৮ কার্তিক  ১৪২৮  মঙ্গলবার ২৬ অক্টোবর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

বর্ষার মরশুমে হতে পারে দাদ-হাজা-চুলকানি, বাঁচার উপায় বাতলালেন বিশেষজ্ঞ

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: August 24, 2021 8:14 pm|    Updated: August 24, 2021 8:14 pm

Here is expert guide to prevent infections this monsoon | Sangbad Pratidin

বৃষ্টির জমা জলে আর গরমের ঘামে হতে পারে হাতে, পায়ে ফাংগাস ইনফেকশন। এই সময়ে এমন হলে শুরুতেই হন সাবধান। সতর্ক করলেন ডার্মাটোলজিস্ট ডা. সন্দীপন ধর। শুনলেন কোয়েল মুখোপাধ্যায়।

ভেজা মানেই বিপদ

ফাংগাল ইনফেকশন (Fungal infection) শরীরের যে কোনও অংশে হতে পারে। বেশি হয় হাত-পায়ের আঙুলের ফাঁকে, শরীরের খাঁজে। আর্দ্রতার জন্যই মূলত হয়। জল জমে থাকে, মুছলেও পুরোটা পরিষ্কার হয় না। ঘর গেরস্থালির কাজ করায় মহিলাদের বেশি হয়। তাই নামই হয়ে গিয়েছে ‘হাউসওয়াইফ ফাংগাল ডার্মাটাইটিস’। একই উপসর্গে ভোগেন চাষি, শ্রমিক, রাজমিস্ত্রিরাও। বর্ষায় রাস্তার জমা জল পেরিয়ে যাওয়া-আসাতেও অনেকেরই ইনফেকশন হয়। পরিবেশগত কারণ ছাড়াও ইমিউনিটি কম থাকলে ‘রিপিটেটিভ ফাংগাল ইনফেকশন’ হয়। ইমিউনোসাপ্রেসেন্টদেরও ইনফেকশন হতে পারে। যেমন ডায়াবিটিসে আক্রান্ত। এঁদের পায়ের যত্ন খুব ভালভাবে করা উচিত। নচেৎ পায়ে ফাংগাল ইনফেকশন, সেলুলাইটিস এমনকী, গ্যাংগ্রিনও হতে পারে। তবে ওষুধপত্র খেয়ে সুগার নিয়ন্ত্রণে থাকলে ইনফেকশন হওয়ার আশঙ্কা কম। যাঁরা ইমিউনোসাপ্রেসেন্ট ওষুধ নেন, কোনও কারণে টানা স্টেরয়েড খাচ্ছেন, তাঁদেরও হতে পারে। কেমোথেরাপির ওষুধ যাঁরা খাচ্ছেন, রিউমাটোলজি-অঙ্কোলজির রোগীদেরও হতে পারে। স্থূলতার সমস্যা থাকলেও ঘাম জমে ইনফেকশন হয়।

[আরও পড়ুন: Health Tips: গোপনাঙ্গের সমস্যায় ভুগছেন? গরম জলে নিম্নাঙ্গ ডুবিয়ে গামলায় বসুন]

চুলকায়, রস বেরোয়

পায়ের আঙুলের মধ্যে গোল, চাকার মতো হয়, যাকে রিংওয়ার্ম বলে। সবচেয়ে বেশি হয় তৃতীয় ও চতুর্থ আঙুলের মাঝের ‘ওয়েব স্পেসে’। অনেক সময় সাদা হয়, চুলকায়, রস বেরোয়, লাল হয়ে যায়, আঙুল ফুলে যায়, দুধের সরের মতো জিনিস জমে থাকে, যা আঙুল থেকে উপরের দিকে ওঠে, গোড়ালির দিকেও যায়। নাম টিনিয়া পিডিস। এর সঙ্গে অনেক সময় একটা ইস্ট থাকে, নাম ক্যানডিডা। কখনও নখ সবুজ বা কালো আর ভঙ্গুর হয়ে যায়, টিনিয়া আঙ্গুয়াম বলে।

সমাধানের উপায়

সাফসুতরো থাকুন

হাত-পা শুকনো রাখুন। বর্ষার জল লাগিয়ে বাড়ি ফিরলে, গরম জলে অ্যান্টিসেপটিক সোপ (ফার্মা কোম্পানির তৈরি, বাজারচলতি নয়) দিয়ে হাত-পা ভাল করে ধুয়ে নিন। না হলে, সাধারণ সাবান দিয়েই পরিষ্কার করুন। ‘ড্রাই’ করে মুছে নিন। অ্যান্টিফাংগাল পাউডার ছড়ান বা মাইক্রোনাইজল, কিটোকোনাজল, লুলিকোনাজল প্রভৃতি ক্রিম লাগান। এতেও না কমলে ডার্মাটোলজিস্টের কাছে যান। তাঁর পরামর্শমতো ওষুধ খান। নিজে ডাক্তারি করবেন না। রিউমাটয়েড আর্থারাইটিসের কারণে কিছু বয়স্ক মানুষের পায়ের আঙুল বেঁকে থাকে, ফাঁকে জল জমে থাকে। সহজে শুকোতে হেয়ারড্রায়ার ভাল কাজ দেয়।

[আরও পড়ুন: Health Tips: বৃষ্টিতে মাঝেমধ্যেই পেট খারাপে ভুগছেন? রইল বর্ষায় সুস্থ থাকার ৭ টিপস]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement