৭ ভাদ্র  ১৪২৬  রবিবার ২৫ আগস্ট ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ব্যস্ত জীবনযাত্রায় অভ্যস্ত অধিকাংশ মহিলা৷ বাড়ির কাজের পাশাপাশি শক্ত কাঁধে তাঁরা সামলান অফিসের দায়িত্ব৷ সব দায়িত্ব সামলাতে গিয়ে সকাল থেকে রাত ইঁদুরদৌড়ে শামিল অর্ধেক আকাশ৷ ঘুম চোখ খুলেই কাজের চাপ৷ একদিকে পরিবারের প্রত্যেকের খেয়াল রাখা অন্যদিকে অফিস৷ নিজের জন্য কতটুকুই বা সময় বের করতে পারেন কর্মরত মহিলারা৷ আবার সবদিক সামলাতে গিয়ে ঘুমের সময়েও কাটছাঁট করেন অনেকেই৷ দেরি করে ঘুমোতে গিয়ে উঠে পড়েন তাড়াতাড়ি৷ আবার কোনও কোনও মহিলা করছেন রাত জেগে অফিসের কাজ৷ কিন্তু জানেন কি, এভাবে নিজে থেকেই নানা কঠিন রোগকে শরীরে বাসা বাঁধার সুযোগ করে দিচ্ছেন আপনি? দীর্ঘ কয়েকবছর এই জীবনযাত্রা চলতে থাকলে মৃত্যুও হতে পারে বলেই দাবি চিকিৎসকদের৷

[হাঁটতে গেলে বারবার জুতো খুলে যাচ্ছে! শিরদাঁড়ার সমস্যা নয়তো?]

মধুমেহ রোগে আক্রান্ত বেশিরভাগ মানুষ৷ বর্তমানে অনেকেই এই সমস্যায় ভোগেন৷ চিকিৎসকদের দাবি, ঘুম কম হলেই মধুমেহ শরীরে বাসা বাঁধার সুযোগ পায়৷ সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে, যাঁরা রাত জেগে কাজ করেন তাঁরাই নাকি সবচেয়ে বেশি মধুমেহ রোগে আক্রান্ত হন৷ রাত জেগে কাজ করা ৩১ শতাংশ মহিলাদের শারীরিক পরীক্ষা করেন গবেষকরা৷ গবেষণায় দেখা গিয়েছে, অধিকাংশই টাইপ-২ ডায়াবেটিসে আক্রান্ত৷ শুধু ঘুম কম হওয়াই নয়, অতিরিক্ত মানসিক চাপের জেরেও এই ধরনের রোগে ভোগেন মহিলারা৷ ঠোঁটের কোণে রাখা সিগারেটের ধোঁয়ার মাধ্যমে সেই চাপ থেকে মুক্তি পেতে চান অনেকেই৷ এছাড়াও সঙ্গে রয়েছে মদ্যপানের অভ্যাস৷ এই অভ্যাস থেকে নিজেকে দূরে রাখতে না পারলে সমূহ বিপদ৷ চিকিৎসকদের মতে, একদিকে মানসিক চাপ অন্যদিকে ধূমপান এবং মদ্যপানের অভ্যাস থাকলে টাইপ-২ ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা থাকে সবচেয়ে বেশি৷

[শীতে কীভাবে সর্দি-কাশি-জ্বর থেকে দূরে রাখবেন বাড়ির ছোটদের?]

বাড়িতে নিজের কাজ কোনওক্রমে সেরেই কি আপনি অফিসে চলে আসেন? সারাদিন আপনি কি কমপিউটারের সামনে বসে বসে কাজ করেন? তবে আপনার শরীরে মধুমেহ রোগ বাসা বাঁধার সম্ভাবনা একশো শতাংশ৷ সারাদিনে ৩০ মিনিটও যদি আপনি শরীরচর্চার জন্য ব্যয় না করেন, তবে এই রোগে আক্রান্ত হতে পারেন আপনিও৷ এই রোগে ভুগতে না চাইলে, আজ থেকে শুরু করুন শরীরচর্চা৷ ভোরবেলা ঘুম থেকে উঠে সবুজ ঘাসে হাঁটুন৷ দেখবেন, গোটা দিনটাই বদলে গিয়েছে আপনার৷ অনেক বেশি ঝরঝরে, তরতাজা লাগবে নিজেকে৷

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং