১১ ফাল্গুন  ১৪২৬  সোমবার ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

১১ ফাল্গুন  ১৪২৬  সোমবার ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ‘চুল তার কবেকার বিদিশার নিশা।’ বহুকাল আগে লিখেছিলেন জীবনানন্দ দাশ। কিন্তু আজও সেই সৌন্দর্য বঙ্গহৃদয়ে অমলিন। কেশবতী কন্যার সৌন্দর্য এই আধুনিক যুগেই হিল্লোল তোলে পুরুষ হৃদয়ে। শুধু বাংলা কেন? লম্বা কালো চুলের আকর্ষণ বাংলা ও ভারতের সীমান্ত ছাড়িয়ে পৌঁছে গিয়েছে বিদেশেও। তাই তো রাপুনজেল এত হিট। তবে এই রাপুনজেল কিন্তু শুধু রূপকথার পাতায় নেই। বাস্তবেও রয়েছে। আর রয়েছে এই ভারতেই। গুজরাটে থাকে সে। নাম নীলাংশী প্যাটেল।

নীলাংশীর বয়স ১৭ বছর। তাঁর চুলের দৈর্ঘ্য ১৯০ সেন্টিমিটার, অর্থাৎ ৬ ফুট ২.৮ ইঞ্চি। বাস্তবের রাপুনজেল বলতে যা বোঝায়, নীলাংশী ঠিক তাই। এই চুলের জন্যই গিনেস বুক অফ ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসে স্থান পেয়েছে সে। রেকর্ড অনুযায়ী, টিনএজারদের মধ্যে সবচেয়ে লম্বা চুলের অধিকারী নীলাংশী। কিন্তু হঠাৎ এভাবে চুল বাড়ানোর ইচ্ছা হল কেন তার? এর পিছনে রয়েছে এক চুল কাটার গল্প। সে জানিয়েছে, “আমার যখন ছ’বছর বয়স তখন একটি পার্লারে চুল কাটতে গিয়ে খুবই খারাপ অভিজ্ঞতা হয়৷ পার্লারের কর্মীরা অত্যন্ত বাজে ভাবে আমার চুল কেটে দিয়েছিলেন৷ হেয়ারকাট নিয়ে সমস্যায় পড়েছিলাম। এরপর থেকেই প্রতিজ্ঞা করি আর চুল কাটব না৷ গত দশ বছর ধরে সেই প্রতিজ্ঞা রক্ষা করে চলেছি৷ চুল কাটিনি৷”

তবে গিনেস বুক অফ ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসে এর আগেও নাম উঠেছিল নীলাংশীর। বছর দুই আগে লম্বা চুলের কারণেই সে রেকর্ড করেছিল। তখন তার চুলের দৈর্ঘ্য ছিল ১৭০.৫ সেন্টিমিটার। তখনই তাঁকে জিজ্ঞাসা করা হয়ছিল, এভাবে চুল বাড়াতে সমস্যা হয়নি? নীলাংশী বলেছিল, “আপনাদের মতোই অন্যান্যরাও ভাবে এত লম্বা চুলের জন্য আমার নিশ্চয়ই অনেক সমস্যা হবে৷ কিন্তু সত্যি কথা বলতে কি, আমার কোনও সমস্যাই হয় না। এই লম্বা চুল নিয়ে আমি খেলাধুলো করি এবং অন্যান্য কাজও করি। এই চুল আমার লাকি চার্ম বলতে পারেন।” লম্বা চুলে কী কী স্টাইল করেন? নীলাংশী জানান, “স্টাইল করতে আমার ভালই লাগে৷ এই চুলেই আমি লম্বা বিনুনি করি বা উঁচু করে খোঁপা বাঁধি। আমার পক্ষে আরামদায়ক হয়।”

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং