×

৪ চৈত্র  ১৪২৫  বুধবার ২০ মার্চ ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও #IPL12 বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

ধীমান রায়, কাটোয়া: মাস তিনেক আগে বিশাল আকৃতির ডিমকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছিল দক্ষিণ ২৪ পরগনার কাকদ্বীপে। বিশাল আকৃতির ডিমের পর এবার গোলাপি রংয়ের ডিম। হ্যাঁ,  অদ্ভুত এই ডিম প্রথম চাক্ষুস করেছেন কাটোয়ার ৫ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা শ্রাবণী রায়। খবর ছড়িয়ে পড়তে সময় লাগেনি। গোলাপি ডিম দেখতে উৎসাহী মানুষের ভিড় জমে যায় রায়বাড়িতে।

[শহিদ সুদীপ বিশ্বাসের পরিবারকে পাঁচ লক্ষ টাকার চেক দিলেন মন্ত্রী উজ্জ্বল বিশ্বাস]

স্ত্রী ও সন্তানকে নিয়ে কাটোয়ার ৫ নম্বর ওয়ার্ডের ভূতনাথতলায় থাকেন অবসরপ্রাপ্ত সরকারি কর্মী অলোক রায়। বৃহস্পতিবার বাড়ি ফেরার সময় কাটোয়া স্টেশনবাজার থেকে ১০টি হাঁসের ডিম কিনে এনেছিলেন তিনি। পরিবারের লোকেরা জানিয়েছেন, শুক্রবার সকালে সেদ্ধ করার পরই রবারের মতো লাগছিল ডিমটিকে। খোসা ছাড়াতেই চক্ষু চড়কগাছ! ডিমের রং যে গোলাপি! দাবানলের খবর ছড়িয়ে পড়ে। অদ্ভূত দর্শন ডিম দেখতে ভিড়ে জমে যায় অলোক রায়ের বাড়িতেও। এদিকে ডিম বিক্রেতারও খোঁজ মিলছে না। শেষপর্যন্ত ‘গোলাপি ডিম’টি নিয়ে যাওয়া হয় কাটোয়ায় পশু হাসপাতালে। 

কাটোয়া পশু হাসপাতালে চিকিৎসক হেমন্ত মণ্ডল জানিয়েছেন, সম্ভবত কোনও রাসায়নিক পদার্থ খেয়ে ফেলেছিল ওই হাঁসটি। তাই ডিমের রঙও গোলাপি হয়ে গিয়েছে। তবে পরীক্ষা না করে নিশ্চিতভাবে কিছুই বলা যাবে না। ডিমটি পরীক্ষা জন্য পাঠানো হয়েছে। তবে কারণ যাই হোক না কেন, এমন অদ্ভূত দর্শন নিয়ে রীতিমতো হইচই পড়ে গিয়েছে কাটোয়া শহরে।

[গুজবের জেরে গণপিটুনি, শিশুচোর সন্দেহে কাঁথিতে নিগৃহীত প্রৌঢ়]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং