Advertisement
Advertisement

Breaking News

Vehicle Registration

লাইসেন্স থেকে গাড়ি রেজিস্ট্রেশন, এবার পাঁচ দিনেই ঘরে বসে মিলবে সব পরিষেবা

মাসখানেকের মধ্যেই নয়া পরিষেবা শুরু হবে বলে জানালেন রাজ্যের পরিবহণমন্ত্রী স্নেহাশিস চক্রবর্তী।

From car registration to driving license, everything will be online now, says Transport Minister of West Bengal। Sangbad Pratidin
Published by: Biswadip Dey
  • Posted:August 28, 2022 12:41 pm
  • Updated:August 28, 2022 12:41 pm

স্টাফ রিপোর্টার: গাড়ি রেজিস্ট্রেশন (Vehicle Registration) থেকে ড্রাইভিং লাইসেন্স (Driving license), মালিকানা বদল থেকে পারমিটের আবেদন। কোনও কাজের জন‌্যই এবার আর বারবার আরটিও অফিসে ছুটতে হবে না। বাড়ি বসেই মিলবে যাবতীয় পরিষেবা। সব কিছুই হবে অনলাইনে। মাসখানেকের মধ্যেই নয়া এই পরিষেবা শুরু হয়ে যাবে বলে জানালেন রাজ্যের পরিবহণমন্ত্রী স্নেহাশিস চক্রবর্তী।

ঠিক কী জানিয়েছেন তিনি? শনিবার এই প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘‘সাধারণ মানুষের হয়রানি রুখতে আরটিও অফিসের যাবতীয় পরিষেবা এবার অনলাইনে চালু হচ্ছে। গ্রাহককে ই-বাহনে গিয়ে আবেদন করতে হবে। সেইমতো ডকুমেন্ট আপলোড, তার ভেরিফিকেশন এবং ফি জমা দেওয়া হয়ে গেলে তিন থেকে পঁাচ দিনের মধে‌্যই সব পরিষেবা মিলবে। অনলাইনে ড্রাইভিং লাইসেন্স, গাড়ির পারমিট, গাড়ির নামবদল, ফ‌্যান্সি নাম্বার, ঠিকানা বদল, স্পেশাল পারমিট ইত‌্যাদি সব পরিষেবাই চালু হবে অনলাইনে। এর ফলে মানুষকে একটা কাজ করাতে বারবার আরটিও-অফিসে যেতে হবে না।’’

Advertisement

[আরও পড়ুন: রাহুলকে তোপ দেগে দল ছাড়লেন আরও এক প্রাক্তন সাংসদ, রবিবার ওয়ার্কিং কমিটির বৈঠকে কংগ্রেস]

এদিন ময়দান টেন্টে এক সাংবাদিক বৈঠক করেন নতুন পরিবহণমন্ত্রী। সেখানেই জানান তঁার নতুন পরিকল্পনার কথা। তবে যাঁরা অনলাইনে এই কাজকর্ম করতে স্বাচ্ছন্দ‌্য হবেন না, তঁাদের জন‌্য বিকল্প ব‌্যবস্থা থাকছে বলে জানান তিনি। বলেন, ‘‘প্রত্যেক আরটিও অফিসের বাইরে ‘বাংলা সহায়তা কেন্দ্র’ থাকবে। সাধারণ মানুষ সেখানে গিয়ে কাজ করাতে পারবেন। তঁার জন‌্য আলাদা করে কোনও টাকা দিতে হবে না।’’ আধিকারিকরা জানাচ্ছেন, পরিবহণ দপ্তরের কাজকর্ম অনলাইনে শুরু করতে কিছু প্রযুক্তিগত পরিবর্তন আনতে হবে, তাই নতুন পদ্ধতি চালু হতে মাসখানেক সময় লাগবে।

Advertisement

পরিবহণ দপ্তরের বিরুদ্ধে দীর্ঘদিনের অভিযোগ, আরটিও অফিসগুলোয় কোনও কাজ একবারে হয় না। বারবার যেতে হয়। এবং তা করাতেও দালাল ধরতে হয়। আর এই দালাল দৌরাত্ম‌্য পুরোপুরি বন্ধেই উদ্যোগী হচ্ছেন পরিবহণমন্ত্রী। একইসঙ্গে দূষণ কমাতে আরও বোশি সংখ‌্যক ই-গাড়ি নামানোর পরিকল্পনার কথা বলেছেন তিনি। জানিয়েছেন, শীঘ্রই কলকাতার রাস্তায় নামবে ১০০০ ই-ক‌্যাব।

[আরও পড়ুন: ৯ সেকেন্ডে মাটিতে মিশবে নয়ডার টুইন টাওয়ার, ধ্বংসাবশেষ সরাতে সময় লাগবে তিন মাস]

কী কী পরিষেবা পাওয়া যাবে অনলাইনে? পরিবহণ দপ্তর সূত্রে খবর, গাড়ির রেজিস্ট্রেশন, মালিকানা পরিবর্তন, ট্রেড সার্টিফিকেট পুনর্নবীকরণ, ব‌্যক্তিগত গাড়িকে বাণিজ্যিক গাড়িতে বদল, ফ‌্যান্সি রেজিস্ট্রেশন নম্বর, ঠিকানা বদল, স্পেশাল পারমিট, স্টেজ ক‌্যারেজ পারমিট, লার্নার এবং ড্রাইভিং লাইসেন্স। এই যাবতীয় পরিষেবাই বাড়িতে বসে তিন থেকে পঁাচদিনের মধ্যে পাওয়া যাবে। গ্রাহকের যা প্রয়োজন তা তঁাকে ই-বাহনে গিয়ে আবেদন করতে হবে। তারপর সেখানে যা যা তথ‌্য চাইবে তা আপলোড করতে হবে। তাহলেই ঘরে বসে মিলবে পরিবহণ সংক্রান্ত যাবতীয় পরিষেবা।

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ