BREAKING NEWS

২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ১৯ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

সুন্দরী মহিলা সেজে ফেসবুকে সাম্প্রদায়িক পোস্ট, পুলিশের জালে ‘গুণধর’ যুবক

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: April 21, 2020 12:51 pm|    Updated: April 21, 2020 12:51 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সুন্দরী মহিলা। সোশ্যাল মিডিয়ার হার্টথ্রব। ফেসবুকে অন্তত ১০ হাজার অনুগামী আর ৪০০০ বন্ধু। রীতিমতো সেলেব্রিটি যাকে বলে। এইভাবে দিব্যি চলছিল গত ৮ বছর ধরে। কিন্তু একটা ছোট্ট ভুল আর শ্রীঘরে সেই সুন্দরী, থুড়ি যুবক! ব্যাপারটা হজম হল না তো? তাহলে পড়ুন, সুন্দরী সেজে গত আট বছর ধরে ফেসবুকে ভুয়ো খবর ছড়াত এক যুবক। করোনা পরিস্থিতি নিয়ে ভুল তথ্য নিয়ে এখন কেন্দ্র ও রাজ্য সরকারের ব্যাপক কড়াকড়ি। সেই ফাঁদেই পা দিয়ে জালে নিশা জিন্দাল ওরফে রবি পুজার নামে ওই যুবক।

গত শুক্রবার ছত্তিশগড় পুলিশ রায়পুর থেকে রবিকে গ্রেপ্তার করে। তার বিরুদ্ধে আইটি আইন-সহ একাধিক ধারায় মামলা রুজু করেছে পুলিশ। ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত, ভুয়ো খবর ছড়ানো-সহ বহু অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে। তার প্রোফাইলে ১০ হাজার অনুগামী এবং ৪ হাজার বন্ধুর মধ্যে বেশ কয়েকজন আইএএস ও আইপিএস আধিকারিক থাকাতেই কাল হল রবির। তাকে গ্রেপ্তার করার পর তার সেই নিশা জিন্দাল নামে প্রোফাইল থেকেই একটি পোস্ট করে পুলিশ। যেখানে রবির ছবি দিয়ে লেখা ছিল, ‘আমি নিশা জিন্দাল আর আমি এখন পুলিশ হেফাজতে।’ মুহূর্তে পোস্টটি ভাইরাল হয়ে যায়। ৮ হাজার লাইকও পড়ে স্টেটাসে।

[আরও পড়ুন: বাচ্চাদের অনলাইন গেমই হাতিয়ার, ২ কোটিরও বেশি ইউজারের পাসওয়ার্ড ফাঁস করল হ্যাকাররা]

কিন্তু কেন আট বছর ধরে নিশা জিন্দাল সেজে ছিল রবি? পুলিশি জেরায় সে জানিয়েছে, স্রেফ মজার জন্য এই কাজ করেছে রবি। পুলিশ সুপার আরিফ শেখ জানিয়েছেন, এই প্রোফাইলের বিরুদ্ধে অনেকদিন ধরে সাম্প্রদায়িক পোস্ট করার অভিযোগ আসছিল। সম্প্রতি করোনা আবহে মাস্ক ও স্যানিটাইজার-সহ একটি সাম্প্রদায়িক পোস্টে বেশ কয়েকজন দৃষ্টি আকর্ষণ করে পুলিশের। তারপরই শুরু হয় তদন্ত। গত মার্চ মাসে এই প্রোফাইল থেকে করা একটি পোস্টে দাবি করা হয়, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (WHO) ভারতকে ১০ হাজার ভেন্টিলেটর দিয়ে সাহায্য করেছে। কখনও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার বিশেষজ্ঞ, আবার কখনও রাষ্ট্রসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের সদস্য সেজে পোস্ট করা হত এই প্রোফাইল থেকে। তারপর সংশ্লিষ্ট সংস্থাগুলিতে খোঁজ নিয়ে জানা যায়, এই নামে কোনও ব্যক্তি কাজ করে না। তখনই ভুয়ো প্রোফাইলের বিষয়ে নিশ্চিত হয় পুলিশ।

এবার জানা যাক কে এই রবি পুজার? ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের পড়ুয়া রবি পাকিস্তানি অভিনেত্রী মিরহা পাশার ছবি ব্যবহার করেছিল প্রোফাইলে। সেখানে তাঁর সম্পর্কে বিবরণে লেখা ছিল, ‘আমি ৩৫ বছরের এক সুন্দরী এবং সিঙ্গল যুবতী।’ পুরুষদের মনে ঝড় তোলার জন্য এই ছবি আর বিবরণ যথেষ্ট। সরকারি কর্মচারীর ছেলে রবি মানুষকে নিজের দিকে আকৃষ্ট করার জন্যই এই সুন্দরী মহিলার ছবির আশ্রয় নেয়। তারপর স্রেফ মজার জন্য এতদিন ধরে ফেসবুকে কুকীর্তি করে আসছলি রবি। অভিযুক্ত যুবকের কাছ থেকে চারটি স্মার্টফোন ও একটি ল্যাপটপ বাজেয়াপ্ত করেছে পুলিশ।

[আরও পড়ুন: একেবারেই নিরাপদ নয় ‘Zoom’ অ্যাপ, ব্যবহারকারীদের সতর্ক করল কেন্দ্র]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement