২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২৭ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

সম্পর্ক ভাঙছে? শেষ হওয়ার আগে এভাবে একবার চেষ্টা করে দেখতে পারেন

Published by: Bishakha Pal |    Posted: November 22, 2018 6:12 pm|    Updated: November 22, 2018 6:12 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সম্পর্ক টিকিয়ে রাখা আজকের দিনে বেশ কঠিন হয়ে দাঁড়িয়েছে। নিজের আত্মসম্মান বজায় রাখতে গিয়ে সম্পর্কের সুতো যাচ্ছে ছিঁড়ে। জোড়া লাগাতে গিয়ে হিমশিম খাচ্ছে দম্পতি বা বাড়ির গুরুজনরা। এক এক সময় কথাবার্তা তো সোজা ডিভোর্সের স্তরে পৌঁছে যাচ্ছে। সম্পর্ক ভাঙা কোনও কাজের কথা নয়। তাই সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে আরও একবার পরখ করে নিন নিজের সম্পর্ক।

নিজেকে প্রশ্ন করুন

মাত্র তিনটি ধাপেই হতে পারে সম্পর্কের পরীক্ষা। সব কিছুর আগে মাথা ঠান্ডা করার চেষ্টা করুন। একটা লম্বা শ্বাস নিন। এবার নিজের সঙ্গে কথা বলুন। নিজের মনেই রাগের কথা, দুঃখের কথা, বিরক্তির কথা আওড়াতে থাকুন। দরকার হলে নিজের মনেই বকবক করুন। যা ভাবছেন মুখে বলতে থাকুন। আস্তে আস্তেই বলুন। পায়চারিও করতে পারেন। এতে দেখবেন রাগ পড়ে যাবে। মাথা ঠান্ডা হবে তাড়াতাড়ি। স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে আসবেন আপনি।

পিঁয়াজেই লুকিয়ে রতিসুখের চাবিকাঠি, জানতেন কি? ]

পরিস্থিতির কথা ভাবুন

আপনি কোন পরিস্থিতিতে মাথা গরম করেছেন, কেন ওই রকম পরিস্থিতি তৈরি হয়েছিল ঠান্ডা মাথায় ভেবে দেখুন, আপনি কি খুব বেশি উত্তেজিত হয়ে পড়েছেন? এই ১০ মিনিটের উপর ভিত্তি করে পরের ৫ বছরের সিদ্ধান্ত নেওয়া উচিত? এই সময় ভাল কথা ভাবুন। আপনারা দু’জন এখন একসঙ্গে কাটান, তখন তো অনেক ভাল কিছুও হয়, সেগুলি ভাবার চেষ্টা করুন। মাথায় আসবে না। কারণ তখন মেজাজ সপ্তমে চড়ে থাকে। কিন্তু চেষ্টা করতে থাকুন। সফল হবেনই।

বন্ধু বা সহকর্মীদের সঙ্গে কথা বলুন

সমস্যা হলে বন্ধুদের সঙ্গে আলোচনা করুন। সহকর্মীদের সঙ্গেও আলোচনা করে দেখতে পারেন। এক্ষেত্রে দু’টি সুবিধা আছে। একদিকে রয়েছে বন্ধুরা। তাঁরা আপনাকে বোঝে ভাল। আপনি কোন ক্ষেত্রে কেমন ব্যবহার করেন, তা তাঁদের নখদর্পণে। ফলে আপনার পরিস্থিতি তাঁরা বুঝে সেই মতো আপনাকে পথ দেখাতে পারবেন। অন্যদিকে সহকর্মীরা। হতে পারে এরা আপনার সমবয়সী নন। কিন্তু একসঙ্গে কাজ করার সুবাদে আপনাদের অফিসে অনেকসময়ই একই পরিস্থিতির মুখোমুখি হতে হয়। তখন টিম স্পিরিটের জোরে সেই সমস্যা থেকে বেরিয়ে আসেন আপনারা। ফলে সমবয়সী না হলেও সহকর্মীরা সমমনস্ক হন। এটা মস্ত বড় বিষয়। আপনার ব্যক্তিগত জীবনেও এই মানসিকতা আপনাকে সাহায্য করতে পারে।

জানেন, কেন বয়সে বড় মহিলার প্রেমে পড়েন পুরুষরা? ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement