×

৩ চৈত্র  ১৪২৫  মঙ্গলবার ১৯ মার্চ ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার
নিউজলেটার

৩ চৈত্র  ১৪২৫  মঙ্গলবার ১৯ মার্চ ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কলকাতা হাই কোর্টের নির্দেশে পয়লা ফেব্রুয়ারি থেকে লাগু হচ্ছে না কেবল পরিষেবা সংক্রান্ত টেলিকম রেগুলেটরি অথরিটি অফ ইন্ডিয়ার (TRAI) নয়া নির্দেশিকা৷ ৩১ জানুয়ারি রাতে বন্ধ হচ্ছে না গ্রাহকদের পুরনো প্যাকেজগুলি৷ কারণ, কেবল অপারেটার্সদের আবেদনে সাড়া দিয়ে ১৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত TRAI-এর ওই নির্দেশের উপর স্থগিতাদেশ দিয়েছে কলকাতা হাই কোর্ট। এতে একদিকে যেমন স্বস্তি পেয়েছেন অপারেটররা, তেমনই কিছুটা হলেও সময় হাতে পেয়েছেন গ্রাহকরা৷ কারণ, এঁদের অনেকেই এখনও ভাল করে বুঝেই উঠতে পারেননি কেবল প্যাকেজ সংক্রান্ত TRAI-এর নয়া নির্দেশিকা৷ এখনও ধন্দে রয়ে গিয়েছেন গ্রাহকরা৷ কোন প্যাকেজ ভাল? কোন প্যাকেজ নেওয়া উচিত? বিভিন্ন বিষয়ে এখনও প্রশ্ন রয়ে গিয়েছে গ্রাহকদের মনে৷ যা বুঝতে পেরেছে TRAI-ও৷ তাই সংস্থার তরফ থেকে গ্রাহকদের সুবিধার্থে নিয়ে আসা হয়েছে একটি নয়া উপাায়৷

[এক সূত্রে বাঁধা পড়ছে মেসেঞ্জার, হোয়াটসঅ্যাপ ও ইনস্টাগ্রাম!]

‘চ্যানেল সিলেকটর অ্যাপ্লিকেশন’ নাকি এবার গ্রাহকদের নানা প্রশ্নের উত্তর দেবে। পছন্দসই ১০০টা চ্যানেল বেছে নেওয়ার পাশাপাশি প্যাকেজগুলি সম্পর্কে তথ্য রয়েছে অ্যাপ্লিকেশনে। যা গ্রাহকদের সাহায্য করবে। নয়া নির্দেশিকা যে গ্রাহকদের মধ্যেও বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে, তা বুঝতে পেরেছে TRAI। তা লাঘব করতে এবং গ্রাহকদের উন্নত পরিষেবা প্রদান করতে তাই এই নয়া      অ্যাপ্লিকেশনের বন্দোবস্ত করা হয়েছে সংস্থার তরফ থেকে৷ প্রথমেই কোনও গ্রাহককে ‘চ্যানেল সিলেকটর অ্যাপ্লিকেশনে’ প্রবেশ করতে হবে৷ এরপর নিজের নাম, রাজ্য, ভাষা দিয়ে লগ ইন করতে হবে৷ এরপরই ফ্রি চ্যানেলের (স্টান্ডার্ড ডেফিনেশন) তালিকা পেশ করবে অ্যাপ্লিকেশনটি। সেখান থেকে গ্রাহকের পছন্দ অনুযায়ী ফ্রি চ্যানেল বেছে নিতে পারবেন গ্রাহক৷ নিজের কেবল অথবা ডিটিএইচ পরিষেবা প্রদানকারী সংস্থার নির্দিষ্ট প্রোফাইলে ঢুকে তাঁদেরও পে চ্যানেল এবং প্যাকেজ সিলেক্ট করতে পারবেন কোনও গ্রাহক৷ কোন চ্যানেলের জন্য কত টাকা কাটা হবে, কীভাবে ফ্রি চ্যানেল পাওয়া যাবে, ১০০ টি ফ্রি চ্যানেলের মধ্যে কোন কোন চ্যানেল থাকছে, এই সমস্ত বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য থাকছে ওই অ্যাপ্লিকেশনে৷ টেলিকম রেগুলেটরি অথরিটি অফ ইন্ডিয়ার দাবি, অ্যাপটিতে সম্পূর্ণ প্যাকেজগুলি এত ভালভাবে দেওয়া রয়েছে, যাতে কোনও গ্রাহকের বুঝতে অসুবিধা না হয়৷ 

[সাধারণতন্ত্র দিবসে গুগল ডুডলে ফুটে উঠল অতুল্য ভারত]

নয়া নিয়মে বলা হয়েছে, ফ্রি চ্যানেলগুলির মধ্যে যেকোনও একশোটি বেছে নিতে পারবেন গ্রাহকরা৷ তাই কেবল অপারেটর বা ডিটিএইচ পরিষেবা প্রদানকারী সংস্থার বেছে দেওয়া ফ্রি চ্যানেল দেখতে বাধ্য থাকবেন না কোনও গ্রাহক। নিজের ভাষা, পছন্দ মতো ফ্রি চ্যানেল বেছে নেওয়ার স্বাধীনতা পাচ্ছেন তিনি৷ এ জন্য তাঁকে দিতে হবে কেবলমাত্র ১৩০ টাকা৷

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং