×

৫ ফাল্গুন  ১৪২৫  সোমবার ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার
নিউজলেটার

৫ ফাল্গুন  ১৪২৫  সোমবার ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পর্নের উপর ভারতীয় আসক্তি নিয়ে নতুন করে কিছু বলার নেই৷ পর্নোগ্রাফি দেখার নিরিখে বিশ্বের মধ্যে তৃতীয় স্থানে রয়েছে ভারত৷ কিন্তু ভারতীয়দের এহেন মনোগ্রাহী বিষয়কেই নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছে সরকার৷ নির্দেশ জারি করে ৮২৭টি পর্ন সাইটের প্রদর্শন বন্ধ করে দিতে বলা হয়েছে টেলিকম সংস্থাগুলিকে৷ যার ফলস্বরূপ, ইতিমধ্যে একশোটি উল্লেখযোগ্য পর্নোগ্রাফি সাইটকে নিষিদ্ধ করেছে দেশের জনপ্রিয় টেলিকম সংস্থা জিও৷ পর্নহাব, এক্সভিডিও-র মতো পর্নোগ্রাফি সাইটগুলি আর দেখতে পাচ্ছেন না জিও-র গ্রাহকরা৷ কিন্তু নিয়ম যেমন রয়েছে, তেমন নিয়মের ফাঁকও রয়েছে৷ আর এই ফাঁক দিয়েই এবার জিও গ্রাহকরাও চাইলেই ব্যবহার দেখতে পারবেন পর্নহাব৷

[এই দিনগুলিতেই সবচেয়ে কম পর্ন দেখেন ভারতীয়রা]

উত্তরাখণ্ড হাই কোর্টের নির্দেশ মেনে গত মাসেই কার্যকর হয় সরকারের এই সিদ্ধান্ত৷ যদিও প্রথমে ৮৫৭টি পর্নোগ্রাফি ওয়েবসাইট বন্ধের নির্দেশ দেয় কোর্ট৷ কিন্তু তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রক খোঁজ নিয়ে মোট ৮২৭টি পর্নোগ্রাফি ওয়েবসাইটকে বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নেয়। মন্ত্রক জানায়, তেমন ভাবে কোনও পর্নোগ্রাফিক তথ্য না পাওয়ায় তালিকা থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে ৩০টি ওয়েবসাইটকে এবং সমস্ত টেলিকম সংস্থার কাছে পৌঁছে দেওয়া হয়েছে এই নির্দেশাবলি৷ এই নির্দেশ জারির পরেই একশোটি পর্নোগ্রাফি ওয়েবসাইট বন্ধ করে জিও৷ যাতে বিপাকে পড়েছে দেশের যুব সমাজ৷ বিশ্বের সবচেয়ে প্রসিদ্ধ পর্ন সাইট পর্নহাব দেখতে না পেয়ে রাতের ঘুম উড়েছে অনেকের৷

[বিয়ের পরের প্রথম দীপাবলি? নবদম্পতিদের এ কাজগুলিই করা ভাল]

কিন্তু সরকারের এই সিদ্ধান্তের ফাঁকটাও বের করে ফেলেছে পর্নহাব৷ কেবল ভারতীয়দের জন্য একটি নয়া পূর্ণাঙ্গ ডোমেন খুলে ফেলেছে সংস্থাটি৷ সংস্থার পক্ষ থেকে টুইট করে জানান হয়েছে, “যেহেতু আমাদের সাইট Pornhub-কে নিষিদ্ধ করেছে ভারত, তাই আমাদের অনুরাগীরা এবার থেকে Pornhub.net নামক সাইটটি ব্যবহার করতে পারবেন৷”

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং