৩১ ভাদ্র  ১৪২৬  বুধবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মন ভাঙার পরই হৃদয়ে জোর ধাক্কা লাগে। দীর্ঘদিনের সম্পর্কে ছেদ পড়ার কথা ভাবলেই বুকের ভিতরটা চিনচিন করে ওঠে। কিন্তু এখানেই বিষয়টা শেষ হয়ে যায় না। প্রেম বা বিবাহে বিচ্ছেদের পর শরীরে কিন্তু নানা ধরনের পরিবর্তন আসে। যা আপনার ব্যক্তিগত ও পেশাদারি জীবনে খারাপ প্রভাব ফেলতে পারে। যেসব বিষয়ে আপনার সতর্ক থাকা উচিত।

পেশীতে যন্ত্রণা:
টেক্সাস বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা বলছেন, বিচ্ছেদের পর পিঠের পেশীতে ব্যথা অনুভব করতে পারেন। সিঁড়িতে উঠতে কিংবা বেশি দূর হাঁটার ক্ষেত্রে পায়ের ব্যথা ভোগাতে পারে আপনাকে। গবেষণায় দেখা গিয়েছে, ২৩ শতাংশ যুগলেরই বিবাহবিচ্ছেদের পর হাঁটাচলায় সমস্যা দেখা দিয়েছে।

[এই তিনটি কারণে অন্যের সঙ্গে ডেটিংয়ে যাওয়ার আগে নিজেকে চিনে নিন]

বুকে ব্যথা:
মন ভাঙলেই মনে হয় শ্বাসকষ্ট হচ্ছে? পর্যাপ্ত পরিমাণ অক্সিজেনের অভাব অনুভব করেন? না, এটা কিন্তু শুধু মনের ভুল নয়। আবেগপ্রবণ হৃদয় বাস্তবেই ক্ষতিগ্রস্ত  হয়ে থাকে। মাঝেমধ্যে বুকে অসহ্য যন্ত্রণাও অনুভব করতে পারেন।

break-up_web

নেশার চেয়েও ক্ষতিকর:
সম্পর্ক অনেকটা নেশার মতোই। দীর্ঘদিনের ভালবাসা পরিণত হয় অভ্যাসে। আর সেই অভ্যাস হঠাৎ বদলে গেলে তার ফলও একইরকম হতে পারে। ধূমপান বা মাদক সেবন ছেড়ে দিলে শরীরে নানা পরিবর্তন আসতে শুরু করে। গবেষকরা বলছেন, প্রেমের নেশা তার চেয়েও ক্ষতিকর।

ফোলা চোখ:
বিচ্ছেদ মানেই চোখের জল। খুব কম বিচ্ছেদই তৎক্ষণাত মানুষকে আনন্দ দেয়। আর লাগাতার চোখের জল মানেই আপনার চোখ ফুলতে শুরু করে। রাত জেগে কাঁদলে শরীরও অসুস্থ হয়।

when-to-break-up-with-boy-friend

হজমে সমস্যা:
রাতে না ঘুমানো, পেশীতে ব্যথা। এসবের জন্য উলটো-পালটা ওষুধ খেয়ে নেওয়া। এই সবই প্রভাব ফেলতে পারে আপনার পাচনতন্ত্রে। রাতে ঘুম না হলে খাওয়াও হজম হতে চায় না। আর এখান থেকেই খাওয়ার ইচ্ছা চলে যাওয়া, ডায়েরিয়ার মতো রোগ হতে পারে। হারবার্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষণা জানাচ্ছে, বিচ্ছেদ আপনার মস্তিষ্কেও খারাপ প্রভাব ফেলে।

[খুব বেশি মাথার চুল পড়ছে? এই ঘরোয়া উপায়গুলি জেনে রাখুন]

ওজন বেড়ে যাওয়া:
ভাবছেন তো দুশ্চিন্তা আর মন খারাপে ওজন কমে যাওয়ার কথা? কিন্তু গবেষকরা বলছেন, অতিরিক্ত মানসিক চাপ আপনার ওজন বাড়িয়ে দিতে পারে। কারণ আপনি অত্যধিক চাপ নিলে শরীরের কোষগুলির মধ্যে ইনসুলিনের সংবেদনশীলতা কমে যায়। ফলে শরীর আরও বেশি ইনসুলিন তৈরি করে। যাতে রক্তে শর্করার পরিমাণও বাড়ে। ফলে শরীরে মেদ জমতে শুরু করে। আর তাই ওজনও বাড়ে।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং