BREAKING NEWS

২ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

এই কারণে শীতকালেও চোখে থাকুক রোদচশমা

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: January 23, 2018 2:10 pm|    Updated: January 23, 2018 2:10 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: গরমকাল এলেই রোদচশমা নিয়ে হুড়োহুড়ি পড়ে যায়। তাইবলে সূর্যের অতিবেগুনি রশ্মী কী শুধু গরমেই আপনার চোখে হানা দেয়? মোটেও তা নয়। শীতকালেও রোদচশমার প্রয়োজনীয়তা রয়েছে। বরফাবৃত অঞ্চলে রোদচশমা ছাড়া চলাফেরা করা অত্যন্ত বিপদজনক। সূ্র্যের আলো পড়ে প্রায় জ্বলতে থাকে বরফের টুকরো। সেদিকে চোখ পড়লে দৃষ্টিশক্তি হারানোর সম্ভাবনা ১০০ শতাংশ। বরফের উপরে ঠিকরে পড়া সূর্যের আলোয় ইউভি-এ ও ইউভি-বি রশ্মি থাকে। তাই এই মরশুমে হিল স্টেশনে বেড়াতে গেলে সঙ্গে রাখুন রোদচশমা। বরফ গোলা পাকিয়ে ছোড়াছুড়ি করার সময় যেমন কাজে আসবে। তেমনই বরফের চাদরে স্কি করতে গেলেও সঙ্গে রাখুন রোদচশমা

[এবার থেকে নিজের মৃত্যুর দিনক্ষণ আপনি জানতে পারবেন আগেই]

শীতকালে উত্তুরে হাওয়া বড় এলোমেলোভাবে বইতে থাকে। চারদিক শুষ্ক থাকায় হাওয়ার সঙ্গে উড়তে থাকে কাঠের টুকরো থেকে শুরু করে বালির কণা। যখনতখন এই ধূলিকণা ঢুকে যেতে পারে আপনার চোখে। তাই দিনেরবেলা বাইরে বেরোলে সঙ্গে রাখুন রোদচশমা। এইসব উটকো বিপদে আপনার একমাত্র সহায় হতে পারে ওই রোদচশমাই। বাজারে বিভিন্ন স্টাইলের রোদচশমা রয়েছে। নিজের মুখের আকৃতি অনুযায়ী বেছে নিন। ড্রাইভ করার সময় রোদচশমা নিতে ভুলবেন না। হাওয়ায় মিশে থাকা ধূলিকণা সব থেকে বেশি বিড়ম্বনায় ফেলে এই সময়। চোখ ও পার্শ্ববর্তী অংশ মুড়ে রাখে এমন চশমা ব্যবহার করতে পারেন বাইকাররা। তাহলে চোখ যেমন বাঁচে, তেমনই বলিরেখা থেকে রেহাই পেতে পারেন। শীতকালে মেঘলা আকাশ খুব একটা থাকে না। তাই রৌদ্রের তেজও বেশি থাকে। ড্রাইভিংয়ের সময় সড়ক লাগোয়া হোর্ডিংয়ের দিকে চোখ যেতে পারে। সেখানে তখন অকৃপণ হস্তে কিরণ দান করছেন সূর্যদেব। সেদিকে একবার চোখ পড়লেই মুহুর্তে দৃষ্টিসীমা অন্ধকারে ঢেকে যায়। ডেকে আনতে পাড়ে বড়সড় বিপদ। দুর্ঘটনা ঘটারও সম্ভাবনা থাকে।

[যৌবন ধরে রাখতে এই ‘সুপারহিরো’কে সঙ্গে রাখুন আপনিও]

শীতকালেই সূর্যের ইউভি-এ ও ইউভি-বি রশ্মি সবথেকে বেশি সক্রিয় থাকে। শীতের মিঠে রোদ ভেবে আমরা যাকে আনন্দে গায়ে মাখছি, সেই রোদই আমাদের মাথাব্যথার বড় কারণ হয়ে ওঠে। দিনের পর দিন যদি একইভাবে চোখে রোদ পড়তে থাকে তাহলে মাথাযন্ত্রণা দূরারোগ্য ব্যধিতে পরিণত হতে সময় নেবে না। রোদচশমাই আপনাকে মাথা যন্ত্রণা থেকে বাঁচাতে পারে। সূর্যরশ্মি চোখের রেটিনায় মারাত্মক ক্ষতি করে। তাই গরমকালের মতো শীতকালেও চোখ ঢেকে রাখুন। এমনিতেই উত্তুরে হাওয়ার রুক্ষতা থেকে বাঁচতে মুখ-সহ সারা শরীরেই আমরা ময়শ্চারাইজার ব্যবহার করছি। তখন চোখকে ঠান্ডা ও সজীব রাখতে রোদচশমা প্রয়োজনীয় বৈকি। পোলারাইড চশমা সূর্যের তীব্র কিরণকে অনেকটাই ফিকে করে দেয়। দুপুরে খোলা আকাশের নিচে দাঁড়িয়েও আপনি রোদচশমার মধ্যে দিয়ে বাইরের পৃথিবীকে স্নিগ্ধ দেখবেন। চোখ ঠান্ডা থাকবে। সুতরাং মিঠে রোদকে পিঠে নিয়ে রোদচশমার আড়ালে চোখ ঢাকলে আখেরে লাভ আপনারই।

[নিয়মিত চা পান করলে বাড়ে বুদ্ধি ও একাগ্রতা]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement