BREAKING NEWS

১১ মাঘ  ১৪২৭  সোমবার ২৫ জানুয়ারি ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

ভুয়ো মেসেজের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ না করার ‘শাস্তি’, মোটা অঙ্কের জরিমানা হল টেলিকম সংস্থাগুলির

Published by: Sulaya Singha |    Posted: November 25, 2020 9:46 pm|    Updated: November 25, 2020 9:46 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নির্দেশ অমান্য করার ‘শাস্তি’ ভোগ করতে হল এয়ারটেল, উই, রিলায়েন্স জিও, BSNL- সহ একগুচ্ছ টেলিকম সংস্থাকে। মোটা অঙ্কের জরিমানার মুখে পড়ল তারা।

টেলিকম রেগুলেটরি অথরিটি অফ ইন্ডিয়ার (TRAI) কোন নির্দেশ পালন করেনি টেলিকম সংস্থাগুলি? আসলে এই সমস্ত কোম্পানির যে গ্রাহকরা ডিজিটাল পেমেন্টে অভ্যস্ত, তাঁরা প্রায়ই সাইবার অপরাধীদের থেকে ভুয়ো মেসেজ পান। তার বিরুদ্ধে পদক্ষেপের নির্দেশ দেওয়া হলেও বিষয়টিকে বিশেষ গুরুত্ব দেয়নি নামী সংস্থাগুলি। আর সেই কারণেই মোট আটটি কোম্পানিকে ৩৫ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ করা হল বলে জানিয়েছে TRAI। এয়ারটেল, উই, রিলায়েন্স জিও, BSNL ছাড়াও তালিকায় রয়েছে MTNL, ভিডিওকন, টাটা টেলিসার্ভিসেস ও কোয়াড্রান্ট টেলিসার্ভিসেস। TRAI জানিয়েছে, “নিয়ম অনুযায়ী, কোনও কোম্পানি যদি গ্রাহক পরিষেবার একটি বিশেষ সমস্যার সমাধান না করতে পারে, তাহলে তাকে জরিমানার মুখে পড়তে হয়। এক্ষেত্রে সবচেয়ে বেশি জরিমানা হয়েছে BSNL-এর। ৩০ কোটি এক লক্ষ টাকা। তার পরই রয়েছে Vi, কোয়াড্রান্ট ও এয়ারটেল। তাদের জরিমানার পরিমাণ যথাক্রমে ১.৮২ কোটি, ১.৪১ কোটি এবং ১.৩৩ কোটি টাকা।”

[আরও পড়ুন: ‘‌গুগল পে’তে টাকা পাঠাতে এবার ভারতীয়দেরও আলাদা চার্জ দিতে হবে? কী জানাল সংস্থা]

রিপোর্ট অনুযায়ী, সংস্থাগুলিকে জরিমানা করার আগে ভুয়ো মেসেজ বন্ধ বা ব্লক করার জন্য তাদের পর্যাপ্ত সময় দিতে বাধ্য TRAI। তাই নোটিস ধরানো হয়েছিল আগেই। কিন্তু জানা গিয়েছে, নোটিস পাওয়ার পরও কোনও উত্তর দেয়নি BSNL। একই পথে হাঁটে অন্য সংস্থাগুলিও। তারপরই জরিমানা করা হয়।

TRAI-এর তরফে জানানো হয়েছে, দীর্ঘদিন ধরেই গ্রাহকদের কাছে নানা ভুয়ো মেসেজ আসছে। সেখানে বলা হচ্ছে এই এসএমএস ব্যাংক থেকে পাঠানো হচ্ছে। ব্যক্তিগত তথ্যও চাওয়া হয়ে থাকে গ্রাহকদের থেকে। ফলে অনেকেই বিপাকে পড়ছেন। অনেকে আবার টাকা খোয়াচ্ছেন। এর বিরুদ্ধে পদক্ষেপ করেনি কোম্পানিগুলি। তাই এই শাস্তি। এর আগেও নির্দেশ অমান্য করে জরিমানার মুখে পড়েছিল জিও-এয়ারটেল-সহ অনেক সংস্থা। কিন্তু তা থেকেও শিক্ষা নেয়নি তারা।

[আরও পড়ুন: ৭০% মানুষ নিয়মিত মাস্ক পরলেই অতিমারী রুখে দেওয়া সম্ভব, দাবি নয়া গবেষণায়]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement