২৬ কার্তিক  ১৪২৬  বুধবার ১৩ নভেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

২৬ কার্তিক  ১৪২৬  বুধবার ১৩ নভেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: প্রতিদিন একটু একটু করে বাড়ছে ফেসবুক ব্যবহারকারীর সংখ্যা৷ ভারচুয়াল জগতের বন্ধুদের সঙ্গে মনের কথা শেয়ার করতে ব্যস্ত প্রায় প্রত্যেকেই৷ তা সে ছবি হোক কিংবা ভিডিও৷ আবার হতে পারে নিউজ ফিড৷ কিন্তু যা শেয়ার করা হচ্ছে তা সমাজে কোনও নেতিবাচক প্রভাব ফেলবে না তো, তা খতিয়ে দেখতেই নানা প্রযুক্তির সাহায্য নিচ্ছে ফেসবুক৷

[ আরও পড়ুন: ফেক নিউজ রুখতে মাঠে নামল ফেসবুক, শুরু তৎপরতা]

ফেসবুকে বিভিন্ন গ্রুপের সদস্য হন অনেকেই৷ ধরুন সেখান থেকে একটি ছবি বা ভিডিও পেলেন আপনি৷ ওই ছবি বা ভিডিও আপনার মনে ধরল৷ তাই আপনি আবারও সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে দিলেন৷ যদি আপনার শেয়ার করা যেকোনও উপাদান শুধুমাত্র মজা দেয় তবে তা ফেসবুকে দেওয়া যেতেই পারে৷ কিন্তু কোনও ছবি বা ভিডিও সমাজে হিংসা ছড়াতে সমর্থ হলে, তাতে বাধা দেয় ফেসবুক৷ কিন্তু এখন প্রশ্ন হল কীভাবে কোনও ক্ষতিকারক ছবি বা ভিডিও শেয়ার করা বন্ধের জন্য ব্যবস্থা নেয় এই সোশ্যাল মিডিয়া? প্রথমে ওই ছবি এবং ভিডিও একাধিক ব্যক্তির টাইমলাইনে পাঠানো হয়৷ কোন মানুষ পছন্দ করছেন আর কে ওই ছবি বা ভিডিও দেখতেই চাইছেন না, তা সমীক্ষা করে দেখা হয়৷ সমীক্ষার ফলাফলের উপরেই নির্ভর করছে ওই ছবি, ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ঠিক কতক্ষণ স্থায়ী হবে কিংবা সেগুলি আদৌ ফেসবুক কোনও ব্যবহারকারীকে তা শেয়ার করতে দেবে কি না৷ সেক্ষেত্রে শুধু ভাইরাল ছবি-ভিডিওই নয়৷ যদি কোনও গ্রুপ থেকে এমন ভুয়ো পোস্ট করা হয় তাও সরিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিতে পারে ফেসবুক৷

[ আরও পড়ুন: জানেন, ভুয়ো খবর ছড়াতে ফেসবুককে কীভাবে সাহায্য করেন ইউজাররা?]

ফেসবুক কর্তৃপক্ষের তরফে জানা গিয়েছে, ইদানীং বিকৃত ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে দেওয়ার প্রবণতাও দেখা যায় নেটিজেনদের একাংশের মধ্যে৷ সেগুলির দিকে কড়া নজর রেখেছে সোশ্যাল মিডিয়া৷ যে ছবি বা ভিডিও কিংবা ভুয়ো পোস্ট সমাজে ক্ষতিকারক প্রভাব ফেলবে তা সরিয়ে দিতে এক মুহূর্তও সময় নষ্ট করতে রাজি নয় ফেসবুক কর্তৃপক্ষ৷ তাই ইতিমধ্যেই প্রযুক্তির যথেষ্ট উন্নতিও করা হয়েছে৷ যত তাড়াতাড়ি সম্ভব আরও আধুনিক প্রযুক্তির মাধ্যমে ভুয়ো খবর রোখার বন্দোবস্ত করবে বলেই ভাবনাচিন্তা রয়েছে ফেসবুকের৷

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং