৪ শ্রাবণ  ১৪২৬  শনিবার ২০ জুলাই ২০১৯ 

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সবজি কিংবা মাছ-মাংস বাজার থেকে কিনে নির্দিষ্ট নিয়ম মেনে ধুয়ে তবেই রান্না করলে নিরাপদ। কাঁচা বাজারের ঝুড়ি বা এসি রিটেল শপ যেখান থেকেই কিনুন, সুস্থ থাকতে এই নিয়মের অন্যথা না করাই শ্রেয়।

ফার্ম প্রোডাক্ট:  যে ধরনের ফল অনেকদিন ধরে বাজারে সংরক্ষিত করে রাখা হয় বা অনেক দিন সুরক্ষিত থাকে, বিশেষ করে আপেল, শশা ইত্যাদি কিনে এনে ভাল করে কলের তলায় ধরে হাত দিয়ে রগড়ে রগড়ে ধুয়ে নেওয়া উচিত। এই ধরনের ফল ও সবজিতে অনেক বেশি প্রিজারভেটিভ থাকে তাই ধুয়ে নিয়ে খোসা ছাড়িয়ে খাওয়াই ভাল।

নরম ফল:  যে সকল ফলের খোসা খুব পাতলা  বা যেগুলির খোসা ছাড়িয়ে খাওয়া সম্ভব নয়। আঙুর, জাম,  পিচ ও জামরুল ইত্যাদি জল দিয়ে ভাল করে ধুয়ে কাগজের ন্যাপকিন দিয়ে সেই জল মুছে নিন। এতে ফলের ত্বক থেকে  মাইক্রোঅর্গ্যানিজম বা জীবাণু দূর হয়।

মাটির তলার সবজি:  বিট, গাজর ও আলু ইত্যাদি না ধুয়ে কাটলে সবজির গায়ে লেগে থাকা নানা বিষাক্ত উপাদান সবজির মধ্যে প্রবেশ করে। তাই এই ধরনের সবজি কিনে কলের জল খুলে নরম ব্রাশ দিয়ে সবজির ত্বক ধীরে ধীরে ঘষে ধুয়ে নিয়ে তারপর কাটুন।

নানা ধরনের কপি: ফুলকপি, বাঁধাকপি কিনে এনে ২-৩ মিনিট ঠান্ডা জলে ভিজিয়ে রাখতে হবে। কপিতে ফুলের বদলে পাতা বেশি থাকলে বা বাঁধাকপি, ওলকপি জাতীয় সবজি হলে সমস্ত পাতা আলাদা করে ধুয়ে তবেই কেটে নেওয়া উচিত।

শাক পাতা: যে কোনও ধরনের শাক কিংবা ধনেপাতা, কারিপাতা বা নিমপাতা বাজার থেকে কিনে এনে ভাল করে একটি পাত্রে জলের মধ্যে চুবিয়ে রাখতে হবে বেশ কিছুক্ষণ। তারপর ভাল করে জল ঝরিয়ে তবে রান্না করলে নিরাপদ।

মাংস, মাছ: মাংস কিনে এনে ঠান্ডা জলে ধুলে মাংসে উপস্থিত বিভিন্ন ব্যাকটিরিয়া রান্নাঘরের বিভিন্ন খাবার ও বাসনে ছড়িয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে। তাই না ধোয়াই ভাল। প্রয়োজনে গরম জলে ধুতে পারেন। এমনিতেও রান্না করলেই মাংসের ব্যাকটিরিয়া প্রায় মরেই যায়। যে কোনও মাছের পুষ্টিগুণ বাড়াতে ভালভাবে ধুয়ে রান্না করুন।

বিভিন্ন মাশরুম: কখনওই এটি জলে ধোয়া উচিত নয়। শুধু মাত্র পেপার ন্যাপকিন দিয়ে ভাল করে মুছে নিয়ে কেটে রান্না করা উচিত।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং