BREAKING NEWS

২ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

দোলে রং মাখুন আনন্দে, তবে এই বিষয়গুলো অবশ্যই মাথায় রাখবেন

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: March 18, 2019 5:20 pm|    Updated: March 18, 2019 5:20 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দোল খেলার আনন্দ উপভোগ করতে কে না চায়, কিন্তু দোলের রং আমাদের ত্বক ও চুলের ক্ষতি করেই। ওই ধরনের রংয়ে ত্বক রুক্ষ্ম হয়ে যায়, আর শরীরে কোনও ওপেন পোরস থাকলে পোরসের ভিতরে রং বসেও  যায়। এমনকি মাঝেমধ্যে চুল ড্রাই ও ড্যামেজ হয়ে ডিসকালারও হয়ে যায়। অনেক ক্ষেত্রে আবার সেনসিটিভ স্কিন হলে র‌্যাশ বেরিয়ে যায়। তাই দোল খেলার আগে ও পরে দু’টো ক্ষেত্রেই কিছু বিশেষ সুরক্ষা নেওয়া জরুরি।

তবে দোল আনন্দের উৎসব। রঙের উৎসব। তাই চুল বা স্কিনের ক্ষতির ভয়ে  আনন্দে ভাটা ফেলবেন না। বরং তার জায়গায় চেষ্টা করুন কেমিক্যাল রং এড়িয়ে চলতে। কারণ বাজারচলতি রংয়ে মারকারি, লেড, মেটালিক অক্সাইড জাতীয় ক্ষতিকারক কেমিক্যাল থাকে। আবিরেও অনেক ক্ষতিকারক উপাদান থাকে ফলে ত্বকে অ্যালার্জি, ইরিটেশন হয়।

তাই এখন বাজারে যে ভেষজ রং বা আবির পাওয়া যাচ্ছে সেগুলো কেনার চেষ্টা করুন। কারণ অরগ্যানিক কালার ত্বকের জন্য খুব ভাল। তবে যদি কেমিক্যাল রং ব্যবহার করেন, সেক্ষেত্রে দোল খেলার আগে কয়েকটি নিয়ম মেনে চলুন। যেমন –

[উৎসবের মরশুমে নিজেকে রাঙিয়ে তুলুন এই জিভে জল আনা খাবারে]

১. পুরো শরীর ঢাকবে এমন জামাকাপড় পরুন। ফুল স্লিভ কুর্তা, গলাবন্ধ জামাকাপড়, জিন্‌স ইত্যাদি।

২. রং খেলার আগে চুলে এবং ত্বকে ভাল করে নারকেল তেল বা অলিভ অয়েল মেখে নেবেন। কারণ, নারকেল তেল ও অলিভ অয়েল ঘন হয়।  ফলে রং সরাসরি ত্বকে লাগে না।

৩. চুল টাইট করে বেঁধে ফেলবেন। তারপর মাথাটা কোনও সুতির কাপড় বা দোপাট্টায় ঢেকে নিন।

৪. রং খেলার আগে ত্বকে ঘন কোনও ময়েশ্চারাইজিং ক্রিম মেখে নিতে পারেন। ‘এসপিএফ ৩০’ আছে এমন সানস্ক্রিন মাখলে ভাল। এছাড়া, ঠোঁটে পুরু করে লিপস্টিক বা বাম লাগিয়ে নিতে পারেন।

৫. নখে একটু ঘন করে নেলপালিশ পরে রাখুন এতে রং বসবে না।

৬. দোলের আগেই কোনও ফেশিয়াল বা ব্লিচ না করাই ভাল। কারণ এতে পোরস ওপেন হয়ে যায়। আর ওপেন পোরস থাকলে রং বেশি বসে যায়।

৭. খেয়াল রাখবেন, রং খেলার সময় ত্বক যেন শুকিয়ে না যায়। সবসময় যেন ভেজা ভাব থাকে। দরকার হলে ভিজে টিস্যু ক্যারি করুন।

৮. রং তুলতে সাবান ব্যবহার করবেন না। বরং ক্লিনজিং মিল্ক বা টক দই ব্যবহার করুন। নারকেল তেল দিয়েও রং ভাল উঠবে।

৯. মুখের বা হাত-পায়ে রং জোর করে ঘষে তুলবেন না। বেসন মুখে লাগিয়ে রাখতে পারেন। তারপর হালকা হাতে ঘষে ঘষে তুলে ফেলুন।

১০. পারলে স্নানের পর অলিভ অয়েল বা বেবি অয়েল মাসাজ করে ময়েশ্চারাইজার মেখে নিন।

১১. আর চোখে কেমিক্যাল কালার চলে গেলে অবশ্যই জালের ঝাপটা দিন বা গোলাপজলের ঝাপটা দিন।

আর যদি কোনও কারণে উপরের পরামর্শগুলিতে কোনও কাজ না হয় তবে ডাক্তারের পরামর্শ নিন।

[ব্রকলি আর কড়াইশুঁটির এত গুণ আগে জানতেন?]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement