BREAKING NEWS

৮ অগ্রহায়ণ  ১৪২৭  বুধবার ২৫ নভেম্বর ২০২০ 

Advertisement

চিনা সংস্থার কাছে থেকে TikTok-এর মালিকানা কিনতে চলেছে Reliance Jio!

Published by: Abhisek Rakshit |    Posted: August 13, 2020 3:12 pm|    Updated: August 13, 2020 3:12 pm

An Images

‌সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:‌ চিনের ছত্রছায়া থেকে বের করে এনে আমেরিকায় টিকটককে টিকিয়ে রাখতে কোমর বেঁধে আসরে নেমেছে মাইক্রোসফট (Microsoft)। এর পাশাপাশি দৌড়ে রয়েছে টুইটারের নামও। তবে এসবের মধ্যেই এবার জল্পনা, ভারতেও নিজেদের ব্যবসা পুরোপুরি গোটানোর পথে চিনা সংস্থা বাইটডান্স। সম্প্রতি একটি সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত রিপোর্টে বলা হয়েছে, বাইটডান্সের কাছ থেকে ভারতে টিকটকের মালিকানা কিনতে ইতিমধ্যে নাকি আগ্রহ প্রকাশ করেছে মুকেশ আম্বানির সংস্থা রিলায়েন্স জিও। গত মাস থেকেই এই বিষয়টি নিয়ে আলোচনা শুরু হয়েছে দু’‌পক্ষের মধ্যে। তবে সরকারিভাবে এখনও কেউই তা নিয়ে মুখ খোলেনি।

[আরও পড়ুন: আধঘণ্টাতেই শাক-সবজি থেকে তাড়াবে করোনার কাঁটা, রহড়ার অধ্যাপকের যন্ত্র প্রশংসিত আমেরিকায়]

এর আগে গত ১৫ জুন পূর্ব লাদাখ সীমান্তে চড়তে থাকা উত্তেজনার পারদ চূড়ান্ত আকার নেয়। গালওয়ান সীমান্তে চিনা সেনার অতর্কিত হানায় শহিদ হন ২০ ভারতীয় জওয়ান। এরপর থেকেই চিনা পণ্য বয়কটের ডাক দেয় দেশবাসী। চিনের বিরুদ্ধে ক্ষোভের আগুন জ্বলে ওঠে। চিনকে ভাতে মারতে একাধিক পদক্ষেপ করে কেন্দ্র। চিনের বিভিন্ন সংস্থার একাধিক বরাত বাতিল করে রেল ও বিএসএনএল। এরপরই ৫৯টি অ্যাপ নিষিদ্ধ করার সিদ্ধান্তের কথা ঘোষিত হয়। যা চিনকে কার্যত বিপুল আর্থিক ক্ষতির মুখে ফেলে। তার মধ্যেই অন্যতম ছিল টিকটক। দেশের নিরাপত্তা ও সার্বভৌমত্বের কথা মাথায় রেখেই এই সিদ্ধান্ত বলে জানিয়েছিল কেন্দ্র। পাশাপাশি এই চিনা অ্যাপগুলোর বিরুদ্ধে তথ্যচুরির অভিযোগও আনা হয়েছিল। এই নিষেধাজ্ঞার ফলে ভারতে অথৈ জলে পড়ে টিকটকের প্রায় ৩০০ কোটি টাকার ব্যবসা। অনেক কর্মীই অন্য সংস্থায় চাকরির চেষ্টাও শুরু করেন।

[আরও পড়ুন: ফের তথ্য চুরির অভিযোগ, টিকটকের বিরুদ্ধে এবার তদন্তে নামল ফ্রান্সও]

যদিও ভারত সরকারের এই পদক্ষেপের পরেই আসরে নামেন বাইটডান্সের সিইও কেভিন মেয়ার। জানান, ভারতে বাইটডান্সে কর্মরত ২০০০–এরও বেশি কর্মীরাই সংস্থার মূল চালিকাশক্তি। তাঁদের কথা ভেবে যা যা করার তা সংস্থার পক্ষ থেকে করা হবে। কর্মীদের আশ্বস্ত করে এমনটাই জানিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু বেশ কিছুদিন কেটে গেলেও নিষেধাজ্ঞা তোলার ব্যাপারে কোনও নমনীয় মনোভাব দেখায়নি কেন্দ্র। আর এর মধ্যেই রিলায়েন্সের হাতে টিকটককে বিক্রি করে দেওয়ার ব্যাপারে চিন্তাভাবনা শুরু করে দিল বাইটডান্স।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement