১০ আষাঢ়  ১৪২৬  মঙ্গলবার ২৫ জুন ২০১৯ 

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

অনিন্দ্য সিংহ চৌধুরি: হিমাচলের অন্যতম জনপ্রিয় হিল স্টেশন রোটাং পাস৷ পাইন ও দেওদারের বনাঞ্চলের পথ পার করে মাথা তুলে দাঁড়িয়েছে এই তুষারশৃঙ্গটি৷ নিচে বয়ে গিয়েছে বিপাশা৷ চারধারে তুষারচূড়ার মধ্যে মন ছুঁয়ে যাওয়া প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের নেশায় এগিয়ে যেতে যেতেই চোখে পড়বে রাহালা জলপ্রপাত৷ হিমবাহ নিঃসৃত এই জলপ্রপাতের জলই গিয়ে পড়েছে বিপাশায়৷ রাহালা ছাড়িয়ে মারহি পৌঁছলেই আবহাওয়ায় দারুণ এক পরিবর্তন দেখা যাবে৷ এখান থেকে রোটাং পাস মাত্র ১৬ কিলোমিটার৷ গরমে বরফের খোঁজে বহু পর্যটক এই রোটাং পাসে আসেন৷

rohtang1_web

শুধু বরফ নয়, পাহাড়ের গায়ে সবুজ গাছগাছালি এবং বিপাশার সৌন্দর্যে মন একেবারে ভরে যেতে বাধ্য৷ মারহির বৈচিত্রময় পরিবেশ দেখে পর্যটকরা মুগ্ধ হবেনই৷ এখানকার রাস্তার দু’পাশে বেশ কয়েকটি দোকান রয়েছে৷ তবে তা দুপুর পর্যন্ত জমজমাট৷ সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত এখানে চলে হ্যাং গ্লাইডিং৷ বিকেল হতেই গোটা মারহির আকাশ ঢেকে যায় মেঘে৷ মারহি ছাড়িয়ে তিন কি চারটি হেয়ারপিন বেন্ড পার হয়ে স্থায়ী বরফরেখার আগে হ্যাং গ্লাইডিংয়ের সূচনাকেন্দ্র৷ রোটাংয়ের এই রাস্তায় আট কিলোমিটার গিয়ে বাঁক নিতে হবে৷ আর কিছুটা এগোলেই সবুজের সমারোহ৷ সোলাং ভ্যালি৷ রোটাংয়ের প্রতিটি বাঁকই বেশ উপভোগ্য৷ রাস্তার দু’ধারে বরফের চাদর৷ তবে যেখানে পাহাড়ের ঢালে পুরু বরফের স্তর, সেখানে গাড়িতে যাওয়া যায়৷ তাহলে? মুশকিল আসান করতে হাজির ঘোড়াওয়ালা৷ ইগলু হাটের মধ্যে দেবস্থান দেখেই পৌঁছনো গেল তুষারক্ষেত্র৷ বরফ খেলার দারুণ আয়োজন এখানে৷ এখানে কোথাও ছুটে চলেছে স্নো স্কুটার৷ আবার কোথাও স্লেজ গাড়ি৷ এখানকার পরিবেশ পর্যটকদের মোহিত করবেই৷

rohtang_web

আরও কী দেখার
রোটাং পাস থেকে গাড়িতে করে লাহুল-স্পিতি৷ এর খুব কাছেই রয়েছে গ্রামফু৷ একটু সময় পেলে রোটাং পাস থেকে মানালি শহরটা ঘুরে ফেলতে পারেন৷

কীভাবে যাবেন
হাওড়া স্টেশন থেকে কালকা মেলে প্রথমে চণ্ডীগড়৷ এরপর সেখান থেকে সড়কপথে মানালি৷ পরে হিমাচল প্রদেশ রোড ট্রান্সপোর্ট এবং টুরিজম ডেভলপমেন্ট কর্পোরেশনের লাক্সারি বাসে করে রোটাং পাস৷ তবে সুমো বা কোয়ালিসও রয়েছে রোটাং পাস যাওয়ার জন্য৷ ভাড়াও খুব বেশি নয়৷

কোথায় থাকবেন
রোটাং পাসে তেমন না থাকলেও মানালিতেই প্রচুর হোটেল রয়েছে৷ কম ভাড়ার হোটেল যেমন রয়েছে, তেমনই আছে দামি হোটেল৷ মানালিতে রয়েছে স্নো ভ্যালি রিসর্ট, সান পার্ক রিসর্ট, হোটেল মানালি মহল৷

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং