১ আশ্বিন  ১৪২৫  মঙ্গলবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮  |  পুজোর বাকি আর ২৮ দিন

মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও রাশিয়ায় মহারণ ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পপকর্ন খেতে আমরা অনেকেই ভালবাসি। আর সেই হাতে গরম পপকর্ন যদি পাওয়া যায় সিনেমা হলের মধ্যে তবে তো আর কথাই নেই। কারণ সিনেমা হলের অন্ধকার ঘরই আমাদের মতো পপকর্ন প্রেমীদের কাছে পপকর্ন খাওয়ার আদর্শ জায়গা।

যদিও আমরা প্রায় প্রত্যেকেই কখনও না কখনও শুনেছি এইসব জাঙ্ক ফুড খাওয়া স্বাস্থ্যের পক্ষে ক্ষতিকারক এবং এগুলো নাকি বিভিন্ন ভাবে আমাদের শরীরের যন্ত্রগুলোকে বিকল করে দেয়। কিন্ত তাও সব কথা অমান্য করে আমরা আমাদের মতো পপকর্ন খেয়ে যাই। এবার আমাদের বার্তা সেইসব পপকর্ন প্রেমীদেরই জন্য, এবার থেকে পপকর্ন যখন খাবেন চেষ্টা করবেন চিজ মেশানো মাইক্রোওয়েভড পপকর্ন না খেয়ে, নর্মাল মশলা ছাড়া পপকর্ন খেতে। এমনকি যারা পপকর্ন খান না তাঁদেরকেও বলব, আজ থেকে আপনার খাদ্যতালিকায় অবশ্যই পপকর্ন রাখুন। দেখবেন এই মশলা ছাড়া পপকর্ন আপনার শরীরকে সুস্থ রাখতে ম্যাজিকের মতো কাজ করবে। ভাবছেন কীভাবে?

[ব্রেকফাস্টে না, জানেন কী ক্ষতি করছেন শরীরের?]

পপকর্নের মধ্যে আছে ১০০% দানা শস্য, যা আপনার শরীরে ফাইবারের যোগান দেয় আর এই ফাইবার আন্ত্রিক গোলয়োগ দূরে রাখে। এমনকি যারা কোষ্টকাঠিন্য বা গ্যাসট্রিকের সমস্যায় ভুগছেন, তাদের জন্যও পপকর্ন অত্যন্ত উপকারি। এছাড়াও পপকর্নের মধ্যে যে ফাইবার থাকে তা আমাদের রক্তের বাড়তি কোলেস্টেরলকে সরিয়ে ফেলতে সাহায্য করে, যা হার্ট অ্যাটাকের সম্ভাবনাকে অনেক অংশে কমিয়ে দেয়।

তাছাড়াও পপকর্নের মধ্যে প্রচুর পরিমাণে পলিফেনস নামক অ্যান্টিঅক্সিড্যন্ট থাকে। যা আমাদের শরীরে প্রবেশ করে ক্যানসারের জীবাণুকে মেরে ফেলতে সাহায্য করে এবং পপকর্নের মধ্যে থাকা অন্যান্য অ্যান্টিঅক্সিড্যান্টগুলো চুল পড়া, বয়সকালে চামড়ায় ভাজ পড়ার মতো সমস্যাগুলো রুখতে সাহায্য করে।

[জানেন, বারবার ফোটানো গরম চা শরীরের কী ক্ষতি করে?]

আর সব থেকে গুরুত্বপূর্ণ হলো এরমধ্যে কোনওরকম ফ্যাটযুক্ত জিনিস না থাকায় এটি কোনওভাবেই আপনার ওজন বাড়াতে সাহায্য করবে না বরং আপনার প্রতিদিনের ডায়েটে পপকর্ন রাখলে সেটা আপনার ওজন কমাতে সাহায্য করতে পারে। তাই আজই চিপস বা অন্যান্য জাঙ্ক ফুড খাওয়া ছাড়ুন আর আপনার খাদ্যতালিকায় পপকর্নের মতো গুরুত্বপূর্ণ খাবারকে অবশ্যই রাখুন। এতে আপনি সুস্থ এবং ঝরঝরেভাবে বাঁচবেন বহুকাল।

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং