৩ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  বুধবার ২০ নভেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ব্যস্ত জীবনে মানুষ যখন শারীরিক সম্পর্কে আগ্রহ হারাচ্ছেন ঠিক তখনই যৌন সমস্যাহারী বটিকা হিসাবে মারিজুয়ানার সন্ধান পেলেন গবেষকরা। নিষিদ্ধ এই মাদকের প্রভাবে আপনার হৃদযন্ত্রটি বিকল হলেও যৌন সুখে কানায় কানায় পূর্ণ হবে আপনার শরীর-মন। এমনটাই দাবি স্ট্যানফোর্ড ইউনিভার্সিটি মেডিক্যাল সেন্টারের সহকারী অধ্যাপক মাইকেল এইসেনবার্গের।

[‘এবার বোধহয় কাসভ জয়ন্তী পালন করবে সিদ্দারামাইয়া সরকার’]

নিছকই দাবি নয়। এই বিষয়ে আমেরিকা সরকারের ‘ন্যাশনাল সার্ভে অফ ফ্যামিলি গ্রোথ’-এর রিপোর্ট নিয়ে রীতিমতো গবেষণা করেন মাইকেল। ২৮ হাজার মহিলা ও ২৩ হাজার পুরুষের উপর হয় সমীক্ষাটি। দেখা গিয়েছে চার সপ্তাহে নেশাহীন মহিলারা গড়ে ছ’বার সহবাস করলে নিয়মিত মারিজুয়ানা সেবনে সেই সংখ্যাটা বেড়ে হয় গড়ে ৭.১। আবার নেশামুক্ত পুরুষ চার সপ্তাহে গড়ে ৫.৬ বার সঙ্গমে লিপ্ত হলে মারিজুয়ানার প্রভাবে তা বেড়ে হচ্ছে গড়ে ৬.৯ বার। যৌন আকর্ষণের এই তীব্রতা বিবাহিত সম্পর্ক অথবা জাতি-বর্ণের তোয়াক্কা করছে না বলেই গবেষকরা জানিয়েছেন। এমনকী শরীরের চাহিদা মেটাতে বহুগামীতাতেও পিছপা হচ্ছেন না মারিজুয়ানা আসক্তরা। যদিও মারিজুয়ানার সঙ্গে যৌন উদ্দীপনার সম্পর্ক নিয়ে এখনই নিশ্চিত হতে পারছেন না চিকিৎসক-গবেষকরা।

[মরশুমের প্রথম তুষারপাত হিমাচলে, মার্চ পর্যন্ত বন্ধ রোটাং পাস]

যদিও এর আগে গবেষণায় দেখা গিয়েছিল, নিয়মিত মারিজুয়ানা সেবনের প্রভাবে প্রাথমিকভাবে যৌন উত্তেজনা বাড়লেও ক্রমেই পুরুষের স্পার্ম কাউন্ট কমতে থাকে। ফলে চূড়ান্ত মুহূর্তের উত্তেজনা উপভোগ্য হয় না। নিয়মিত মারিজুয়ানা সেবনকারী মহিলারা জানান, এই নেশার ফলে যোনি মুখ অত্যধিক শুকিয়ে যায়। ফলে যৌন সুখে ছেদ পড়ে। আশ্চর্যজনকভাবে দেখা গিয়েছে, হার্টের জন্য ক্ষতিকর পদার্থ যৌন ক্ষমতাও কমায়। মানুষ অন্য অসুস্থতাকে গুরুত্ব না দিলেও যৌন সুখে আপসে রাজি নন।

[খবরের সত্যতা যাচাইয়ে হাত মেলাল ফেসবুক, গুগল-সহ অন্যান্যরা]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং