BREAKING NEWS

০৮ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  সোমবার ২৩ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

পর্যটকদের জন্য সুখবর, ফের চালু হল নিউ জলপাইগুড়ি-দার্জিলিং টয়ট্রেন পরিষেবা

Published by: Akash Misra |    Posted: January 25, 2022 9:39 pm|    Updated: January 25, 2022 9:39 pm

New Jalpaiguri to Darjeeling Toy Train service restarted | Sangbad Pratidin

স্টাফ রিপোর্টার, শিলিগুড়ি : প্রতীক্ষার অবসান। ফের নিউ জলপাইগুড়ি থেকে দার্জিলিং পর্যন্ত পরিচিত রুটে টয় ট্রেনের যাত্রা শুরু হল। ধসের কারণে টানা তিনমাস পরিষেবা বন্ধ ছিল। এরপর থেকেই টয় ট্রেন চালুর প্রতীক্ষায় দিনগোনা শুরু হয় পর্যটক ও ট্যুর অপারেটরদের। সোমবার পরিষেবা চালু হতে তাই খুশির আমেজ উত্তরবঙ্গের পর্যটন শিল্পে।

ডিএইচআর ডিরেক্টর একে মিশ্র বলেন, “১৯ অক্টোবর কার্শিয়াংয়ে ধসের জন্য নিউ জলপাইগুড়ি থেকে দার্জিলিং পর্যন্ত টয়ট্রেন পরিষেবা বন্ধ হয়। লাইন মেরামতির কাজ শেষ হতে ফের পরিষেবা স্বাভাবিক হয়েছে। এখন পর্যটক কম থাকলেও ভাল সাড়া মিলছে। একজন যাত্রী থাকলেও পরিষেবা দেওয়া হবে।” আঁকাবাঁকা পাহাড়ি পথে জঙ্গলের নৈসর্গিক দৃশ্য দেখতে দেখতে টয়ট্রেনে চেপে দার্জিলিংয়ে পৌঁছে যাওয়া রোমাঞ্চকর ভ্রমণ কাহিনি। কিন্তু টানা বৃষ্টিতে পর্যটকদের ওই যাত্রাপথে ছেদ পড়েছিল। প্রবল ধসে ব্যপক ক্ষতি হয় টয় ট্রেনের লাইনে। ফলে বন্ধ করে দেওয়া হয় পরিষেবা। এবছর শীতের শুরুতে পাহাড়ে পর্যটকদের ভিড় উপচে পড়ে। কিন্তু পর্যটকরা পরিষেবা থেকে বঞ্চিত হয়।

[আরও পড়ুন: পর্যটনে ফের করোনা কাঁটা! বাতিল বনদপ্তরের সমস্ত বাংলোর বুকিং]

রেল সূত্রে জানা গিয়েছে, গত বছর অক্টোবর মাসে পাহাড়ে এক টানা বৃষ্টিতে কার্শিয়াংয়ের মহানদীর কাছে ৫৫ নম্বর জাতীয় সড়কে ধসের কারণে ক্ষতিগ্রস্ত হয় ট্রেন লাইন। ফলে এনজেপি থেকে দার্জিলিং পর্যন্ত টয়ট্রেনের যাত্রাপথ মাঝপথে থমকে যায়। ওই পরিস্থিতিতে পর্যটকরা উত্তরবঙ্গে এসেও টয়ট্রেন সফর করতে পারেনি। মহানদীতে রাস্তা মেরামত হওয়ার পর ট্রেন লাইন মেরামতের কাজ শেষ হতে ফের নিউ জলপাইগুড়ি থেকে সরাসরি দার্জিলিং পর্যন্ত ট্রেন পরিষেবা চালু হয়। এদিকে দার্জিলিং পর্যন্ত টয়ট্রেন পরিষেবা চালু হতে খুশির হাওয়া টুর অপারেটর মহলে। অ্যাসোসিয়েশন ফর কনজারভেশন অ্যান্ড টুরিজমের আহ্বায়ক রাজ বসু জানান, দীর্ঘদিন পর নিউ জলপাইগুড়ি থেকে দার্জিলিং পর্যন্ত ট্রেন পরিষেবা চালু হওয়ায় আমরা খুশি। উত্তরবঙ্গে আসা পর্যটকদের মূল আকর্ষণ হলো কাঞ্চনজঙ্ঘা, চা এবং টয়ট্রেন। কাঞ্চনজঙ্ঘার দেখা পাওয়া নির্ভর করে আবহাওয়ার উপর। অন্যদিকে চা পাতার সৌন্দর্য তেমন থাকে না। সুতরাং ভরসা টয় ট্রেন। ওই পরিষেবা চালু হওয়ায় পর্যটকদের ভিড় বাড়বে। পর্যটন শিল্প প্রাণ ফিরে পাবে।

[আরও পড়ুন: রাজ্যের পর্যটন মানচিত্রে নয়া সংযোজন, শীতের মরশুমে দরজা খুলল পুরুলিয়ার প্রজাপতি বাগান]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে