২ কার্তিক  ১৪২৬  রবিবার ২০ অক্টোবর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পাহাড়ের মাথার ফাঁক দিয়ে মেঘের চাদর গায়ে জড়িয়ে স্নিগ্ধ সূর্য কখনও এসে সুপ্রভাত জানিয়েছে আপনাকে? এ অভিজ্ঞতা না থাকতেই পারে৷ এমন ঘটনা  তো আর রোজ রোজ ঘটে না৷ পাহাড় বা ঠান্ডা এলাকায় ঘুরতে যাওয়া বলতেই মাথায় আসে দার্জিলিং, সিমলা, সিকিম বা খুব বেশি হলে কাশ্মীর৷ এবার একটু অন্যরকম ভাবলে মন্দ কী? পরিবেশ প্রেমী হলে চলে যেতে পারেন হিমাচল প্রদেশের খাজিয়ারে৷ জায়গাটি ‘ভারতের মিনি সুইজারল্যান্ড’ নামে পরিচিত৷ দ্বিতীয়বার যেতে ইচ্ছে করবে৷ গ্যারান্টি রইল৷

khajjiar_web
হিমাচল প্রদেশ গেলেই সিমলা, কুলু, মানালি হয়েই সাধারণত বাড়ি ফেরেন ভ্রমণ পিপাষুরা৷ কিন্তু পাহাড়ে সাজানো এক টুকরো স্বর্গ দর্শনই বাকি থেকে যায়৷ খাজিয়ারের সবুজে ঢাকা সারি সারি পাহাড় এই স্থানকে করে তুলেছে ‘পাহাড়ো কি মালিকা’৷ ডালহৌসির কাছে এই পাহাড়ি শহরের বুক চিরে তৈরি হয়েছে একটি লেকও৷ সেই ঝিলকে ঘিরেই রয়েছে ছোট ছোট কাঠের বাড়ি৷ পর্যটকদের জন্য সেখানে প্যারাগ্লাইডিং, ট্রেকিংয়ের ব্যবস্থাও রয়েছে৷ অনেকেই আবার ঘোড়ায় চেপে প্রকৃতির কোলে ঘুরে বেড়ান৷ শীতকালে গেলে মনে হতে সুইজারল্যান্ডেই এসে পড়েছেন৷ কারণ তুষারপাতে মাঝে মধ্যেই এখানকার রাস্তা বন্ধ হয়ে যায়৷

Khajjiar-with-snow
কীভাবে যাবেন
হাওড়া থেকে ধরমশালাগামী ট্রেনে চেপে পড়ুন৷ পৌঁছতে সময় লাগবে দু’দিন৷ বিমানেও যেতে পারেন৷ তবে পাহাড়ি এলাকায় এতটা পথ বাস রাস্তায় যাওয়ার ঝুঁকি না নেওয়াই ভাল৷

কোথায় থাকবেন
ঝিলের আশেপাশেই থাকার জন্য আধুনিক ব্যবস্থা সম্পন্ন সরকারি হোটেল বা কটেজ পেয়ে যাবেন৷ গরম কালে পর্যটকদের ভিড় বাড়ে৷ ফলে আগে থেকে বুক করে গেলেই সুবিধা হবে৷ আশে পাশের জায়গা ঘুরতে চাইলে রয়েছে ট্যাক্সি ও বাসের ব্যবস্থাও৷

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং