BREAKING NEWS

২০ শ্রাবণ  ১৪২৭  বুধবার ৫ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

মাদকের প্রভাবে নয়, মস্তিষ্কের খেলাতেই ভয়ংকর প্রেমের নেশা!

Published by: Bishakha Pal |    Posted: January 19, 2019 9:04 pm|    Updated: January 20, 2019 3:27 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কথায় বলে, প্রেমের নেশা। প্রেমে পড়তে কে না ভালবাসে? উঠতি কৈশোর বা যৌবনে মানুষ আচমকাই প্রেমে পড়ে যায়। কারো লাভ অ্যাট ফার্স্ট সাইট, তো কারও আবার কিছুটা সময় সেই বিশেষ মানুষের সঙ্গে কাটানোর পর মনে হয় – ‘প্রেমে পড়েছি’। কিন্তু সব কিছুর মোদ্দা কথা একটাই- ভালবাসা। সবাই বলে, প্রেমে পড়া ভাল। সব কিছু সমস্যার সবচেয়ে ভাল ওষুধ প্রেম। কিন্তু গবেষণা বলছে, প্রেম নাকি মাদকের মতো। একবার পড়লে ছাড়া মুশকিল।

ভাবতেই পারেন, এ আর নতুন কথা কী? যুগ যুগ ধরে তো তাই চলছে। যে মানুষ একবার প্রেমে পড়ে, সে বেরিয়ে আসতে পারে না। তাই তো সম্পর্কে ভাঙন ধরলেও, তা থেকে মুক্তি পেতে অনেক কাঠখড় পোড়াতে হয়। তবেই ভোলা যায় পুরনো প্রেমিক বা প্রেমিকাকে। ভুল নয়। কিন্তু এসব তো কথার কথা। বৈজ্ঞানিক প্রমাণ-সহ একথা কখনও কাউকে বলতে শোনা গিয়েছে কি? অবাক হচ্ছেন? ভাবছেন প্রেম তো মনের ব্যাপার। প্রেমের সঙ্গে ব্রেনের সম্পর্ক কী? সম্পর্ক আছে। অন্তত বিজ্ঞানীরা তেমনই প্রমাণ করেছেন। আর গবেষণা করে তাঁরা যে রহস্য আবিষ্কার করেছেন, তা জানতে পারলে চক্ষু চড়কগাছ হবে।

নারী আর পুরুষের অর্গাজম্ কি সমান? গবেষণা কী বলছে? ]

সাম্প্রতিক গবেষণা বলছে, মাদক নিলে মস্তিষ্কের যে অংশ সক্রিয় হয়ে ওঠে, প্রেম করলেও ঠিক একই জায়গায় প্রভাব পড়ে। স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৫ জন ছাত্রছাত্রীর উপর এই গবেষণা চালানো হয়েছিল। তাদের মধ্যে আটজন মহিলা ও সাতজন পুরুষ। তাদের ছবি, সঙ্গী-সহ একাধিক বিষয় নিয়ে পর্যবেক্ষণ করা হয়। তারপরই উঠে আসে এই বিস্ময়কর তথ্য।

দেখা যায়,  কেউ যদি সম্পর্ক নিয়ে কষ্টে থাকে, তবে তাকে তার প্রিয়জনের ছবি দেখালে, ম্যাজিকের মতো কাজ করে। ঠিক পেনকিলারের মতো। শুধু তাই নয়। তাদের ব্রেন স্ক্যান করেও এক অদ্ভুত জিনিস দেখা গিয়েছে। যদি কোনও মানুষ মাদক নেয়, তবে মস্তিষ্কের একটি বিশেষ অংশে তার প্রভাব পড়ে। এক্ষেত্রেও ঠিক তাই। মানুষের অনুভূতি- যেমন প্রেম বা আবেগ মস্তিষ্কের সেই বিশেষ অংশকেই প্রভাবিত করে। পর্যবেক্ষণে এও দেখা গিয়েছে, মানুষের কষ্ট যদি মারাত্মক হয় তবে প্রিয়জনের ছবি দেখলে তা ১২ শতাংশ পর্যন্ত লাঘব হয়। আর কষ্ট যদি ততটা তীব্র না হয়, তাহলে ৪৫ শতাংশ পর্যন্তই কমে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে। তবে এই প্রিয়জনের ছবি অবশ্যই প্রেমিক বা প্রেমিকার। অন্য কোনও প্রিয়জনের ছবি দেখালে মস্তিষ্কের সেই বিশেষ জাদু প্রভাব সক্রিয় হবে না। সুতরাং, প্রেমে থাকুন, ভালো থাকুন। 

প্রিয়জনকে ধোঁকা দেওয়ার মাপকাঠি একটা চুম্বন! সমীক্ষায় উঠে এল আজব তথ্য ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement