৩১ ভাদ্র  ১৪২৬  বুধবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

রাজ কুমার, আলিপুরদুয়ার: চলতে চলতেই গাড়ির ভিতর কিচেন, বেডরুম, ডাইনিং হল, টয়লেট–সব কিছুরই এলাহি ব্যবস্থা! ভাবছেন কোনও বড়সড় ট্রেনে এরকম ব্যবস্থা চালু হল নাকি?না। পর্যটকদের জন্য ক্যারাভ্যান চালু হল আলিপুরদুয়ারে। গাড়ির ভিতরেই পর্যটকদের থাকা-খাওয়া, ঘুমানো, রান্না করা-সহ হাজির সব পরিষেবা। শনিবার উত্তরবঙ্গের গরুমারা জাতীয় উদ্যান থেকে এই ক্যারাভ্যানে সওয়ার হয়েছেন কলকাতার লেক টাউনের একটি পরিবারের পাঁচজন সদস্য। রবিবার এই ক্যারাভ্যান আলিপুরদুয়ারের সিকিয়াঝোরাতে এসে পৌঁছেছে। পর্যটকদের জন্য রাজ্যে এই ধরনের ক্যারাভ্যান প্রথম বলে দাবি গাড়ি পরিচালনের দায়িত্বে থাকা ব্যক্তিরা।

মুখ্যমন্ত্রীর স্বপ্নের প্রকল্প, অনলাইন বুকিং শুরু ‘ভোরের আলো’-র]

আলিপুরদুয়ার ক্যারাভান পরিষেবার অন্যতম উদ্যোক্তা বিপ্লব দে বলেন, “রাজ্যে প্রথম এই ধরনের ক্যারাভ্যান চালু হল। বিদেশে এটি খুব জনপ্রিয়। আমাদের দেশেও কয়েকটি রাজ্যে এই ধরনের ক্যারাভ্যান রয়েছে। বেডরুমে এসি থেকে শুরু করে বাথরুমে গিজার, ডাইনিং হলে টিভি, কিচেনে ফ্রিজ–সব কিছুর ব্যবস্থা রয়েছে এই গাড়িতে। অন্তত ছ’জন আরাম করে এই গাড়িতে ভ্রমণ করতে পারবেন।’’ তিনি আরও বলেন, ‘‘একমাস ট্রায়াল রানের পর বাণিজ্যিকভাবে শনিবার এই ভ্যান প্রথম রাস্তায় নেমেছে।”

জানা গিয়েছে, গাড়িতে নাইট ভিশন ক্যামেরা-সহ ছয়টি ক্যামেরা রয়েছে। যাতে পর্যটকরা জঙ্গলের নানা দৃশ্য দেখতে পারবেন। ছবিও তুলতে পারবেন। এছাড়া এই ক্যারাভ্যানের ছাদে রয়েছে সৌরবিদ্যুতের ব্যবস্থা। তবে গাড়িতে আপদকালীন ব্যবস্থা হিসাবে ব্যাটারি ও ইনভার্টারও থাকছে। এই গাড়িটি তৈরি করতে অন্তত ২৫ লক্ষ টাকা খরচ হয়েছে। কলকাতার লেকটাউনের পর্যটক রাখি মিত্র  রবিবার সিকিয়াঝোরাতে বলেন, “অসাধারণ একটি উদ্যোগ। একটি গাড়িতে থাকা, খাওয়া, ঘুমনো, রান্না করা-সহ বাড়িতে যা যা থাকে, সব কিছুই রয়েছে এই ক্যারাভ্যানে। আবার হোটেলে থাকারও ঝক্কি নেই। যা খুশি রাঁধো, খাও আর ঘুরে বেড়াও।” জানা গিয়েছে, থাকা-খাওয়া সহ ক্যারাভ্যানের দৈনিক ভাড়া ১০ হাজার টাকা।

ছবি: শীলা দাস

[ টয়ট্রেনের দোসর এসি বাস, পর্যটকদের সুবিধায় নয়া ব্যবস্থা পাহাড়ে]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং