১৪ মাঘ  ১৪২৬  মঙ্গলবার ২৮ জানুয়ারি ২০২০ 

BREAKING NEWS

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

১৪ মাঘ  ১৪২৬  মঙ্গলবার ২৮ জানুয়ারি ২০২০ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: যৌন মিলনের ইচ্ছা মানুষের একটি স্বাভাবিক প্রবৃত্তি। যৌনতা নিয়ে ফ্যান্টাসিও অস্বাভাবিক কিছু নয়। কিন্তু, ফ্যান্টাসি আর বাস্তবের মধ্যে ফারাকটা বুঝতে পারেননি অনেকেই। আর তাতেই ঘটে যায় বিপত্তি। তেমনই একটি ঘটনা ঘটেছে আমেরিকার মিসৌরিতে। ইলেকট্রিক ব্লেন্ডারের সঙ্গে ‘সেক্স’  করতে গিয়ে যৌনাঙ্গ খোয়াতে হল বছর ষোলোর এক কিশোরকে। নেহাতই বরাতজোরে প্রাণে বেঁচে গিয়েছে সে।

[জাপানের আকাশে উড়ল উত্তর কোরিয়ার মিসাইল, চরমে উত্তেজনা]

ঘটনায় সময়ে বাড়িতে একাই ছিল ব্রায়ান জনসন নামে ওই কিশোর। আমচকাই তার ইচ্ছা হয়, বাড়ির নানা জিনিসের সঙ্গে ‘সেক্স’ করবে সে। যেমনি ভাবা, তেমনি কাজ। ব্রায়ান জানিয়েছে, প্রথমেই একটি টোস্টারের সঙ্গে যৌনতায় লিপ্ত হয় সে। এরপর একে একে ভ্যাকুয়াম ক্নিনার, পুরনো ভিডিও রেকর্ডার-সহ ঘরে থাকা বারোটিরও বেশি জিনিসের সঙ্গে চলে এই অদ্ভুত যৌনাচার! কিন্তু, ইলেকট্রিক ব্লেন্ডারের সঙ্গে ‘সেক্স’ করতে গিয়েই ঘটে যায় রক্তারক্তি কাণ্ড। ইলেকট্রিক ব্লেন্ডারের মধ্যে নিজের যৌনাঙ্গটি ঢুকিয়ে দেয় ব্রায়ান। আর ঠিক তখন ভুলবশতই ব্লেন্ডার চালানোর বোতামটিতে চাপ দিয়ে ফেলে সে। ঘুরতে থাকা ইস্পাতের ব্লেডে কাটা পড়ে যৌনাঙ্গ! রক্তাক্ত অবস্থায় কোনওমতে আপদকালীন নম্বরে ফোনটা করে পেরেছিল ব্রায়ান। এরপরই অজ্ঞান হয়ে যায় সে। ফোন পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছন স্বাস্থ্যকর্মীরা। তড়িঘড়ি ব্রায়ানকে হাসপাতাল নিয়ে যান তাঁরা। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, ব্রায়ানের শরীর থেকে প্রচুর রক্ত বেরিয়ে গিয়েছে। ভাগ্য ভাল ছিল। তাই  প্রাণে বেঁচে গিয়েছে সে।

[দ্বিতীয়বার বাবা হলেন জুকারবার্গ, এবারও কন্যাসন্তান]

মার্কিন মুলুকে অবশ্য জড় পদার্থের সঙ্গে যৌনতায় লিপ্ত হওয়ার ঘটনা অবশ্য নতুন নয়। আর এই অদ্ভুত যৌনাচারের জন্য প্রতি বছর গড়ে আমেরিকায় মৃত্যু হয় ৭১ জনের। গুরুতর আহত হয়ে ৪ হাজারেরও বেশি মানুষ হাসপাতালে ভরতি হন। বস্তুত, ২০০৭ সালে ইলেকট্রিক ব্লেডারের সঙ্গে যৌনতায় লিপ্ত হতে গিয়ে প্রাণ হারিয়েছিলেন ৪৭ বছরের এক ব্যক্তি।

[চিকিৎসার আড়ালেই নার্সের নৃশংস হত্যালীলা, একে একে ৯০ জন খুন!]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং