।

কো-এড স্কুল। টিফিনের সময় যারা একসঙ্গে খেলাধুলো করেছি, তাদেরকেই যখন সরস্বতী ঠাকুরের সামনে আলপনা আঁকতে দেখি, তখন মনটা উড়ুউড়ু হয়ে যায়। আঠারোর অবাধ্য মন যেন পদেপদেই নিয়ম ভাঙার খেলায় মাতে। শুরুর দিনটা নিজের ক্লাসেই হাতেখড়ি দেয় প্রেম। হঠাৎ করেই ক্লাস টেনের হিংসুটে মেয়েটাকে ভাল লাগতে শুরু করে। একমাসের ব্যবধানেই মাধ্যমিক। ছাড়তে হবে স্কুল, পুরোনো বন্ধুদের অনেককেই। অঞ্জলির পর পঞ্চপ্রদীপের শিখা ছোঁয়া নিতে গিয়েই মনটা হুহু করে ওঠে। একজোড়া রঙিন চুড়ির হাতের পেলব ছোঁয়ায় বুক কেঁপে যায়। প্রসাদ নিয়ে বাড়ির দিকে পা বাড়াতেই পিছনে পড়ে থাকে স্কুল। রঙিন চুড়ি যেন হাতছানি দিয়ে ডাকে। বইয়ের ভাঁজে পুজোর ফুলের সঙ্গে  আটকে রাখি চুমকির টুকরো। পুজোর দিনে হলুদ শাড়ি থেকে পায়ের সামনেই খসে পড়েছিল। মনে পড়তেই বইয়ের কালো অক্ষরগুলো ডানা মেলে উড়তে থাকে। সেই শুরু প্রেম আসার।

[অনভ্যস্ত কুচি সামলে শুভদৃষ্টির লগন, এই তো বাঙালির সরস্বতী পুজো]

রেজাল্ট বেরলে হলুদ শাড়িকে খোঁজ খোঁজ। স্কুলড্রেসের ভিড়ে সে যেন কোথায় হারিয়ে গিয়েছে। নতুন স্কুলে সায়েন্স বিল্ডিং ছাড়িয়ে সরস্বতী পুজোর দিনে আর্টস বিল্ডিংয়ের দিকেই বন্ধুরা দৌড়য়। পায়ে পায়ে এগিয়ে চলি। রঙিন শাড়ির জ্যান্ত সরস্বতী তখন মুঠোমুঠো ফুল এগিয়ে দিচ্ছে। ধুনোর ধোঁয়ায় চোখে আঁধার। মুখটা ঝাপসাই থেকে যায়। ফের আসে পঞ্চপ্রদীপ। মনের গহনে ফেলে আসা দিনটা উঁকি দিয়ে যায়। সেই রঙিন চুড়ির হাতটাই যেন পিছু ডাকে। নতুন করে বসন্ত ডাক দিয়ে যায়। কলেজে পা দিয়েই মনটা প্রজাপতি। ভরতির হ্যাপা, সোশ্যাল, ব়্যাগিং সামলে আবার সরস্বতী পুজো চলে এসেছে। নতুন পরিবেশে খাপ খাইয়ে নিতে গিয়ে ভুলেই গিয়েছিলাম সরস্বতী পুজো দরজায়। আবার রঙিনচুড়ির টান। এবার শুধু দেখা নয়, মন চায় রিনরিনে চুড়ির শব্দে হারিয়ে যাই। পায়ে পায়ে প্রেম ততদিনে সাইকেল চিনিয়েছে। হলুদ শাড়ির আঁচল, কেমিস্ট্রির ল্যাব, সবগুলিয়ে ১৪ ফেব্রুয়ারির অপেক্ষা করে। গোলাপ যে এবার দিতেই হয়। যার শুরুটা মা সরস্বতীর সামনেই হয়ে গিয়েছিল।

[রাজ্য জুড়ে বাণী বন্দনা, কেমন কাটছে তারকাদের সরস্বতী পুজো?]

অফিস চত্বরে সিগারেটের ধোঁয়ার রিঙের মাঝে এখনও হলুদ শাড়িতেই চোখ পিছলোয়। প্রেম আসে ঘুরে ফিরে। কলেজ জীবনের সরস্বতী পুজো স্মৃতি হয়েছে। টিভির পর্দা, সোশ্যাল সাইট, মেট্রোয় রঙীন চুড়ির রিনরিনে হাতছানি। স্কার্ট ছেড়ে প্রথম শাড়ির মানে সরস্বতীপুজো। জিন্স পাঞ্জাবীর কম্বিনেশনে নতুন রং মানেই সরস্বতীপুজো। বসন্তপঞ্চমীতে সেই স্মৃতি উসকে দিয়ে ফের প্রেম আসে।

ছবি সৌজন্য: বংফিড

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং