BREAKING NEWS

১ আষাঢ়  ১৪২৮  বুধবার ১৬ জুন ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

RSS প্রধানের হ্যান্ডেল থেকে ব্লু টিক সরার পরই টুইটারের বিরুদ্ধে ‘চরম’ পদক্ষেপ কেন্দ্রের

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: June 5, 2021 2:09 pm|    Updated: June 5, 2021 2:27 pm

Twitter has been given a final chance to appoint India-based officers following the country's new rules | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কেন্দ্র বনাম টুইটার তরজা এবার চরম সীমায়। উপরাষ্ট্রপতি ভেঙ্কাইয়া নাইডু এবং আরএসএস সুপ্রিমো মোহন ভাগবতের (Mohan Bhagwat) টুইটার হ্যান্ডেল থেকে ব্লু টিক সরিয়ে দেওয়ার পরই টুইটার কর্তৃপক্ষের উপর ক্ষোভ চরমে উঠেছে কেন্দ্রের। পালটা পদক্ষেপে টুইটারকে একপ্রকার ‘চরমপত্র’ ধরিয়ে দিয়েছে কেন্দ্রের তথ্য ও সংস্কৃতি মন্ত্রক। মাইক্রোব্লগিং সাইটটিকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, “এরপর কেন্দ্রের নয়া তথ্য-প্রযুক্তি আইন না মানলে তার ফল ভুগতে হবে টুইটার কর্তৃপক্ষকে।”

টুইটার এবং কেন্দ্রের মধ্যে নতুন তথ্য-প্রযুক্তি নীতি নিয়ে বেশ কিছুদিন ধরেই তরজা চলছে। গত ফেব্রুয়ারিতে সোশ্যাল মিডিয়ায় রাশ টানতে একগুচ্ছ নির্দেশিকা জারি করে কেন্দ্র। ২৫ মের মধ্যে সেই নিয়মাবলী কার্যকর করার সময়সীমাও বেঁধে দেওয়া হয়। কিন্তু ২৫ মে’র পরও অনেক সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইট এই নিয়মগুলি মানতে রাজি হয়নি। পরে কেন্দ্র কড়া অবস্থান নিলেও হোয়াটসঅ্যাপ (WhatsApp) এবং টুইটার নতুন নির্দেশিকায় চরম আপত্তি জানায়। হোয়াটসঅ্যাপের তরফে আদালতে মামলাও করা হয়। যদিও শেষপর্যন্ত হোয়াটসঅ্যাপ কর্তৃপক্ষ কেন্দ্রের নিয়ম মেনে নেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেয়। এবং নতুন নিয়ম অনুযায়ী সরকারের সঙ্গে সমন্বয় সাধনের জন্য একজন নোডাল অফিসার নিয়োগ করে। এখনও পর্যন্ত ভারতে ব্যবসা করা সব সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইটই কেন্দ্রের নির্দেশমতো একজন করে নোডাল অফিসার নিয়োগ করেছে। ব্যতিক্রম শুধু টুইটার। মৌখিকভাবে সরকারের শর্ত মানার প্রতিশ্রুতি দিলেও এখনও কেন্দ্র নির্দেশিত কোনও নোডাল অফিসার তারা নিয়োগ করেনি। তাঁদের সাফ দাবি, ভারত সরকারের নতুন শর্ত মানলে ইউজারদের গোপনীয়তা ক্ষুন্ন হবে।

[আরও পড়ুন: টুইটারে নীল টিক খোয়ালেন RSS প্রধান মোহন ভগবত, তুঙ্গে বিতর্ক]

শনিবার টুইটার (Twitter) বনাম কেন্দ্রের এই লড়াই নয়া মোড় নেয় একাধিক হাই প্রোফাইল অ্যাকাউন্ট থেকে ‘ব্লু টিক’ তুলে নেওয়ায়। এদিন প্রথমে দেশের উপরাষ্ট্রপতি ভেঙ্কাইয়া নাইডু এবং পরে আরএসএস (RSS) প্রধান মোহন ভাগবতের অ্যাকাউন্ট থেকে ব্লু টিক সরিয়ে নেয় টুইটার কর্তৃপক্ষ। ব্লু টিক সরিয়ে নেওয়া হয় আরও চারজন প্রথম সারির আরএসএস নেতার হ্যান্ডেল থেকে। টুইটারের পক্ষে থেকে জানানো হয়েছিল, ৬ মাস বা তার বেশি সময় ধরে যদি কোনও প্রোফাইল নিষ্ক্রিয় হয়ে পড়ে থাকে, সেক্ষেত্রেই নিয়ম অনুযায়ী এই ব্যাজ সরিয়ে নেওয়া হচ্ছে। কিন্তু সেই যুক্তি কতটা গ্রহণযোগ্য তা নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে নানা মহলে। উপরাষ্ট্রপতির অ্যাকাউন্টের ব্লু টিক আবার ফিরিয়েও দেয় টুইটার। কিন্তু এসবের মধ্যেই ঘটে কেন্দ্রের ক্ষোভের বহিঃপ্রকাশ। টুইটার ইন্ডিয়ার কর্তৃপক্ষকে চূড়ান্ত সতর্কবার্তা দিয়ে কেন্দ্রের তরফে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, সরকারের নির্দেশ মেনে নোডাল অফিসার নিয়োগ না করা হলে ফলাফল ভাল হবে না। কেন্দ্রীয় তথ্য-প্রযুক্তি (IT Ministry) মন্ত্রক সাফ জানিয়ে দিয়েছে, এটিই টুইটারকে দেওয়া শেষ সতর্কতা। এরপরই চরম পদক্ষেপ করবেন তাঁরা।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement