৩ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  বুধবার ২০ নভেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

৩ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  বুধবার ২০ নভেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কাজের ব্যস্ততায় সময়ের বড়ই অভাব৷ ঘুমচোখ খোলা থেকেই শুরু ইঁদুর দৌড়৷ প্রতিযোগিতার জীবনে নিজের মানুষদের সঙ্গে দেখা সাক্ষাৎ ক্রমশই কমছে৷ ইন্টারনেটের যুগে সোশ্যাল মিডিয়ায় মেকি আলাপচারিতাতেই আটকে গিয়েছে জীবন৷ এই ব্যস্ততার মাঝে যদি বাড়িতে অতিথি আসে, সত্যি ভাল লাগে কি? কিন্তু বাড়িতে কেউ চলে আসলে তো আর তাঁকে তাড়িয়ে দেওয়া যায় না৷ পরিবর্তে তাঁকে আপ্যায়ন করতেই হবে৷ আপ্যায়ন তো করবেন কিন্তু বাড়ির যা দশা, তাতে কপালে চিন্তার ভাঁজ পড়াই স্বাভাবিক৷ কিন্তু গালে হাত দিয়ে বসে ভাবলেই তো হবে না, তাই তড়িঘড়ি কম পরিশ্রমে আপনার সাধের বাড়িটিকে অতিথি আপ্যায়নের যোগ্য করে তুলুন৷ আপনার জন্য রইল টিপস৷

[আরও পড়ুন: ডিমের খোসা ফেলে দেন? ব্যবহার জানলে আপনি চমকে উঠবেন]

আপনি কি দু’কামরার ফ্ল্যাটের বাসিন্দা? তবে অতিথি আসলে নিশ্চয়ই তাঁকে ড্রয়িং রুমে বসতে দেবেন৷ তাই প্রথমেই সুন্দর করে সাজিয়ে নিন ড্রয়িং রুম৷ সোফাসেট থাকলে তা গুছিয়ে ফেলুন৷ কুশনগুলি জায়গায় রাখুন, দেখবেন তাতেই বেশ খানিকটা ধোপদুরস্ত হয়ে উঠেছে আপনার ড্রয়িং রুম৷

Cleaning

দু’কামরার ফ্ল্যাট মানে আপনার ড্রয়িং রুমের এক কোণই হয়ে গিয়েছে ডাইনিং রুম৷ তাই এবার আপনি সাজিয়ে ফেলুন সেই জায়গাটিও৷ কারণ অতিথি আসলে তাকে তো কিছু খেতে দিতেই হবে৷ তাই ভাল করে ডাইনিং টেবিল পরিষ্কার করে ফেলুন৷ বাড়িতে থাকলে একটি ফুলদানিও ডাইনিং টেবিলে রাখতে পারেন৷ তাজা ফুল আনতে পারলে ভাল নইলে ড্রাই ফুলেই সাজিয়ে তুলুন ফুলদানি৷

Dining-Table

[আরও পড়ুন: দামি আসবাবের প্রয়োজন নেই, কম খরচেই সাজিয়ে তুলুন আপনার ডাইনিং রুম]

আপনার অতিথির কি ড্রয়িং রুম বসেই রান্নাঘরের দিকে নজর যাওয়া সম্ভব? উত্তর হ্যাঁ হলে রান্নাঘরটিও আপনাকে গুছিয়ে রাখতেই হবে৷ নইলে কিন্তু অতিথির থেকে সমালোচনা শুনতে হতে পারে৷ তাই প্রথমে রান্নাঘরের চতুর্দিক পরিষ্কার করে ফেলুন৷ খাবারদাবার প্যাকেটে বাইরে পড়ে থাকলে সেগুলি ঢাকা কোনও জায়গায় ঢুকিয়ে দিন৷ যাতে আপনার অতিথির কিছুই নজরে না পড়ে৷

Kitchen

খুব কাছের কোনও অতিথি হলে তিনি নিশ্চয়ই আপনার শোওয়ার ঘরেও ঢুকবেন৷ তাই শোওয়ার ঘরটি গুছোতে দেরি করবেন না৷ প্রথমে বিছানা পরিষ্কারে হাত দিন৷ টানটান করে একটু উজ্জ্বল রংয়ের চাদর বিছানায় পেতে ফেলুন৷ ঘরে অগোছালো অবস্থায় জামাকাপড় পড়ে থাকলে সেগুলি ভাঁজ করে রাখুন৷ গুছিয়ে রাখার সময় না পেলে ওই জামাকাপড়গুলি আপাতত আলমারিতে ঢুকিয়ে দরজা বন্ধ করে দিন৷ তাতে ঘর পরিষ্কার হয়ে যাবে আর অতিথিও আপনার ঘরের আসল চেহারা বুঝতে পারবেন না৷ আপনার অতিথি যদি কোনও মহিলা হন, তবে ড্রেসিং টেবিল গুছিয়ে রাখুন৷ কারণ মহিলামাত্রই আয়নার সামনে একবার হলেও দাঁড়াবেন তা ভুলে যাবেন না৷

bedroom

ঘর সাজালেন আর বাথরুমে অপরিষ্কার হয়ে পড়ে রয়েছে তা যেন না হল৷ কারণ, মনে রাখবেন ওই একটিমাত্র জায়গা দেখলেই কিন্তু বোঝা যায় আপনি আপনার ঘরের পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতার ব্যাপারে ঠিক কতটা সচেতন৷ তাই অতিথি আসার আগে বাথরুম পরিষ্কারও আবশ্যক৷

[আরও পড়ুন: সংসারে শ্রীবৃদ্ধি চান? বাস্তুশাস্ত্র মেনে সাজিয়ে তুলুন রান্নাঘর]

bathroom

সব শেষে প্রতিটি ঘরে ভাল করে রুম ফ্রেশনার জাতীয় কোনও সুগন্ধি ছড়িয়ে দিন৷ দেখবেন অতিথি আপনার ঘর গোছানোর প্রশংসা করতে বাধ্য হবেই৷

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং