৪ ভাদ্র  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ২২ আগস্ট ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

৪ ভাদ্র  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ২২ আগস্ট ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ভুয়ো খবরের আখড়া হয়ে উঠেছে হোয়াটসঅ্যাপ। রোজই কিছু না কিছু খবর বিদ্যুৎ গতিতে ছড়িয়ে পড়ে এই মেসেজিং অ্যাপের মাধ্যমে। কিন্তু তার সত্যতা যাচাই না করেই অনেকে সেই মেসেজ ফরোয়ার্ড করে দেন। ফল যা হওয়ার তাই হয়। ভুয়ো খবরে বিভ্রান্তি বাড়ে। এ নিয়ে সম্প্রতি বিতর্কের মুখে পড়তে হয়েছে হোয়াটসঅ্যাপ কর্তৃপক্ষকে। কিন্তু এবার থেকে এ বিষয়ে লাগাম টানা সম্ভব। সংবাদপত্র, রেডিওতে বিজ্ঞাপন দিয়ে মানুষকে সচেতন করার চেষ্টা করছে হোয়াটসঅ্যাপ। ভুয়ো খবর যাতে না ছড়ায়, তার জন্য ফিচারে বিশেষ কিছু পরিবর্তনও আনছে এই সংস্থা। কীভাবে বোঝা যাবে কোনটি ভুয়ো আর কোনটি আসল খবর? হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারীদের সেই সংক্রান্ত বেশ কয়েকটি টিপস দেওয়া হয়েছে।

[আইডিয়ার সঙ্গে হাত মিলিয়ে টেলিকমের দুনিয়ায় ইতিহাস গড়ল ভোডাফোন]

কোন মেসেজটি ফরোয়ার্ডেড তা অনায়াসেই বুঝতে পারবেন ব্যবহারকারীরা। কারণ Forwarded লেখা লেবেল দিয়েই এখন থেকে আসবে সে মেসেজ।

আপনি যদি কোনও মেসেজ পেয়ে ক্ষুব্ধ হন কিংবা দুঃখ পান, তাহলে যার থেকে তা পেয়েছেন তাঁকে জিজ্ঞেস করুন মেসেজটি আপনাকে উদ্দেশ্য প্রণোদিতভাবে পাঠানো হয়েছে কিনা। যদি উত্তর হ্যাঁ হয়, তবে তা ফরোয়ার্ড করার আগে অবশ্যই দুবার ভাবুন।

হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে অনেকেই অনেক লম্বা লম্বা আবেগপ্রবণ গল্প পাঠিয়ে থাকেন। চোখ বন্ধ করে বিশ্বাস না করে জিজ্ঞেস করুন তা সত্যি ঘটনা কিনা। সত্যতা যাচাই করা আপনারও দায়িত্ব। ১০০ শতাংশ নিশ্চিত না হয়ে তা ফরোয়ার্ড করবেন না। কারণ বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই এধরনের গল্প ভুয়ো হয়।

টেক্সড মেসেজের মতো ছবি ও ভিডিওগুলিও খতিয়ে দেখুন। অনেক সময় খোলা চোখেই ক্রপ বা ফটোশপ করা ছবি কিংবা এডিট করা ভিডিও বোঝা যায়। তেমন হলে তা বাকিদেরও জানান। আবার অনেক সময় ছবিটি সত্যি হলেও তার সঙ্গে যুক্ত খবরটি সত্যি নাও হতে পারে। সন্দেহ হলে ইন্টারনেটে সার্চ করে এ বিষয়ে নিশ্চিত হতে পারেন।

[দ্রুত ব্যাংক ঋণ চান? ভারতীয়দের সাহায্যে হাজির গুগল]

হোয়াটসঅ্যাপে পাওয়া কোনও লিংকের ফাঁদে চট করে পা দেবেন না। অনেক সময় ভাল ওয়েবসাইট থেকেও অনেক লিংক পেতে পারেন। কিন্তু কোনও বানান বা জ্যোতি চিহ্ন দেখেই বুঝতে পারবেন, সে ওয়েবসাইট বিপজ্জনক।

যে খবর হোয়াটসঅ্যাপে পেয়েছেন, ইন্টারনেটে সার্চ করে দেখুন তো অন্য কোনও সাইট কি এ খবর দিচ্ছে? যদি দেখেন অনেকেই খবরটি করেছে, সেক্ষেত্রে না ভুয়ো না হওয়ার সম্ভাবনাই বেশি।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং