BREAKING NEWS

২৮ আষাঢ়  ১৪২৭  মঙ্গলবার ১৪ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

সহজ জিনিস ভুলে যাচ্ছেন? তাহলে নরম পানীয়ের অভ্যাস এখনই ছাড়ুন

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: January 2, 2018 10:59 am|    Updated: January 2, 2018 10:59 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সহজ জনিস, অথচ মনে রাখা যেন কিছুতেই সহজ নয়। বয়স যাঁদের তিরিশের কোঠা পেরিয়েছে, তাঁরা প্রায়শই ভুগছেন এ ব্যারামে। কাজের চাপ, অনিয়ন্ত্রিত জীবনযাপন থেকে নানা গুরুতর কারণ উঠে আসছে এই স্মৃতিভ্রংশের কারণ হিসেবে। অ্যালঝাইমার্সের সম্ভাবনা মাথাচাড়া দেওয়ায়, আতঙ্কে আরও ভুলে যাচ্ছেন অনেকেই। অথচ কিছু কিছু অভ্যাস পালটে ফেললেই এই সমস্যা থেকে মুক্তি মেলে। যেমন নরম পানীয় বা ক্যানড ফ্রুট জুস খাওয়া, সমীক্ষা বলছে, এই ধরনের পানীয় স্মৃতির বারোটা বাজিয়ে দিতে ওস্তাদ।

এই উপায় অবলম্বন করলেই মিলবে চশমা থেকে মুক্তি ]

অ্যালঝাইমার্স অ্যাসোসিয়েশনের জার্নাল অ্যালঝাইমার্স অ্যান্ড ডিমনেসিয়া অবং স্ট্রোক জার্নালের সমীক্ষায় উঠে আসছে এরকমই কারণ। তিরিশের উপর বয়স এরকম প্রায় হাজার চারেক ব্যক্তির উপর এই সমীক্ষা চালানো হয়। ফলাফল জানান দিচ্ছে, যাঁরা সুগারযুক্ত পানীয় যেমন কোল্ড ড্রিঙ্কস, ক্যানড ফ্রুট জুস ইত্যাদিতে বেশি আসক্ত, তাঁরাই এই সমস্যায় বেশি ভোগেন। অর্থা সুগার ইনটেকের সঙ্গে স্মৃতির একটা সরাসরি সম্পর্ক। বেভারেজ হিসেবে যিনি যত পরিমাণ সুগারযুক্ত পানীয় খাচ্ছেন, স্মৃতি নষ্ট হওয়ার সম্ভাবনা তাঁদের ক্ষেত্রেই বাড়ছে। এই পানীয়ের তালিকায় বাদ যাচ্ছে না ডায়েট সোডাও। অনেকেই প্রায় প্রত্যেকদিন এই পানীয় পান করেন। তাঁদের স্মৃতিভ্রংশ হওয়ার সম্ভাবনা সাধারণের থেকে অন্তত তিনগুণ বেশি। আসতে আসতে তাইই অ্যালঝাইমার্সের দিকে গড়ায়। এবং স্ট্রোকের সম্ভাবনাও দেখা যায়। মোদ্দা কথা এই সমীক্ষার ফলাফল স্পষ্টতই এই ধরনের পানীয় গ্রহণের বিপক্ষে মত দিচ্ছে। কেননা গবেষকদের মতে, ডিমনেশিয়া বা স্ট্রোক কিংবা অ্যালঝাইমার্সকে উসকে দিচ্ছে এগুলিই।

জানেন, কীভাবে হবু স্ত্রীর চোখে আপনি হয়ে উঠতে পারেন ‘পারফেক্ট’ পুরুষ? ]

বর্তমান সময়ে ভুলে যাওয়ার রোগ অত্যান্ত বেড়েছে। অনিয়ন্ত্রিত জীবযাপন বা ফিলহাল জীবনযাপনের অভ্যাস, যে কোনও কারণেই হোক নরম পানীয় গ্রহণের প্রবণতাও বেড়েছে। আর তার জেরেই শরীরে সুগার ইনটেক বাড়ছে। যা গড়াচ্ছে ডিমনেশিয়া থেকে স্ট্রোকে। তাই এই ধরনের পানীয় গ্রহণে নিষেধই করছেন গবেষকরা। তবে এটা একদল গবেষকের মত। বিজ্ঞানীদের অনেকেই মনে করছেন, এ নিয়ে বিস্তারিত গবেষণার প্রয়োজন আছে। সুগার ইনটেক ও স্মতিভ্রংশের সম্পর্ক নিয়ে আরও গভীর পর্যবেক্ষণ প্রয়োজন। তবেই সঠিক সিদ্ধান্তে পৌঁছনো যাবে। তবে এই সমীক্ষার ফলাফল যে একটি সতর্কবার্তা, তা বলার অপেক্ষা রাখে না।

সঙ্গমের পর এই কাজগুলি করেন? নতুন বছরে পালটে ফেলুন অভ্যাস ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement