৪ মাঘ  ১৪২৫  শনিবার ১৯ জানুয়ারি ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফিরে দেখা ২০১৮ ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ইউটিউবে ভিডিও দেখেন? ‘হ্যাঁ!’, কিন্তু কোনও কারণে ইউটিউব বন্ধ হয়ে গেলে বা সার্ভার ডাউন থাকলে কী করেন?’ ‘পর্নহাব দেখি!’ টেক বিশেষজ্ঞরা বলছেন, কোনওদিন, কারও কাছ থেকে এমন উত্তর পাওয়া গেলে অবাক হওয়ার কিছু নেই৷ কারণ, তথ্য বলছে এটাই নাকি সত্যি৷ কোনও ভাবে একদিনের জন্যও ইউটিউব বন্ধ হয়ে গেলে, সবচেয়ে বেশি লাভ নাকি পর্নহাবের হয়৷

[শীতল দাম্পত্যে উষ্ণতা ফেরাবে মধু ]

পর্নহাব ব্যবহার করেন এমন লোকের সংখ্যা দিনদিন বাড়ছে৷ পুরানো বিভিন্ন সমীক্ষা বলছে, বিশ্বের অধিকাংশ মানুষের রাতের সঙ্গী হয়ে উঠেছে এই ওয়েবসাইট৷ সংস্থার নিজস্ব সমীক্ষা বলছে, পর্ন দেখায় বিশ্বে চতুর্থ স্থানে ভারত। গুগল সার্চ ইঞ্জিনে ‘পর্ন’ শব্দটি ব্যবহার করার বিচারে বিশ্বের প্রথম দশটি শহরের মধ্যে ছয়টিই ভারতের। শীর্ষে নয়াদিল্লি। দ্বিতীয়, তৃতীয় ও চতুর্থ স্থানে যথাক্রমে পুনে, মুম্বই এবং হাওড়া। ফলে এর থেকে স্পষ্ট কেবল ভারতেই পর্নহাব এই পরিমাণে জনপ্রিয় হলে, সমগ্র বিশ্বে সেটি কী পর্যায়ে৷ এই পরিস্থিতিতে সামনে এসেছে আরও একটি তথ্য৷ সূত্র বলছে, গত বছরের অক্টোবর মাসে কোনও কারণে অসুবিধা দেখা দিয়েছিল ইউটিউবে৷ সম্ভবত অসুবিধা ছিল সংস্থার সার্ভারে৷ ফলে ভিডিও দেখতে গিয়ে অসুবিধা হচ্ছিল ইউটিউব গ্রাহকদের৷ আর সেই সময় নাকি ব্যাপক ব্যবসা করেছে পর্নহাব৷

[সঙ্গমে কতটা ক্যালোরি নষ্ট করলেন, জানাবে এই স্মার্ট কন্ডোম!]

তথ্য থেকে জানা গিয়েছে এই মাসেই পর্নহাবের গ্রাহক সংখ্যা বেড়েছে ২০ শতাংশ৷ অর্থাৎ ইউটিউবে ভিডিও দেখতে না পেয়ে বহু গ্রাহক দ্বারস্থ হয়েছেন বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় পর্ন ওয়েবসাইটের৷ সংস্থাটি জানিয়েছে, একই ধরনের অবস্থা হয়েছিল গত এপ্রিল মাসেও৷ ওই সময় অসুবিধা দেখা দিয়েছিল জনপ্রিয় গেম Fortnite-এর সার্ভার৷ ফলে তখনও নাকি পর্নহাবের গ্রাহক সংখ্যা ১০ শতাংশ বেড়ে গিয়েছিল৷

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং