১২ বৈশাখ  ১৪২৬  শুক্রবার ২৬ এপ্রিল ২০১৯ 

Menu Logo নির্বাচন ‘১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও #IPL12 ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আবহাওয়া বলছে শীত পড়তে এখনও দিন দুয়েক দেরি। আর কনকনে ঠান্ডার অনুভূতি পেতে তো আরও দিন চার-পাঁচ অপেক্ষা করতেই হবে। কিন্তু তার আগে তো লেপ কম্বল বের করে ফেলতে হবে। সেই এক বছর আগে তুলে রাখা হয়েছিল শীতের শেষে। এতদিনে তার উপর ধুলোর আস্তরণ পড়ে গিয়েছে। সেসব সরিয়ে আবার লেপ-কম্বলকে শীতের জন্য তৈরি করতে কী করতে হবে, দেখে নিন।

লেপের যত্ন

লেপ যদি শিমুল তুলোর হয়ে থাকে, তাহলে ধোয়া তো দূরের কথা, ড্রাই ওয়াশ করা যায় না। এক্ষেত্রে লেপ রোদে দিন। এতে লেপের উপর থাকা ধুলো পরিষ্কার হয়ে যাবে। লেপের যদি কভার থাকে, তাহলে সেটি কেচে নিন। লেপ পরিষ্কার না থাকলে অ্যালার্জি হওয়ার সম্ভাবনা প্রবল।

কম্বলের যত্ন

একই কথা কম্বলের ক্ষেত্রেও খাটে। এটিও পরিষ্কার রাখা জরুরি। তবে কম্বল কিন্তু ধোয়া যেতে পারে। শ্যাম্পুতে মিনিট দশেক ধুয়ে রোদে শুকিয়ে নিন। ঝামেলা এড়াতে লন্ড্রিতে দিয়ে দিতে পারেন। সেখান থেকেই ঝকঝকে করে পাঠাবে কম্বল।

কাঁথার যত্ন

কাঁথা পরিষ্কার করা কষ্টকর কাজ নয়। বাড়িতে অনায়াসেই কাঁথা কেচে নেওয়া যায়। তারপর রোদে শুকিয়ে তা ব্যবহার করুন।

বড়দিনে প্রিয়জনকে ক্যাকটাস উপহার! নতুন ট্রেন্ড রাজ্যে ]

শুধু লেপ, কম্বল আর কাঁথাই তো নয়; শীত মানেই উলের পোশাক আর লেদার জ্যাকেটেরও মরশুম। সেগুলোরও তো দেখভাল জরুরি।

সোযেটারের যত্ন

পশমের জামা বা উলের সোয়েটার উষ্ণ জলে না ধুয়ে ঠান্ডা জলে ধুয়ে নিন। তবে ধোয়ার সময় জলে একটু পাতিলেবুর রস ও ভিনিগার দিয়ে দিতে পারেন। এতে রং ঠিক থাকবে। পশমের জামা ইস্ত্রি করার সময় অতি অবশ্যই তার উপর সুতির চাদর বিছিয়ে নিন। সরাসরি পশমের সঙ্গে ইস্ত্রির স্পর্শ যেন না হয়।

লেদার জ্যাকেটের যত্ন

এগুলি অতি অবশ্যই লন্ড্রিতে দিন। বাড়িতে এই ধরনের জ্যাকেট পরিষ্কার করা সম্ভব নয়। লেদারের কাপড় বাড়িতে পরিস্কার না করে লন্ড্রিতে দিন। এগুলি কখনই রোদে দেওয়া উচিত নয়। জ্যাকেট কয়েক বছর পুরনো হয়ে গেলে ভিতরের লাইনিং পালটে নিন।

কম খরচে এভাবেই সাজিয়ে তুলুন বাড়ির মেঝে ]

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং