২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২৭ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

সপ্তাহান্তে তিলোত্তমায় ট্রামে চড়েই হোক রসনাতৃপ্তি

Published by: Sayani Sen |    Posted: November 23, 2018 9:41 pm|    Updated: November 23, 2018 9:41 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ভোজনরসিক বাঙালির কাছে ছুটি মানেই খাওয়াদাওয়া৷ তা সে যে ঋতুই হোক না কেন৷ তার উপর আবার হাওয়ায় লেগেছে শীতের পরশ৷ খাওয়াদাওয়া নিয়ে যে শহরবাসী এখন একটু বেশি ভাবনাচিন্তা করবে তা বলা বাহুল্য৷ এদিকে, আবার সামনেই সপ্তাহান্তের ছুটি৷ প্রিয় মানুষকে নিয়ে এই সপ্তাহান্তেও নিশ্চয়ই বাইরে খেতে যাওয়ার পরিকল্পনা করেছেন? রোজই তো কোনও না কোনও রেস্তরাঁকে বেছে নেন৷ এই উইকএন্ডে না হয় একটু অন্যরকম কিছু হয়ে যাক৷ আচ্ছা ভাবুন তো যদি ট্রামে চড়ে মনের মতো খাবারে পেটপুজো করা যায়৷ তবে মন্দ হয় না, তাই তো?  এ সপ্তাহে না হয় আপনার গন্তব্য হোক ‘ভিক্টোরিয়া অন হুইল’৷  

[রক্তে শর্করার পরিমাণ নিয়ন্ত্রণ করতে পারে কারিপাতা!]

তিলোত্তমা মানেই সংস্কৃতির আখড়া৷ মহানগরীর পরিচয় বহনকারীদের অন্যতম ট্রাম৷ ব্রিটিশদের তৈরি করা শহরে সাহেবি যানবাহন ট্রাম আজও সকাল থেকে রাত অবধি ছুটে বেড়ায় কলকাতার পথেঘাটে। তবে সাহেবদের ঘোড়ায় টানা ট্রাম বিদায় নিয়েছে বহুদিন। ইলেকট্রিক ট্রামের সংখ্যাও কমেছে। যে কয়েকটি ট্রাম কলকাতায় রয়েছে, সেগুলির কপালে জুটেছে হেরিটেজ কারের তকমা। এই হেরিটেজ ট্রামের আকর্ষণ বাড়াতে আগ্রহী সিটিসি বা কলকাতা ট্রাম কোম্পানি৷ সেই ইচ্ছা থেকে একটি ট্রামকে রূপ দেওয়া হয়েছে রেস্তরাঁর৷ তিলোত্তমার বুকে দিব্যি চলছে ট্রাম রেস্তরাঁ। ট্রামের ভিতরে বসে শহর দেখতে দেখতে অনায়াসেই আপনি সেরে নিতে পারেন পেটপুজো৷ বাঙালি খাওয়াদাওয়ার সম্ভার খাওয়াদাওয়ার মজা আরও কয়েকগুণ বাড়িয়ে দিতে পারে আপনার৷

[জানেন, কলকাতার কোন রেস্তরাঁয় গেলে মিলবে ২৫০ রকম স্বাদের রসগোল্লা?]

রসনা ও পর্যটনকে এভাবেই মিলিয়ে দিয়েছে সিটিসি। এই ট্রাম রেস্তরাঁর নাম ‘ভিক্টোরিয়া অন হুইল’। কলকাতার শহিদ মিনার থেকে খিদিরপুর পর্যন্ত চলে ট্রামটি। ট্রামের মধ্যে রয়েছে আমিষ ও নিরামিষ দুই ধরনের খাবারের আয়োজন। খাবারের সঙ্গে পানীয়ের ব্যবস্থাও রয়েছে। পানীয়-সহ আমিষ খাবারের প্যাকেজ ৯৯৯ টাকা৷ নিরামিষ খাবারে রসনাতৃপ্তি করতে চাইলে খরচ পড়বে কিছুটা কম৷ এই খাবারের প্যাকেজ ৭৯৯ টাকা। কল্লোলিনীর আমেজকে পর্যটকদের কাছে পৌঁছে দিতেই কলকাতা ট্রাম কোম্পানির এই আয়োজন। তাই আর দেরি করবেন না, উইকএন্ডের ক্যান্ডেল লাইট ডিনারের পরিকল্পনা করুন এখানেই। 

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement