৫ শ্রাবণ  ১৪২৬  রবিবার ২১ জুলাই ২০১৯ 

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: শিবের দুই ছেলে কার্তিক আর গণেশের নাম তো সকলেই জানেন। কিন্তু অনেকেই হয়তো জানেন না মহাদেবের কিন্তু আরও তিন পুত্রসন্তান রয়েছে। বাবার মতোই তাঁরাও মহাগুণের অধিকারী। মহাশিবরাত্রির আগে চলুন জেনে নেওয়া যাক শিবের পাঁচ ছেলে সম্পর্কে।

ভগবান শিবের প্রথম সন্তান কার্তিক। ঋষিপত্নী কৃতিকা তাঁকে লালন করেন বলে নাম হয় কার্তিক। তাঁর অপর নাম স্কন্দ। তারকাসুরকে বধ করতেই শিব-পার্বতী এই সন্তানের জন্ম দেন। দক্ষিণ ভারতে মুরুগান নামে পূজিত হন এই শিবপুত্র।

ganesh_web

গণেশের জন্ম নিয়ে পুরাণে অনেক গল্প। গণেশ পুরাণ, শিব পুরাণ থেকে জানা যায়, দেবী পার্বতী এক মনোহর মূর্তি তৈরি করেন। তা তৈরির পর পার্বতীর বড় ভাল লেগে যায়। এরপরই সেই মূর্তিতে প্রাণ সঞ্চার করেন তিনি। গণেশের বুদ্ধি ও গুণের জোর দেখে দেবতারা তাঁকে গণনায়ক বলে মেনে নেন। যেকোনও পুজোর আগে তাঁকে পুজো করার সিদ্ধান্ত নেন।

কার্তিক, গণেশের পরই শিবের পুত্রসন্তান হিসাবে মনে করা হয় আয়াপ্পাকে। কথিত আছে, ভষ্মাসুরের হাত থেকে মহাদেবকে রক্ষা করতেই বিষ্ণু মোহিনীরূপ ধারণ করেন। মোহিনী ও শিবের বরপুত্র এই আয়াপ্পা। কার্তিকের মতো আয়াপ্পাও দক্ষিণেই পূজিত হন।

ayyappa._webjpg

অনেকেই অন্ধকাসুরের নাম শুনেছেন। যাঁকে হিরণ্যাক্ষ নামক অসুরের পুত্র বলে মনে করা হয়। কিন্তু আসলে এই অন্ধকাসুর শিবেরই ছেলে। একবার নাকি পার্বতী মজা করে শিবের চোখ বন্ধ করে দেন। এরফলে অন্ধকার হয়ে যায় সৃষ্টিও। এদিকে শিবের শরীর ক্রমেই তেজে ভরে ওঠে। ঘামতে শুরু করেন মহাদেব। এক বিন্দু ঘাম থেকে জন্ম হয় এক দৃষ্টিহীন পুত্রের। নাম হয় অন্ধক। পরে হিরণ্যাক্ষ শিবকে তপস্যায় তুষ্ট করে অন্ধককে পুত্র হিসাবে পান। কথিত আছে, একবার পার্বতীর প্রতি লোলুপ দৃষ্টি দেওয়ায় শিবের হাতেই প্রাণ হারাতে হয় অন্ধকাসুরকে।

Andhakasura_web

শিবের পঞ্চম পুত্রের নাম অঙ্গারক। যিনি মঙ্গল গ্রহ নামে পরিচিত। অনেকে অবশ্য মনে করেন, অঙ্গারক বিষ্ণুর পুত্র। শোনা যায়, সুকেশ নামে এক অনাথ ছেলেকে দেখে একবার পার্বতীর মায়া হয়। তিনি মহাদেবকে বিষয়টি জানান। এরপর তাঁরা সুকেশকে পালিত-পুত্র হিসাবে গ্রহণ করেন।

angarak_web

কাশ্মীরে ‘মেগা ড্যাম’ ভারতের, আতঙ্কিত পাকিস্তান

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং