BREAKING NEWS

২৯ শ্রাবণ  ১৪২৭  শনিবার ১৫ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

শরীরের কোন অংশে ট্যাটুতে মঙ্গল, জানাবে আপনার রাশিফল

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: January 29, 2018 2:52 pm|    Updated: July 14, 2018 5:32 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: উঠল বাই তো ট্যাটু করাই। না, সারাজীবনের জন্য শরীরে যে ডিজাইনটি যুক্ত করতে চলেছেন, তা নিয়ে হটকারি সিদ্ধান্ত নেবেন না। ভেবে-চিন্তেই ট্যাটু করান। কারণ এর সঙ্গে যেমন জুড়ে আপনার ব্যক্তিগত আবেগ ও ভালবাসা, তেমনই ট্যাটু আপনার ভাবমূর্তিও তুলে ধরে বাইরের দুনিয়ায়। তাই তা যদি হয় রাশি মেনে তাহলে আরওই ভাল। অনেকেই শরীরের সেই সব স্থানে ট্যাটু করান, যেখানে তুলনামূলক কম ব্যথা লাগে। কিন্তু আপনার রাশিফল অনুযায়ী শরীরের কিছু নির্দিষ্ট অংশে ট্যাটু করালে স্টাইল স্টেটমেন্টও যেমন বজায় থাকবে, তেমনই তা আপনার জন্য হবে শুভও।

এরিস (২১ মার্চ – ১৯ এপ্রিল): এই রাশির মানুষরা সাধারণত স্বাধীনচেতা, সাহসী হয়। বেড়াজালে আবদ্ধ থাকতে পছন্দ করে না এরা। তাই ট্যাটুর ক্ষেত্রে এদের আদর্শ স্থান পিঠ।

[এই ৫টি শখ আছে? তাহলে আপনার বুদ্ধি বাকিদের থেকে একটু বেশিই]

টরাস (২০ এপ্রিল – ২০ মে): স্টাইলিশ পছন্দের জন্যই এই রাশির ব্যক্তিরা বিশেষভাবে নজর কাড়ে। দুনিয়ার সামনে নিজেকে খুব পরিস্কার ও ছিমছামভাবে তুলে ধরতেই ভালবাসে এরা। তাই কবজিতে ট্যাটুই এদের জন্য আদর্শ। যা অনায়াসেই চোখে পড়ে।

জেমিনি (২১ মে – ২০ জুন): এক রূপে একাধিক গুণের অধিকারী হয় এরা। সেক্ষেত্রে কাঁধে ট্যাটু করলেই আপনার ব্যক্তিত্ব সঠিকভাবে ফুটে উঠবে।

ক্যানসার (২১ জুন – ২২ জুলাই): উপর থেকে যতই নিজেকে বাস্তববাদী দেখানোর চেষ্টা করুক না কেন, সাধারণত মন থেকে এরা বেশ স্পর্শকাতর হয়ে থাকে। ঝগড়া-বিতর্ক এড়িয়েই চলে। ক্ষমা করার গুণও রয়েছে। সবসময় প্রতিটি জিনিস জাহির করতে ভালবাসে না এরা। তাই পায়ের পিছনের অংশে ট্যাটুই এই রাশির ব্যক্তিদের জন্য শুভ।

লিও (২৩ জুলাই – ২২ আগস্ট): জনপ্রিয়তা দিয়েও নিজের আধিপত্য বিস্তার করতে ভালবাসে এরা। তাই নিজের শক্তি ও ক্ষমতাকে বোঝাতে ঘাড়ই ট্যাটু করানোর আদর্শ স্থান।

Side-Chest-For-Girls-tattoo

ভার্গো (২৩ আগস্ট – ২২ সেপ্টেম্বর): এরা সৃষ্টিশীল ও বুদ্ধিমান। অন্যকে পরিচালনার অদ্ভুত এক দক্ষতাও রয়েছে। এদের স্বভাবের সঙ্গে হাতের আঙুলে ট্যাটু মানানসই।

লিব্রা (২৩ সেপ্টেম্বর – ২২ অক্টোবর): বিলাশবহুল ও রোমাঞ্চকর জীবন ভালবাসে এরা। কনুইতে ট্যাটু এদের জন্য আদর্শ। পরে ট্যাটুটি আরও বাড়ানোর সুযোগও থাকে। কারণ এদের অল্পে মন ভরে না।

স্করপিও (২৩ অক্টোবর – ২১ নভেম্বর): নিজেকে গোপন রাখতে পছন্দ করে এরা। তাই গোড়ালিতে ট্যাটু করানো আদর্শ স্থান। কারণ এক ঝলকে সেখানকার ট্যাটু চোখে পড়ে না।

[নিজের শিশুর হাতে স্মার্টফোন দিয়ে কী ক্ষতি করছেন জানেন?]

স্যাজিটেরিয়াস (২২ নভেম্বর – ২১ ডিসেম্বর): এদের যৌন চাহিদা অন্যদের তুলনায় অনেকটাই বেশি। তাই যৌন আবেদনের মনোভাবও থাকে। সেক্ষেত্রে উরুতে ট্যাটু করানো যেতে পারে। এতে পার্টনারের তার প্রতি আকর্ষণ বাড়ে।

Sexy-Bold-Thigh-Tattoo

ক্যাপ্রিকর্ন (ডিসেম্বর ২২ – ১৯ জানুয়ারি): সৎ, পরিশ্রমী ও সোজাসাপটা স্বভাবের এরা। তাই ট্যাটুর মাধ্যমে কোনও বার্তা দেওয়ার হলে সেই অংশটি অবশ্যই হওয়া ভাল তার বুক বা ছাতি।

অ্যাকোয়ারিয়াস (২০ জানুয়ারি – ১৮ ফেব্রুয়ারি): এক কথায় এরা ট্রেন্ড সেটার। তাই আর পাঁচজনের চেয়ে নিজেদের আলাদাভাবে তুলে ধরতেই পছন্দ করে। পায়ের পাতার উপর যেমন অনেকে ট্যাটু করায় তেমন অনেকে মুখেও ট্যাটু করাতে পিছপা হয় না।

পাইসেস (১৯ ফেব্রুয়ারি – ২০ মার্চ): একটু অন্যভাবে পার্টনারের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে চায় এরা। তাই কানের পিছনে ট্যাটু অনায়াসে সে উদ্দেশ্য পূরণ করে।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement