×

৯ ফাল্গুন  ১৪২৫  শুক্রবার ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার
নিউজলেটার

৯ ফাল্গুন  ১৪২৫  শুক্রবার ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পুজোআচ্চায় নিত্য ব্যবহার ধূপের। নিয়মিত পুজো না হলেও প্রতি বাড়িতেই প্রায় ধূপ জ্বলে। সকাল বা সন্ধেয় এই রীতির ব্যতিক্রম খুব একটা দেখা যায় না। ধূপের স্নিগ্ধ গন্ধের সঙ্গে মানসিক প্রশান্তিরও একটা যোগাযোগ থাকে। আবার অনেকে রুম ফ্রেশনারের বিকল্প হিসেবে ধূপ ব্যবহার করেন। মনে করেন, রুম ফ্রেশনারে ক্ষতিকর রাসায়নিক থাকতে পারে। বদলে ধূপ দিলে ব্যাপারটা অনেকটা সহজ হবে। ঘরের দুর্গন্ধও কেটে যাবে। তা নয় গেল। কিন্তু এই ধূপের ধোঁয়া কিন্তু প্রতিদিন আপনার শরীরে মারাত্মক ক্ষতি করছে। এমনকী হতে পারে ক্যানসারও।

[ শরীরের কোন অংশে ট্যাটুতে মঙ্গল, জানাবে আপনার রাশিফল ]

ধূপের ধোঁয়া থেকে যা ক্ষতি হয়, তা সিগারেটের ধোঁয়ার থেকেও কোনও অংশে কম নয়। তার মানে এই নয় যে, সিগারেটের ধোঁয়া খুব ভাল জিনিস। বরং অবশ্য বর্জনীয়। সিগারেটের ধোঁয়া থেকে সাবধানী মানুষ দূরে থাকেন। কিন্তু ধূপের ধোঁয়া থেকে নয়। বরং ঘরে-বাইরে, মন্দিরে ধূপের ধোঁয়া প্রতিদিনই ঢুকছে মানুষের শরীরে। এবং ক্ষতিকর নয় ভেবে তা থেকে মানুষ দূরেও থাকছেন না। তাতেই ক্ষতি হচ্ছে আরও বেশি।

[ কিছুই মনে থাকছে না? হলুদের গুণেই কিন্তু ফিরবে স্মৃতি ]

ধূপের ধোঁয়া যে কতটা ক্ষতিকর হতে পারে, চিনা এক সমীক্ষায় উঠে এসেছিল সে তথ্য। জানা যাচ্ছে, সুগন্ধী হিসেবে ধূপে যে পদার্থ ব্যবহার করা হয়, তার দহনে উৎপন্ন ধোঁয়া কিন্তু কোনও অংশেই উপকারী নয়। গন্ধ যতই ভাল লাগুক, আসলে কিন্তু তা ফুসফুসের বারোটা বাজাচ্ছে। ধূপ জ্বালানোর সঙ্গে বেশ কিছু ছোট ছোট কণিকা বাতাসে মিশে যায়। এবং যা প্রবেশ করে যিনি ধূপ জ্বালাচ্ছেন বা কাছাকাছি আছেন তাঁর বা তাঁদের শরীরে। ফলে ফুসফুসে সংক্রমণের সম্ভাবনা বাড়ে। এই ধোঁয়ায় এমন কিছু টক্সিক পদার্থ আছে যা ক্যানসার পর্যন্ত ডেকে আনতে পারে। সমীক্ষা অন্তত সেই ইঙ্গিতই দিয়েছিল। জেনোটক্সিক, সাইটোটক্সিক জাতীয় পদার্থ নিয়মিত শরীরে প্রবেশ করলে ডিএনএ-এর নকশা পর্যন্ত প্রভাবিত হতে মারে। যা মারাত্মক ক্ষতির ইঙ্গিত। ধূপের ধোঁয়া ফুসফুসে প্রবেশ করার অর্থ, এই ছোট ছোট কণিকাও সেখানে পৌঁছে যাওয়া। অন্তত ৬৪ রকমের পদার্থ থাকে যা এভাবে প্রতিনিয়ত শরীরে ঢুকছে। যেহেতু ধূপের সঙ্গে পবিত্রতা ও প্রশান্তির ধারণা সাধারণ মানুষের মনে গেঁথে আছে, হিন্দু সংস্কারও জড়িয়ে আছে, তাই ধূপকে কেউই প্রায় ক্ষতিকর মনে করেন না। কিন্তু কার্যত স্লো পয়জনিংয়ের মতো একটু একটু করে ক্ষতি করে ধূপের ধোঁয়া। যা সিগারেটের ধোঁয়ার থেকে কম খারাপ নয়। তাই এ ব্যাপারে এখনই সতর্ক হওয়া ভাল।

[ নিজের শিশুর হাতে স্মার্টফোন দিয়ে কী ক্ষতি করছেন জানেন? ]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং