২৭ আশ্বিন  ১৪২৬  মঙ্গলবার ১৫ অক্টোবর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বাংলায় একটা কথা প্রচলিত আছে, ‘নিজের মর্যাদা যে বোঝে না, অন্যরাও তাঁকে মর্যাদা দেয় না’। আত্মসম্মান বোধের এই শিক্ষার পাঠই ছোট থেকে মায়ের কাছে পেয়েছে লন্ডনের ১৮ বছরের মেয়ে জাদে। স্বাবলম্বী হয়েছেন, সেটাই প্রমাণ করতে চান। তাই নিজের সতীত্বকে অনলাইনে নিলামে তুললেন৷ যে সবচেয়ে বেশি দর হাঁকবেন, একরাতের জন্য তাঁরই শয্যাসঙ্গিনী হবেন জাদে৷ মেতে উঠবেন রতিক্রিয়ায়৷

[কেবল মুখমেহনেই যৌন চাহিদা মেটাতে পারে এই যন্ত্র]

হঠাৎ কেন সতীত্ব নিলামের ইচ্ছা হল ? জাদে বলেন, “বাবার অবর্তমানে ছোট থেকে অনেক কষ্ট করে মা আমাকে মানুষ করেছে৷ তাঁকে সাহায্যের জন্য আমার এই সিদ্ধান্ত৷ আমি চাই, এই নিলামের টাকা মায়ের হাতে তুলে দিতে এবং বাকি জীবন একটু আনন্দে কাটাতে৷” বর্তমানে বাণিজ্য নিয়ে পড়াশোনা করছেন জাদে৷ এই টাকায় আরও বেশি পড়াশোনা করতে চান। নিজের একটা ব্যবসা ও সুন্দর জীবনের স্বপ্ন দেখছেন তিনি ৷ জাদে জানান, এই সতীত্ব নিলামের সিদ্ধান্ত একেবারেই তাঁর ব্যক্তিগত৷ তাঁর কোনও প্রেমিক নেই৷ তিনি বলেন, “মা আমাকে বলেছে পড়াশোনাই জীবনে এগিয়ে যেতে সাহায্য করবে৷ তাই ছেলে বন্ধু বা প্রেমিকের কথা এখনই না ভেবে, আমি কেবল পড়াশোনাতে মন দিয়েছি৷ পরবর্তীকালে প্রেমিকের কথা ভাবব৷”

[পুরুষ না মহিলা, দীর্ঘদিনের সম্পর্কে ভাঙনের জন্য দায়ী কে?]

জাদে জানিয়েছে, অনলাইন নিলামে তাঁর সতীত্বের ন্যূনতম মূল্য ধার্য্য হয়েছে ১০ হাজার ইউরো৷ তাঁর অনুমান, সতীত্বের দর ১৫ লক্ষ ইউরো পর্যন্ত উঠতে পারে৷  ফুটবলার, ব্যবসায়ী অথবা কোনও অভিনেতার সঙ্গে রাত কাটানোর ইচ্ছে আছে জাদের৷ তাঁর সাফ কথা, “যে আমার সতীত্বের বেশি মূল্য দেবে, তাঁরই শয্যাসঙ্গিনী হতে রাজি আমি৷ তবে আমার সঙ্গে রাজ কাটাতে অবশ্যই সেই ব্যক্তিকে লন্ডন আসতে হবে ও কোনও ফাইভ স্টার হোটেলে রাত কাটাতে হবে৷”

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং