২ শ্রাবণ  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০১৯ 

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সোশ্যাল মিডিয়ায় ছবি পোস্ট করলে বন্ধুমহলের নজর আটকে যায় আপনার দিকেই। ভ্রমণ হোক কিংবা নববর্ষের পার্টি, প্রত্যেকটি ছবিতে আপনিই যেন হয়ে উঠতে পারেন আকর্ষণের কেন্দ্রবিন্দু। বাকিদের মতো এমন ইচ্ছা নিশ্চয়ই আপনারও। আর ছবির সাবজেক্ট যদি আপনি না হয়ে অন্য কিছু হয়, সেক্ষেত্রেও তা পিচকার পারফেক্ট করাই হয় আপনার লক্ষ্য। তাই তো শুধু স্মার্টফোন বা ক্যামেরায় ছবি তুললেই কাজ ফুরিয়ে যায় না। সোশ্যাল মিডিয়ায় তা পোস্ট করার আগে সেটিকে ঝাঁ-চকচকে করে তোলার আসল কাজটা তো থেকেই যায়। আপনার মোবাইলেও নিঃসন্দেহে তেমনই কিছু ফটো এডিটিং অ্যাপ ডাউনলোড করা আছে। তবে সেরা এফেক্ট পেতে এই পাঁচটি এডিটিং অ্যাপের কথা জেনে রাখুন। বাজি ধরে বলা যায়, উপকৃত হবেনই।

স্ন্যাপসিড:
এটি গুগলের নিজস্ব একটি অ্যাপ। JPG-র পাশাপাশি র’ ফরম্যাটের ছবিও এতে অনায়াসেই এডিট করা যায়। তবে শুধু স্মার্টফোনের ক্ষেত্রেই নয়, যাঁরা DSLR ক্যামেরা ব্যবহার করেন, তাঁদের জন্যও এই অ্যাপটি দারুণ কাজের। দেখতে সাদামাটা হলেও এতে এডিটিংয়ের জন্য রয়েছে একগুচ্ছ ফিচার। ছবির কোনও অংশ ব্লার করা এবং চোখে না পড়া কোনও অংশকে উজ্জ্বল করে তোলা যায় এই অ্যাপের মাধ্যমে।

snapspeed

পিক্সএলআর:
গুগল প্লে-স্টোরে গিয়ে এই অ্যাপটির রিভিউ দেখলেই এর জনপ্রিয়তা টের পাবেন। কোলাজ বানানো থেকে শুরু করে কোনও ছবিকে কার্টুনে পরিণত করা, এই অ্যাপের মাধ্যমে এক তুড়িতেই সব সম্ভব। Pixelate অপশনে নানাধরনের এফেক্ট পেয়ে যাবেন। এমন অ্যাপে ম্যাড়ম্যাড়ে ছবিও সুন্দর হতে বাধ্য।

[ফের ধামাকা, জিওর ‘হ্যাপি নিউ ইয়ার’ অফারে পাবেন ১০০% ক্যাশব্যাক]

pixlr

ইনস্টাগ্রাম:
বর্তমান প্রজন্মের প্রায় প্রত্যেকের স্মার্টফোনেই রয়েছে এই সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাপ। ভারচুয়াল জগতে বিচরণের পাশাপাশি এই অ্যাপটির জনপ্রিয়তা এর এডিটিং অপশনের জন্যও। এক টাচেই কোনও ছবিকে পারফেক্ট করে তুলতে এর এফেক্টগুলি নিঃসন্দেহে সেরা। ফটো আপলোড করার সময় নেক্সট অপশন ক্লিক করলেই একগুচ্ছ এফেক্ট খুলে যায় মুখে সামনে। ব্যস, পছন্দ মতো সাদা-কালো কিংবা অতিরিক্ত রঙিন করে নিন আপনার তোলা ছবি। শুধু কি তাই? ইনস্টাগ্রামের ক্যামেরা অপশন অন করে ছবি তুলেও নানা প্রপস যোগ করতে পারবেন আপনি।

instagram

লেন্স ডিসটর্শান:
কুয়াশা, আলোর রোশনাই থেকে বৃষ্টি, ছবির সঙ্গে জুড়ে দেওয়া যায় যেকোনও এফেক্ট। আরও মজার বিষয় হল, এই অ্যাপে একাধিক লেয়ারে কাজ করা যায়। ফলে এক ছবিতে একাধিক এফেক্ট দেওয়া যায় অনায়াসে। তবে অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন ইউজাররা এখনও এই অ্যাপটি ব্যবহার করার সুযোগ পাচ্ছেন না। বেটা ভার্সানে রয়েছে লেন্স ডিসটর্শান অ্যাপ। এবং একদম ঠিকঠাক কাজ করছে বলেই জানা গিয়েছে।

[ফেব্রুয়ারি থেকে আর মিলবে না আমাজন-ফ্লিপকার্টের আকর্ষণীয় অফার!]

lens-distortion

APUS ক্যামেরা:
যাঁরা ছবিতে বেসিক কিছু এডিট করতে চান, এটি তাঁদের জন্য আদর্শ। মেকআপ, কোলাজ, ফিল্টারের মতো বেশ কয়েকটি ফিচার রয়েছে। তাছাড়া এখানে ছবি তুললে লিঙ্গের ভিত্তিতে আপনা বয়স বলে দেয় এই অ্যাপটি। ট্রাই করেছেন?

apus-camera

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং