৩ কার্তিক  ১৪২৬  সোমবার ২১ অক্টোবর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: প্রতি মাসেই এই ব্যথা সহ্য করতে হয়। বিশেষ করে প্রথম এক, দুই দিন কোমরটা যেন ধরে থাকে। কিছুতেই ছাড়তে চায় না। কিন্তু ঘরে বসে থাকলে তো চলবে না। হাজারটা কাজ পড়ে থাকে। সেগুলোও তো সামলাতে হয়। তাহলে উপায়? উপায় তো হাতের কাছেই থাকে। খালি একটু চিনে নিতে হয় ঋতুস্রাবের ব্যথা সারাতে কোন উপকরণগুলি একেবারে অব্যর্থ।

[অন্তর্বাস তো পরেন, কিন্তু সঠিকভাবে পরার নিয়ম জানেন কি?]

১) ঋতুস্রাবের যন্ত্রণা থেকে মুক্তি পাওয়ার সবচেয়ে কার্যকরী উপায় হল জল। অন্তত ১৫-২০ গ্লাস জল খেতে হবে। তাহলে তাড়াতাড়ি ব্যথা কমে যাবে।

২) অনেক সময় ব্যথা থেকে মুক্তি পেতে অনেকে ওষুধ খান। কিন্তু ওষুধের বদলে একটু হালকা শরীরচর্চা করে নিতে পারেন। এক জায়গায় বসে থাকলে ব্যথা আরও বেশি হতে পারে।

1dda5712-e93a-490a-89c9-429e27cbe483

৩) কিছু ক্ষেত্রে খাবারের উপরও ব্যথার পরিমাণ নির্ভর করে। এই সময় বেশি করে সবুজ সবজি খাবেন। তবে পিচ্ছিল সবজিগুলি থেকে দূরে থাকবেন।

৪) শীতকাল আসছে। এই সময় ঋতুস্রাবের ব্যথা থেকে মুক্তি পাওয়ার সবচেয়ে সহজ উপায় গরম তরল। চাইলে আপনি খেতে পারেন, আবার চাইলে হট ওয়াটার ব্যাগ দিয়ে সেঁকও দিতে পারেন। আরাম পাবেন।

৫) ওরগ্যাজম। হ্যাঁ, আপনি ঠিকই পড়ছেন। ওরগ্যাজমের ফলে রক্তনালীর তাপমাত্রা একটু হলেও বেড়ে যায়। এই প্রক্রিয়া ঋতুস্রাবের ব্যথা কমাতে সাহায্য করে।

b5454a21-8bc7-439b-804f-d5ab16154559

৬) অনেকেরই কফি খাওয়ার অভ্যাস রয়েছে। হালকা শীতে অনেকে কফির প্যাকেটও কিনে ফেলেছেন। তবে ঋতুস্রাবের সময় কফি থেকে দূরে থাকাই ভাল। শুধু কফিই নয়, ঝাঁঝ যুক্ত ঠান্ডা পানীয়ও না খাওয়া ভাল।

৭) চাইলে হোমিওপ্যাথির দ্বারস্থ হতে পারেন। অনেক সময় অ্যালোপ্যাথের থেকে বেশি কাজে দেয় ভেসজ ওষুধগুলি। আর এর পার্শ্ব-প্রতিক্রিয়াও তেমন হয় না।

৮) এই সময় একটু গরম জলে স্নান করুন। গরম জলে ব্যথা তো কমেই শরীরেরও অনেক উপকার হয়। সতেজতা আসে।

4d7bbb46-de02-4ca1-8748-33260c2f73fa 

[তিরিশের পর যৌনতায় কীভাবে সাড়া দেয় শরীর?]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং